Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ২০ জুলাই, ২০১৯ , ৪ শ্রাবণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৭-১১-২০১৯

গ্যাসের দাম নিয়ে নোটিশ: সংসদের সাড়া না পাওয়ায় মেননের ক্ষোভ

গ্যাসের দাম নিয়ে নোটিশ: সংসদের সাড়া না পাওয়ায় মেননের ক্ষোভ

ঢাকা, ১২ জুলাই- গ্যাসের দাম নিয়ে জাতীয় সংসদে আলোচনা করার জন্য নোটিশ দিয়ে কোনো সাড়া না পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ১৪ দলের শরিক ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন। সংসদে কথা বললেও তার কোনো সুরাহা নেই– এমন অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, 'আমরা (এমপিরা) বকাউল্লাহ। বকে যাই। ওনারা (সরকার) শোনাউল্লাহ। শুনে যান। আর এই সংসদ হচ্ছে গরিবউল্লাহ।'

বৃহস্পতিবার সংসদের বৈঠকে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে বিকেল ৫টায় ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হয়।

এর আগে গ্যাসের দাম বৃদ্ধি নিয়ে সংসদের কার্যপ্রণালি বিধির ৬৮ ধারায় তিনি একটি নোটিশ দিয়েছিলেন। ওই নোটিশ বিষয়ে স্পিকারের তরফ থেকে কোনো সাড়া না পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। এরপর স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতির আসনে বসে সংসদের সমাপনী বক্তব্য দেওয়ার জন্য বিরোধীদলীয় উপনেতা রওশন এরশাদকে আহ্বান জানানোর আগে মুলতবি প্রস্তাব ও ৭১ বিধিতে দেওয়া প্রস্তাব সম্পর্কে তার সিদ্ধান্ত জানালেও এই নোটিশের বিষয়ে কিছুই বলেননি। বৃহস্পতিবার সংসদের বাজেট অধিবেশন শেষ হয়। কিন্তু তার নোটিশ নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। নোটিশ গৃহীত হয়েছে, না বাতিল হয়েছে, তাও মেননকে জানানো হয়নি।

আওয়ামী লীগদলীয় সদস্য ও বাংলাদেশ জাসদের নেতা মইনউদ্দীন খান বাদলের উদ্ধৃতি দিয়ে রাশেদ খান মেনন বলেন, 'রুলস অব প্রসিডিউরে আছে। সুতরাং এটা সম্পর্কে জানার অধিকার আমার আছে। অবশ্য আমাদের সংসদ সদস্য মইনউদ্দীন খান বাদল আমাকে বলছিলেন– খামকা এটা নিয়ে ইনসিস্ট করে লাভ নেই। কারণ আমরা হচ্ছি বকাউল্লাহ আর ওনারা শোনাউল্লাহ; আর এই সংসদ হচ্ছে গরিবউল্লাহ।'

তিনি বলেন, 'যদি এই আলোচনাটা না হয় তাহলে সংসদ আরও গরিব হবে বলে আমার ধারণা। আমি এ ব্যাপারে আপনার বক্তব্য চাচ্ছি।'

মেননের বক্তব্যের জবাবে বৈঠকের সভাপতি ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, 'মাননীয় সদস্য, আপনারা শুধু বকাউল্লাহ বকাই নন, আর আমরা শোনাউল্লাহ শোনাই নই। আপনারা বক্তব্য রাখেন, সরকার কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। আপনার ৬৮ বিধির নোটিশটি আমি সেদিনও বলেছি, এটা মাননীয় স্পিকারের বিবেচনাধীন আছে। বিবেচনা করা হবে না– এমন তো কোনো কথা নেই। বিষয়টি আমরা আপনাকে পরে অবহিত করব।'

এর আগে গত রোববার মহাজোট সরকারের সাবেক মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন সংসদে বলেছিলেন, গ্যাসের দাম নিয়ে সংসদে আলোচনার জন্য তিনি ৬৮ বিধিতে একটি নোটিশ দিয়েছেন। হাসানুল হক ইনু, মইনউদ্দীন খান বাদল, ফজলে হোসেন বাদশা, মোস্তফা লুৎফুল্লাহ এবং লুৎফননেসা খান তার নোটিশে সমর্থন করেছেন।

ওই দিন জাতীয় পার্টির সাংসদ ফখরুল ইমাম জানতে চেয়েছিলেন, সংসদ অধিবেশন চলাকালে সংসদে আলোচনা ছাড়া গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত বৈধ হয়েছে কি-না?

সূত্র: সমকাল
এনইউ / ১২ জুলাই

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে