Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৯ , ১ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (15 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-১০-২০১৯

উত্তর সিটিতে সার্ভিস রোড ও বাই লেনে চলবে রিকশা

উত্তর সিটিতে সার্ভিস রোড ও বাই লেনে চলবে রিকশা

ঢাকা, ১০ জুলাই - ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) আওতাধীন সড়কে সার্ভিস রোড ও বাই লেন অংশে রিকশা চলাচল করতে পারবে। একই সঙ্গে রামপুরা ব্রিজের উপর দিয়েও পার হতে পারবে রিকশা।

বুধবার (১০ জুলাই) গুলশান নগর ভবনে রিকশাচালক ও শ্রমিকদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে আলোচনায় বসেন ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম। বৈঠকে উত্তর সিটির প্রদান সড়কে রিকশা চলাচলে এ সিদ্ধান্ত হয়।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে আতিকুল ইসলাম বলেন, কুড়িল বিশ্বরোড থেকে রামপুরা পর্যন্ত সড়কের মধ্যে যেসব জায়গায় সার্ভিস ও বাই লেন আছে সেসব অংশে শুধু বৈধ রিকশা চলাচল করতে পারবে। আর কুড়িল থেকে রিকশা ইউটার্ন নিতে পারবে। এর বাইরে আর কোথাও রিকশা চলাচল করতে পারবে না। এখানে যেসব রিকশা চলবে সেখান থেকেও পর্যায়ক্রমে রিকশা বন্ধ করা হবে। রিকশাচালক ও মালিক ভাইদের নিয়ে আমরা এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে চাই।

রিকশাচালকদের ওপর এমন সিদ্ধান্তে কোনো নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না দাবি করে মেয়র বলেন, আমাদের উত্তর অংশে প্রায় দুই হাজার ৩শ কিলোমিটার সড়ক রয়েছে। আমরা কুড়িল থেকে রামপুরা পর্যন্ত ৯ কিলোমিটার এবং গাবতলী থেকে মিরপুর রোডে ৬ কিলোমিটার; এই ১৫ কিলোমিটার সড়ক রিকশার আওতামুক্ত রেখেছি। বাকি অংশ তাদের জন্য তো রয়েছেই। 

এছাড়াও বৈধ রিকশা সহজে চিহ্নিত করতে ডিএনসিসিতে নিবন্ধিত প্রায় ২৭ হাজার রিকশায় কিউআর কোড বসানো হবে বলেও জানান আতিক। 

তিনি বলেন, বৈধ রিকশাগুলোতে আমরা কিউআর কোড বসাবো। কিউআর কোডের যেন জালিয়াতি না হয় তার জন্য প্রয়োজনে বুয়েট বা এমআইএসটির বিশেষজ্ঞদের সাহায্য নেওয়া হবে। রিকশাচালকদের একটি ডাটাবেজ তৈরি করে ওয়ার্ডভিত্তিক পোশাক দেওয়া হবে। 

বৈঠকের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন বৈঠকে অংশ নেওয়া রিকশাচালক ও মালিক নেতারা। রিকশা-ভ্যান শ্রমিকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহকারী সাংগঠনিক সম্পাদক বশির আহমেদ বলেন, বৈঠক থেকে যে সিদ্ধান্ত হয়েছে আমরা তাতে সন্তুষ্ট। তবে প্রধানমন্ত্রী আমাদের জন্য আলাদা লেনের কথা বলেছেন। লেন না হওয়া পর্যন্ত আমরা রাস্তায় চলতে চাই। তবুও এখন যে সিদ্ধান্ত হয়েছে আমরা তা মেনে চলবো। 

বৈঠকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) মফিজ উদ্দিন আহমেদ, ট্রাফিক উত্তর বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার প্রবীর কুমার, গুলশান বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মোস্তাক আহমেদসহ রিকশা, ভ্যানচালক ও মালিকদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। 

সুত্র : বাংলানিউজ
এন এ/ ১০ জুলাই

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে