Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯ , ২ শ্রাবণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-০৯-২০১৯

স্ত্রীর হত্যাচেষ্টা থেকে বেঁচে গেলেও সন্তানকে খুঁজে পাননি ইউসুফ

স্ত্রীর হত্যাচেষ্টা থেকে বেঁচে গেলেও সন্তানকে খুঁজে পাননি ইউসুফ

ফরিদপুর, ০৯ জুলাই- স্ত্রীর হত্যাচেষ্টা থেকে বেঁচে গেলেও একমাত্র সন্তানকে খুঁজে পাননি স্বামী ইউসুফ প্রামাণিক (৩৫)।

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলার কারিকর ডাঙ্গী গ্রামের আ. বারেক প্রামাণিকের ছেলে ইউসুফ প্রামাণিককে তার স্ত্রী চম্পা খাতুনের (৩২) সহায়তায় গলা কেটে হত্যাচেষ্টা চালায় ডাঙ্গী গ্রামের শেখ শাহজাহানের ছেলে শেখ রুবেল (২৮)।

ছুরির আঘাতে ইউসুফ প্রামাণিকের মুখের নিচের অংশসহ গলার এক অংশ গুরুতর জখম হয়। স্বামী ইউসুফ প্রামাণিককে হত্যাচেষ্টা ব্যর্থ হওয়ার কদিন পর শিশুপুত্রকে সঙ্গে নিয়ে প্রেমিকের হাত ধরে উধাও হয়ে যান স্ত্রী চম্পা।

এদিকে ইউসুফ প্রামাণিককে প্রথমে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রাখা হয়। সেখানে ২০দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর তিনি প্রাণে বেঁচে যান। তবে তার স্ত্রী ও সন্তান কোথায় আছেন- তা তিনি জানেন না।

মঙ্গলবার দুপুরে আহত ইউসুফ প্রামাণিক চরভদ্রাসন প্রেসক্লাবে এসে সাংবাদিকদের বলেন, বাহরাইনে ৫ বছর থাকাকালে চাকরির সব আয় স্ত্রীর পেছনে ব্যয় করেছি। এমনকি তার জন্য আলাদা বাড়ি করে দিয়েছি। এসবের জন্যও আমার আক্ষেপ নাই। আমি শুধু শিশুপুত্রকে ফিরে পেতে চাই।

এ ব্যাপারে চরভদ্রাসন থানায় একটি মামলা হয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই শাহীনুর রহমান জানান, নিখোঁজ ইউসুফ প্রামাণিকের স্ত্রী ও তার পরকীয়া প্রেমিককে গ্রেফতারের জন্য জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। তারা এলাকায় নেই, সম্ভবত ঢাকাতে অবস্থান করছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, স্বামী ইউসুফ প্রামাণিক বাহরাইন দেশে চাকরি করার ফাঁকে স্ত্রী চম্পা খাতুন তার আপন খালাতো ভাই শেখ রুবেলের সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। প্রায় আড়াই মাস আগে স্বামী ইউসুফ প্রামাণিক ছুটিতে বাড়ি এসে বিষয়টি জানতে পারেন এবং স্ত্রীকে কড়া শাসনের মধ্যে রাখেন।

গত ১৫ জুন গভীর রাতে স্ত্রী চম্পা খাতুন হঠাৎ বিছানা থেকে উঠে ঘরের দরজা খুলে দেন। এ সময় পরকীয়া প্রেমিক শেখ রুবেল হাতে ধারালো ছুরি নিয়ে ঘরে ঢুকে বাম হাত দিয়ে ইউসুফের মুখ চেপে ধরে গলা বরাবর আঘাত করে। কিন্তু ইউসুফ টের পেয়ে গেলে উভয়ের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়।

ধস্তাধস্তির মধ্যে দ্বিতীয় দফায় ইউসুফ প্রামাণিকের গলাকাটার জন্য আঘাত করে রুবেল। এতে তার মুখের নিচ অংশসহ গলার একাংশ গুরুতর জখম হয়। এ সময় ইউসুফের চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এলে রুবেল পালিয়ে যায়।

সূত্র: যুগান্তর
এমএ/ ০০:০৪/ ১০ জুলাই

ফরিদপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে