Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯ , ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.9/5 (24 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-০৭-২০১৯

এক ছোবলেই নিঃশেষ ৮০ হাজার মানুষ!

এক ছোবলেই নিঃশেষ ৮০ হাজার মানুষ!

ঢাকা, ০৭ জুলাই- আমাদের দেশে প্রতি বছর অনেক মানুষ সাপের কামড়ে মারা যায়। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বিষধর এ সরীসৃপ প্রাণীটির দংশনে মানুষের প্রাণহানি ঘটলেও দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতে এ সংখ্যা অনেক বেশি। বিশেষ করে ভারতে সাপের কামড়ে মৃত্যুর হার বেশি।

এসব দেশের গ্রামীণ অঞ্চলে, যেখানে চিকিৎসা সুবিধা শহরাঞ্চলের তুলনায় অপ্রতুল সেখানে সাপের কামড়ে বেশি মানুষ মারা যায়। বিশ্বের মধ্যে দক্ষিণ এশিয়া, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও সাহারা-নিম্ন আফ্রিকায় সবচেয়ে বেশি পরিমাণ সর্পদংশনের প্রতিবেদন পাওয়া যায়। এছাড়া নিওট্রপিক, বিষুবীয়, এবং নাতিশীতোষ্ণ অঞ্চলগুলোতেও প্রচুর পরিমাণ সর্পদংশনের ঘটনা ঘটে থাকে।

উন্নত দেশে এ সংখ্যা অনেক কম। আবার এমন দেশ আছে, যেখানে সাপের কামড়ে কোনো মানুষ মারা যায় না। সব মিলিয়ে বিষধর সাপ রীতিমতো ভয়ের কারণ৷প্রতি বছর হাজারে ১০ জন মানুষ সর্পদংশনের কবলে পড়ে প্রাণ হারান।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) জানিয়েছে, সাপের কামড়ে আফ্রিকা, দক্ষিণ এবং দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ায় বেশি মৃত্যুর কারণ, চিকিৎসা পর্যাপ্ত নয়৷ তার সঙ্গে রয়েছে কুসংস্কার৷ এই কারণে ৮০ শতাংশ ছোবল খাওয়া ব্যক্তি ভরসা করেন ঝাড়ফুঁক ও ওঝার ওপরেই৷ সেই কারণে বাড়ছে মৃত্যু৷

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, সাপ খুবই ভীতু প্রাণী৷ ভয় থেকেই সে কামড়াতে আসে৷ উন্নয়নশীল দেশগুলিতে এই ধরণের মৃত্যুর সংখ্যা বছরে ৮০ হাজার থেকে ১ লাখের মতো৷

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রতি বছর ১ লাখ ৮০ হাজার থেকে ২ লাখ ৭০ হাজারের মতো মানুষ সাপের কামড় খেয়ে থাকেন৷ এর মধ্যে ৮০ হাজার থেকে ১ লাখ ৩৮ হাজার জনের মৃত্যু হয়। তবে এই পরিসংখ্যানও ঠিক নয়৷ সঠিক হিসেবে এই সংখ্যা অনেক বেশি বলে মনে করছে বিশ্ব সংস্থাটি।

সঠিক চিকিৎসা ও বিষ প্রতিষেধক বা অ্যান্টিভেনামের অভাব থাকায় উন্নয়নশীল দেশগুলোতে সাপের কামড়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেশি৷ আর এজন্য ২০৩০ পর্যন্ত পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে ‘হু’৷ এই পরিকল্পনার প্রধান লক্ষ্য, অ্যান্টিভেনাম ও চিকিৎসার ব্যবস্থা বাড়িয়ে সাপের কামড়ে মৃত্যুর হার কমিয়ে আনা।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ভারত, বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলি ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে সাপের ছোবলে মৃত্যুর হার উদ্বিগ্নজনক৷ ২০০৫ সালে ভারতে সাপের কামড়ে প্রায় ৪৫ হাজার ৯০০ জনের মৃত্যু হয়েছিল৷ দেশটির সরকারি হিসাবের চেয়ে এ সংখ্যা ৩০ গুণ বেশি৷

অন্যদিকে আমেরিকা ও ইউরোপে সাপের কামড়ে নিহতের সংখ্যা কম৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিবছর মাত্র ৫ জনের মৃত্যু হয়৷ ইউরোপের অনেক দেশে সাপের কামড়ে মৃত্যু হয়ই না বললে চলে৷

বিশেষজ্ঞরা সর্পদংশনের ঝুঁকি কমাতে বিশেষ ধরণের জুতা ও সাপের প্রাদুর্ভাব আছে এমন অঞ্চল এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেন।

সূত্র: যুগান্তর
এমএ/ ১১:০০/ ০৭ জুলাই

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে