Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ , ২ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (15 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-০৪-২০১৯

রং নাম্বারের সেই শ্রাবন্তীর জন্মদিন আজ

রং নাম্বারের সেই শ্রাবন্তীর জন্মদিন আজ

ঢাকা, ০৪ জুলাই- শ্রাবন্তীর কথা মনে আছে! একসময়ে ছোটপর্দায় দাঁপিয়ে বেড়িয়েছেন। যারা পুরো নাম ইপশিতা শবনম শ্রাবন্তী। ‘রং নাম্বার’ এবং ‘ব্যাচেলর’ সিনেমার মাধ্যমে বেশ সাড়া জাগিয়েছিলেন তিনি। তবে অত্যন্ত জনপ্রিয় হওয়ার পরও হঠাৎ অভিনয় থেকে দূরে সরে যান এই অভিনেত্রী। আজ (৪ এপ্রিল) সেই জনপ্রিয় অভিনেত্রীর জন্মদিন।

দেড় দশক আগে শ্রাবন্তী ছিলেন টেলিভিশন মিডিয়ার জনপ্রিয় মুখ। মডেলিং, নাটক, বিজ্ঞাপন সবখানেই তিনি দ্যুতি ছড়িয়েছিলেন। কিন্তু ২০১০ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর খোরশেদ আলমের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার পর থেকেই পর্দায় শ্রাবন্তীকে আর নিয়মিত পাওয়া যায়নি।

বর্তমানে শ্রাবন্তী আমেরিকায় দুই মেয়ে রাবিয়া ও আরিশাকে নিয়ে বসবাস করছেন। অভিনয় থেকে অনেক দিন দূরে সরে থাকার পরও তাকে ভুলে যায়নি তার সহকর্মী ও ভক্তরা। অনেকেই সেই পুরোনো দিনের নাটক সিনেমার ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন শ্রাবন্তীকে। দেশে বিদেশের পক্ষ থেকেও রইলো তার জন্মদিনের শুভেচ্ছা।

দেখা গেছে পর্দায় মূলত শাহেদ ও জাহিদ হাসানের সঙ্গে শ্রাবন্তীর প্রতিষ্ঠিত জুটি গড়ে উঠলেও রিয়াজের সঙ্গে তিনি অধিক জনপ্রিয়তা পান। সেই জনপ্রিয়তার শুরু হুমায়ূন আহমেদের রচনা ও আবুল হায়াতের পরিচালনায় জোছনার ফুল নাটক দিয়ে। তারপর রিয়াজ ও শ্রাবন্তীকে দেখা গেছে বেশ কিছু খণ্ড নাটকেও। শ্রাবন্তী সাইফুল ইসলাম মাননু, চয়নিকা চৌধুরী, জাহিদ হাসান, আবুল হায়াতসহ দেশের প্রায় নামি দামি সব নির্মাতার সঙ্গে কাজ করেছেন।

দুঃখের বিষয় হলো যেই সংসারের জন্য অভিনয় থেকে দূরে সরে গেছেন। সেই সংসার নিয়ে অনেক ঘটনা ঘটে গেছে। গেল বছর ৭ মে তাকে তালাকের নোটিশ পাঠান তার স্বামী মোহাম্মদ খোরশেদ আলম। এরপর ২৫ জুন দুই মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফেরেন। সেই সময় সংসার বাঁচাতে দেশে ছুটে আসেন শ্রাবন্তী।

১২৪ দিন বাংলাদেশে অবস্থান করার পর হতাস হয়েই এমিরেটস এয়ারলাইনসের একটি উড়োজাহাজে আবারও নিউইয়র্কে ফিরে যান শ্রাবন্তী। শ্রাবন্তীকে মোহাম্মদ খোরশেদ আলম যে তালাকের নোটিশ পাঠিয়েছিলেন, ঢাকার পারিবারিক আদালতের বিচারক দ্বিতীয় অতিরিক্ত সহকারী জজ ইশরাত জাহান তার স্থগিতাদেশ দিয়েছিলেন।

বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশনে যাওয়ার আগে চয়নিকা চৌধুরীকে নিজের ব্যাপারে শ্রাবন্তী বলেছিলেন, ‘আমার সব ভালোবাসা আলমের জন্য। আমি অপেক্ষা করব। এখন আমাকে লম্বা পথ পাড়ি দিতে হবে। আমাকে দুই মেয়ের কথা ভাবতে হবে।’ পরে আর এ বিষয় মুখ খোলেননি শ্রাবন্তী।

আর/০৮:১৪/০৪ জুলাই

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে