Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯ , ৭ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (15 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-০৩-২০১৯

ক্রসফায়ারের প্রতি সমর্থন অবশ্যই উদ্বেগের: টিআইবি

সায়েম সাবু


ক্রসফায়ারের প্রতি সমর্থন অবশ্যই উদ্বেগের: টিআইবি

ঢাকা, ০৩ জুলাই- বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাব্বির হোসেন ওরফে নয়ন বন্ড নিহতের ঘটনায় ফের আলোচনায় ‘ক্রসফায়ার’। এ ঘটনার পক্ষ-বিপক্ষ নিয়ে মতামত প্রকাশ পাচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও।

ক্রসফায়ার প্রসঙ্গ নিয়ে মুখোমুখি হন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ- টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান। এ বিশ্লেষকের মতে, ‘বিনা বিচারে হত্যাকাণ্ড সমাজ, রাষ্ট্রে শান্তি বয়ে আনতে পারে না। বরং ক্রসফায়ারের প্রতি সমর্থন মানে বিচার ব্যবস্থার ওপর মানুষের অনাস্থা প্রকাশ পাওয়া।‘ সাক্ষাৎকার নিয়েছেন সায়েম সাবু।

প্রশ্ন : ফের ক্রসফায়ার নিয়ে আলোচনা। বরগুনার যুবক রিফাতের খুনি নয়ন বন্ড ক্রসফায়ারে মারা গেলেন। এ নিয়েও মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। আপনি কীভাবে পর্যবেক্ষণ করছেন?

ইফতেখারুজ্জামান : ক্রসফায়ারের সংস্কৃতি আমরা বিএনপি ও আওয়ামী লীগের সময় তীব্রভাবে লক্ষ্য করলাম। ক্রসফায়ারের নামে বিচারহীনতার সংস্কৃতি রাষ্ট্রীয়ভাবে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেয়ার প্রয়াস আমরা এখন দেখতে পাচ্ছি।

এর দুটি নেতিবাচক দিক আছে। প্রথমত, অপরাধী ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত হলেন। দ্বিতীয়ত, অপরাধীর সঙ্গে জড়িত বা তার পৃষ্ঠপোষকের বিষয়টি আড়ালে থেকে গেল। অর্থাৎ ক্রসফায়ারের মাধ্যমে পৃষ্ঠপোষকদের রক্ষার প্রবণতা চলছে কি-না, তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। অপরাধের সঙ্গে জড়িত প্রভাবশালী মহলকে সুরক্ষা দিতেই ক্রসফায়ারের ঘটনা বলে অনেকে মনে করেন।

প্রশ্ন : বিচার নিয়ে তো সংশয় থাকেই…

ইফতেখারুজ্জামান : আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার দায়িত্বে থাকেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। তারা বিচারব্যবস্থা থেকে সরে এসে সোজা পথে হাঁটতে শুরু করেছেন।

ক্রসফায়ার নিয়ে সবচেয়ে উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে, এটাকে এমনভাবে প্রচার করা হয় যে সাধারণ মানুষ ক্রসফায়ারকে একধরনের বাস্তবতা বলে মেনে নিচ্ছে। এর ভয়াবহতা জেনে বা না জেনেই সমর্থন দিচ্ছেন। ক্রসফায়ারের প্রতি সমর্থন অবশ্যই উদ্বেগের।

প্রশ্ন : সময়ের বাস্তবতা তো স্বীকার করতেই হয়…

ইফতেখারুজ্জামান : বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে গণতন্ত্র, ন্যায়বিচার পাওয়ার লক্ষ্যে। অপরাধ করলেও মানুষ যেন বিচার থেকে বঞ্চিত না হয়, স্বাধীনতার মানে এখানেও। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ক্রসফায়ার নয়, বিনা বিচারে হত্যা নয়। ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করাই মুক্তিযুদ্ধের চেতনা।

সূত্র: জাগো নিউজ
এমএ/ ১১:২২/ ০৩ জুলাই

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে