Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ , ৩০ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.9/5 (23 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-০৩-২০১৯

যে কারণে শ্রীঘরে কণ্ঠশিল্পী সালমার স্বামী

যে কারণে শ্রীঘরে কণ্ঠশিল্পী সালমার স্বামী


ঢাকা, ৩ জুলাই - মৌসুমী আক্তার সালমা দেশের জনপ্রিয় একজন কণ্ঠশিল্পী। ২০১১ সালে এই লালন কন্যা মৌসুমী আক্তার সালমার সঙ্গে শিবলী সাদিকের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল। এরপর ২০১৬ শিবলী সাদিকের সঙ্গে সালমার বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। গত বছর ৩১ ডিসেম্বর সালমা বিয়ে করেন সানাউল্লাহ নুরে সাগরের সঙ্গে। তিনি পেশায় একজন আইনজীবী। বিয়ের পর সাগর গত বছরের (২০১৮) সেপ্টেম্বরে লন্ডনে গেছেন। নতুন খবর হচ্ছে, সালমার স্বামী সানাউল্লাহ নূরী সাগরকে কক্সবাজার জেলা কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। ৩ জুলাই (বুধবার) সকালে আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে জামিন নামঞ্জুর করে এই নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। কক্সবাজার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এ ইতোপূর্বে দায়ের হওয়া ওই মামলায় বুধবার হাজিরা দিতে আদালতে উপস্থিত হন সানাউল্লাহ নূরী সাগর। এ সময় তার আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। কিন্তু শুনানী শেষে বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।


এর আগে গত বছরের নভেম্বরে কক্সবাজার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এ মামলা দায়ের করেন সাগরের প্রথম স্ত্রী তাসনিয়া মুনিয়াত ওরফে পুষ্মীর মা দিলারা খানম, যার মামলা নম্বর-২৫৪, ধারা-নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন, ২০০০ এর ১১ (গ), ১১(গ)/৩০ ধারা। এ মামলায় সালমার স্বামী সানাউল্লাহ নূরী ওরফে সাগর ও তার বাবা-মা কে আসামি করা হয়েছে। মৌসুমী আক্তার সালমা জানিয়েছিলেন, ‘আমি আমার স্বামীকে নিয়ে অনেক ভালো আছি। আমার আগের একটা অতিত ছিল সবাই জানেন। আমি যখন ২য় বার বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সেখানে আমার পরিবারের সবাই দেখাশুনা করেই বিয়েটা হয়েছে। সংসার ভাঙার প্রশ্নেই উঠেনা। এমন খবরে আমার হাসি পাচ্ছে।’ তিনি বলেন, ‘সাগরের আগের বিয়ের ডির্ভোস পেপার দেখেছি। তাদের ডির্ভোস হয়েছে গত বছরই। তাহলে আবার স্ত্রীর দাবি করে মামলা করে কি ভাবে? নারী নির্যাতন হয় কি করে? এটা আমি মনে করি আমাদের ইজেমটাকে নষ্ট করার জন্য এমন করছে তারা। যেহেতু আমার স্বামী দেশের বাহিরে। সে ফিরে আসলেই সমাধান ঘটবে। আর যেহেতু এমন খবরে আমার মানহানি হচ্ছে, আমি যতদ্রুত সম্ভব তাদের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করবো।’ সালমা আরও বলেন, ‘আমার শশুরের সাথে আমি কথা বলছি সব সময়। তারা বলছেন এমন বানোয়াট খবর। আমি স্থানীয় থানায় কথা বলেছি। ওসি সাহেব বলেছেন সাগরের নামে কোন গ্রেফতারি পরোয়ানা নেই। তাহলে কেন এই মিথ্যা হয়রানি করা হচ্ছে আমাদের।’


সাগর লন্ডন থেকে সালমার মাধ্যমে বলেছিলেন, ‘আমি খবরটি দেখেই সামলাকে কল করেছি। আমরা দু’জন হাসাহাসি করেছি। যেহেতু আমি বাহিরে রয়েছি। কিছু দিনের মধ্যেই আমি ফিরবো। সব কিছু পরিস্কার হয়ে যাবে।’ সাগরের সাবেক স্ত্রীর অভিযোগে যা ছিল:- কক্সবাজার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব‍্যুনাল-১ এই মামলা দায়ের করেছেন সাগরের প্রথম স্ত্রী পুষ্মীর মা দিলারা খানম। মামলা নম্বর-২৫৪, ধারা-নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন, ২০০০ এর ১১ (গ), ১১(গ)/৩০ ধারা। এ মামলায় সালমার দ্বিতীয় স্বামী সানাউল্লাহ নূরে ওরফে সাগর ও তার বাবা-মা কে আসামি করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের জন্য ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট থানায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা পাঠিয়েছেন কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ এ.এইচ.এম. মাহমুদুর রহমান। বাদি তার আর্জিতে উল্লেখ করেন, ২০১৪ সালের ৩ জুন সানাউল্লাহ নূরী সাগরের সঙ্গে তার কন্যা তাসনিয়া মুনিয়াত (পুষ্মী)’র সঙ্গে ২০ লাখ টাকা কাবিনমূল্যে বিয়ে হয়। ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির ‘ল’ এর ছাত্রী তাসনিয়া মুনিয়াত (পুষ্মী) কে বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন ভাবে যৌতুকের জন্য সে চাপ দিতে থাকে এবং শারীরিক নির্যাতন করতে থাকে। তার মা দিলারা খানম তিন কিস্তিতে ১০ লাখ টাকা প্রদান করেন। সে টাকা দিয়ে সানাউল্লাহ নূরী সাগর লন্ডনে বারএট ‘ল’ পড়ার জন্য ভর্তি হন।

 

এন এইচ, ৩ জুলাই.

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে