Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৯ , ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (20 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-০২-২০১৯

ম্যাচের আগে নির্ঘুম রাত কাটছে ব্রাজিল কোচের!  

ম্যাচের আগে নির্ঘুম রাত কাটছে ব্রাজিল কোচের!

 

বুধবার ভোর সাড়ে ছয়টায় এস্তাদিও মিনেইরাওতে কোপা আমেরিকার প্রথম সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। বাংলাদেশের কোনো চ্যানেলে এ খেলা সরাসরি দেখানো হবে না। বিভিন্ন স্ট্রিমিং সাইটই ভরসা ভক্তদের জন্য।

কোপা আমেরিকার সেমিফাইনাল আবারও মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দিয়েছে দু দলকে। ২০০৭ সালের পর কোনো প্রতিযোগিতার নকআউট পর্বে প্রথমবার মুখোমুখি হচ্ছে দু দল। স্বাভাবিকভাবেই ম্যাচটি নিয়ে উত্তেজনার কমতি নেই দুই দেশের সমর্থকদের মধ্যে। তবে শুধু সমর্থক নয়, উত্তেজনা ভর করেছে ব্রাজিল কোচ তিতের মধ্যেও। আর্জেন্টিনার বিপক্ষে মহারণের আগে তিনি না কি ঘুমাতেই পারছেন না!

এমন না যে এই প্রথমবার আর্জেন্টিনার মুখোমুখি হচ্ছেন তিতে। এর আগেও তিনবার আলবিসেলেস্তেদের মোকাবিলা করেছেন, জিতে ফিরেছেন দুটি ম্যাচেই। তবুও এ ম্যাচ নিয়ে তাঁর উত্তেজনায় কোনো কমতি নেই। ম্যাচের আগে মিডিয়া কনফারেন্সে তিতে নিজেই জানালেন সে কথা, ‘ম্যাচ নিয়ে আমি অনেক কিছু ভাবছি। গতকাল ঘুমাতে পারিনি, আজও (ম্যাচের আগের রাতে) ঘুমাতে পারব না। রাত ৩.১৫তে ঘুম ভেঙে গেছে, এরপর থেকেই ম্যাচ নিয়ে চিন্তা শুরু করে দিয়েছি। আমার নোট নেওয়ার অভ্যাস আছে, সে রাতেও তাই করেছি।’

‘সুপার ক্লাসিকো’র উত্তেজনা যে বাকিদের মতো তাঁকেও ছুঁয়ে যাচ্ছে, সেটিও বোঝাতে চাইলেন ৫৮ বছর বয়সী তিতে, ‘গোপন করব না, আমি কাগজে কলমে এক পরিকল্পনা করছি, আর খেলোয়াড়দের গিয়ে আরেকটা বোঝাচ্ছি। আমিও তো মানুষ না কি!’

দায়িত্ব নেওয়ার পর তিতে প্রথমবার আর্জেন্টিনার মুখোমুখি হয়েছিলেন ২০১৬ সালের নভেম্বরে। রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের সে ম্যাচে ৩-০ গোলে জিতেছিল ব্রাজিল। তবে তিতের দাবি, আড়াই বছর আগের সে ম্যাচ আগামীকালের ম্যাচে কোনো প্রভাব ফেলবে না, ‘ওই জয় এখন আমাদের কোনো সুবিধা দেবে না। গুরুত্বপূর্ণ হলো এখনকার সময়।’

তিতের এই নির্ঘুম রাত কাটানো নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনিকেও। উত্তরে বেশ এক চোট রসিকতাই করেছেন স্কালোনি, ‘তাঁর নিজের দেশ, নিজের মানুষ, তাও ঘুমাতে পারছে না! আশা করছি তাঁর এই নির্ঘুম রাত কাটানো আমাদের ফাইনালে যাওয়ার সুযোগ করে দেবে।’

এরপরই মজা ছেড়ে ‘সিরিয়াস’ হয়েছেন স্কালোনি। ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচ বলে অতিরিক্ত কোনো চাপ অনুভব করছে না তাঁর দল, এমনটাই দাবি ৪১ বছর বয়সী আর্জেন্টাইন কোচের, ‘ব্রাজিল না হয়ে অন্য কোনো দলের বিপক্ষে সেমিফাইনাল খেলতে হলেও আমাদের পরিস্থিতিটা একই রকম থাকত। আমার মনে হয় না ব্রাজিলকে হারালে আমরা আলাদা কোনো পুরস্কার পাব।’

এবারের কোপার সবচেয়ে বড় ফেবারিট ব্রাজিল, সেটি সবাই মেনে নিচ্ছেন। তবে ম্যাচের আগেই আর্জেন্টাইন সমর্থকদের নিরাশ হতে মানা করছেন স্কালোনি, ‘আর্জেন্টাইন সমর্থকেরা শান্ত থাকতে পারেন। দেশের মানুষকে গর্বিত করার জন্যই আমরা এই ম্যাচে মাঠে নামব।’

সূত্র : প্রথম আলো

এন এইচ, ২ জুলাই.

ফুটবল

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে