Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯ , ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (100 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-১৬-২০১৩

মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে দৃশ্যমান করতে জনকল্যাণে আরো বেশি সক্রিয় হতে হবে : রাষ্ট্রপতি


	মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে দৃশ্যমান করতে জনকল্যাণে আরো বেশি সক্রিয় হতে হবে : রাষ্ট্রপতি

কিশোরগঞ্জ, ১৫ সেপ্টেম্বর- জেলা আইনজীবী সমিতি কর্তৃক আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আজ রবিবার দুপুরে রাষ্ট্রপতি এডভোকেট আবদুল হামিদ বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে দৃশ্যমান করতে হলে জনকল্যাণে আরো বেশি সক্রিয় হতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা শুধু মুখে বললে হবে না, চেতনাকে দৃশ্যমান করতে হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। তিনি সবাইকে দেশপ্রেমের দৃপ্ত চেতনায় উদ্বুদ্ধ হওয়ার এবং সুশাসন প্রতিষ্ঠার আহবান জানান। আর এ কাজে আইনজীবীদের বলিষ্ঠ ভূমিকা নিতে হবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন। আজ রবিবার বেলা সাড়ে ১২টায় জজ আদালত চত্বরে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট শাহ আজিজুল হকের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মানপত্র পাঠ করেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শহীদুল আলম। অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতিকে ফুলের তোড়া দিয়ে সম্মান জানান জেলা ও দায়রা জজ আ ম মো. সাঈদ এবং আইনজীবী সমিতির কর্মকর্তাবৃন্দ। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের নামে নতুন আইনজীবী ভবনের নামকরণ করা হয়েছে বলেও আইনজীবী সমিতির কর্মকর্তারা জানান।
প্রসঙ্গত রাষ্ট্রপতি বলেন, এ বিচারাঙ্গন ছিল আমার প্রাথমিক কর্মক্ষেত্র। এখান থেকেই সবার সহযোগিতায় নিজেকে সমৃদ্ধ করেছি। রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন, আইনজীবীরা নির্যাতিত নিপীড়িত ও অধিকার বঞ্চিত মানুষকে সুলভে আইনী সহায়তা প্রদান করবেন।
এর আগে রাষ্ট্রপতিকে তার প্রিয় শিক্ষাঙ্গন সরকারি গুরুদয়াল কলেজের পক্ষ থেকেও সংবর্ধনা দেয়া হয়। অধ্যক্ষ মো. আরজ আলীর সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দাবিদাওয়ার প্রেক্ষিতে রাষ্ট্রপতি বলেন, আমি স্পিকার থাকার সময় কলেজের বেশ কিছু সমস্যার সমাধান করেছি। আরো যেসব সমস্যা রয়েছে, সেগুলিও সমাধানে ভূমিকা রাখার চেষ্টা করবো। তিনি সবাইকে আশ্বস্ত করে বলেন, কিশোরগঞ্জে একটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে তিনি সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলবেন। তিনি শিক্ষার্থীদের মনযোগ দিয়ে লেখাপড়া করে নিজেদেরকে দেশের নেতৃত্ব দেয়ার মত যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার আহবান জানান। অনুষ্ঠানে মানপত্র পাঠ করেন কলেজের সহযোগি অধ্যাপিকা মাহবুবা সুলতানা। বক্তব্য রাখেন শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক মিজানুর রহমান ও উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্র্র্র্র্র্র্র্র্র্র্র্র্র্ষের ছাত্রী ফাতেমা জহুরা প্রীতি। কলেজের পক্ষ থেকে অধ্যক্ষ আরজ আলী রাষ্ট্রপতির হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন। রাষ্ট্রাপতিও তার পক্ষ থেকে অধ্যক্ষ আরজ আলীর হাতে একটি ক্রেস্ট তুলে দেন।

কিশোরগঞ্জ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে