Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৯ , ৪ শ্রাবণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৬-১৫-২০১৯

পশ্চিমবঙ্গে ৯৭৩ চিকিৎসকের পদত্যাগ

পশ্চিমবঙ্গে ৯৭৩ চিকিৎসকের পদত্যাগ

কলকাতা, ১৫ জুন- পশ্চিমবঙ্গে চিকিৎসা পরিষেবা জটিল হচ্ছে। কলকাতার নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (এনআরএস) গত ১০ জুন এক রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে জুনিয়র চিকিৎসকদের মারধোরের ঘটনায় পরিস্থিতি ক্রমশ জটিল থেকে জটিলতর হচ্ছে। ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গে বিভিন্ন হাসপাতালের ৯৭৩ জন চিকিৎসক দায়িত্ব থেকে ইস্তফাপত্র জমা দিয়েছেন।

পশ্চিমবঙ্গের জুনিয়র চিকিৎসকদের দাবি, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এনআরএস হাসপাতালে এসে তার বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইতে হবে।

উল্লেখ্য, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, এনআরএসে বহিরাগতরা ঝামেলা পাকাচ্ছে এবং চিকিৎসকেরা পদবী দেখে চিকিৎসা করান। মূলত মুখ্যমন্ত্রী এই বক্তব্যের নিরিখে তার ক্ষমা চাইতে হবে বলে যেমন অনড় রয়েছেন জুনিয়র চিকিতসকেরা, তেমনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও অনড় তার নিজের অবস্থানে। এই পরিস্থিতিতে কবে সমাধান সুত্র মিলবে তার কোনও গ্যারান্টি নেই।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গে জুনিয়র চিকিৎসকদের এই আন্দোলনে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে কার্যত গোটা দেশ। দিল্লির এইমসের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী ৪৮ ঘন্টায় সমাধান সুত্র না বেরিয়ে এলে অনির্দিষ্টকালের ধর্নায় বসবেন চিকিৎসকেরা।

এদিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় কথা বলতে যান রাজ্যের প্রবীণ চিকিৎসকদের একাংশ। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য প্রশাসনিক ভবন নবান্নে গিয়ে তারা বিষয়টির সমাধান সুত্র বের করার চেষ্টা করলেও নিজের অবস্থানে অনড় থাকেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

অন্যদিকে, জুনিয়র চিকিতসকেরাও তাদের অবস্থানে অনড় থেকে জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যাকে তার বক্তব্যের কারণে নিঃশর্ত ক্ষমা না চাইলে আন্দোলন থেকে পিছু হঠবেন না তারা। এখনও পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের কলকাতাসহ বিভিন্ন জেলার হাসপাতালে চিকিৎসকদের ইস্তফার সংখ্যা ৯৭৩ জনে পৌঁছে গিয়েছে। ফলে বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য পরিষেবার সংকট।

আর/০৮:১৪/১৫ জুন

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে