Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০১৯ , ৪ আষাঢ় ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৫-২৭-২০১৯

ক্রেতা সেজে মার্কেটে ঢুকলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, এরপর...

ক্রেতা সেজে মার্কেটে ঢুকলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, এরপর...

ঝালকাঠি, ২৭ মে- তীব্র গরম উপেক্ষা করে জমে উঠেছে ঈদের বাজার। জমে উঠেছে কেনাকাটাও। ঈদের এখনো বেশ কিছুদিন বাকি রয়েছে, কিন্তু ক্রেতারা বসে নেই। আর ক্রেতাদের সুযোগ-সুবিধার কথা মাথায় রেখে এরই মধ্যে ক্রেতা সেজে ঈদের বাজারে ঢুকেছেন ঝালকাঠির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

জানা যায়, ঈদ মার্কেটে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এবং জিনিসপত্রের দাম দেখতে ক্রেতা সেজে বাজারে প্রবেশ করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুজর মো. ইজাজুল হক। ক্রেতাদের কাছে অতিরিক্ত দাম রাখা হয় কিনা সেটি দেখেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুজর মো. ইজাজুল হক বলেন, মার্কেটে বিভিন্ন বয়সের পুরুষ ও নারীরা কেনাকাটা করতে আসেন। এ সময় একশ্রেণির কিশোরদের আগমন ঘটে তরুণীদের উত্ত্যক্ত করতে। পাশাপাশি ক্রেতাদের ভিড়ের সুযোগে ব্যবসায়ীরা অতিরিক্ত দাম রাখেন। এ ধরনের কাজ থেকে পরিবেশ পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে মোবাইল কোর্ট টহল জোরদার করা হয়েছে। ব্যবসায়ীরা যাতে ইচ্ছামতো দাম না রাখেন সেজন্য সচেতনতামূলক প্রচারণা কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে।

পাশাপাশি ঈদের বাজারে সুষ্ঠু, সুশৃঙ্খল পরিবেশে বজায় রাখার লক্ষ্যে ঝালকাঠিতে প্রস্তুতি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে রোববার (২৬ মে) সকালে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে, ঝালকাঠি শহরের কুমারপট্টি, মনোহরিপট্টি, কাপুড়িয়াপট্টি, কাঠপট্টির গলি, দুর্গাপ্রসাদ রোড, তামাকপট্টি, জয়নাল মার্কেট, খান সুপার মার্কেট ও বিপণি বিতানগুলোতে বেড়েছে ক্রেতাদের ভিড়।

পোশাক, কসমেটিকস এবং জুতার দোকানগুলোতেও বেচা-বিক্রি বাড়ছে সমান তালে। বিক্রেতারা বলছেন, ঈদ যতই ঘনিয়ে আসছে, বেচা-কেনা ততই বাড়ছে।

শহরের কাপুড়িয়াপট্টির লোকনাথ বস্ত্র বিতানের মালিক পবিত্র হালদার বলেন, এবারও নারীদের পছন্দের চাহিদায় ভারতীয় সিরিয়ালের নাম অনুসারে বেশ কিছু পোশাক বাজারে এসেছে। তবে তীব্র গরমের কারণে টিস্যু কাপড় এবং পাতলা পোশাকের চাহিদা বেশি। এছাড়া গাউন, কোটি, ওয়ান পিসের চাহিদা রয়েছে।

এবার ঈদে যুবকরা পাঞ্জাবির পাশাপাশি জিন্স প্যান্টের প্রতি ঝুঁকছেন বেশি। মনোহরীপট্টির মার্কেটে কেনাকাটা করতে আসা লিজা আক্তার বলেন, দাম বেশি হলেও পোশাকগুলো মানসম্পন্ন। ঈদ যতো এগিয়ে আসছে, বাজারে ভিড় ততো বাড়ছে। তাই আগে থেকেই কেনাকাটা সেরে রাখলাম।

ঢাকা, ২৭ মে- তীব্র গরম উপেক্ষা করে জমে উঠেছে ঈদের বাজার। জমে উঠেছে কেনাকাটাও। ঈদের এখনো বেশ কিছুদিন বাকি রয়েছে, কিন্তু ক্রেতারা বসে নেই। আর ক্রেতাদের সুযোগ-সুবিধার কথা মাথায় রেখে এরই মধ্যে ক্রেতা সেজে ঈদের বাজারে ঢুকেছেন ঝালকাঠির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

জানা যায়, ঈদ মার্কেটে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এবং জিনিসপত্রের দাম দেখতে ক্রেতা সেজে বাজারে প্রবেশ করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুজর মো. ইজাজুল হক। ক্রেতাদের কাছে অতিরিক্ত দাম রাখা হয় কিনা সেটি দেখেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুজর মো. ইজাজুল হক বলেন, মার্কেটে বিভিন্ন বয়সের পুরুষ ও নারীরা কেনাকাটা করতে আসেন। এ সময় একশ্রেণির কিশোরদের আগমন ঘটে তরুণীদের উত্ত্যক্ত করতে। পাশাপাশি ক্রেতাদের ভিড়ের সুযোগে ব্যবসায়ীরা অতিরিক্ত দাম রাখেন। এ ধরনের কাজ থেকে পরিবেশ পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে মোবাইল কোর্ট টহল জোরদার করা হয়েছে। ব্যবসায়ীরা যাতে ইচ্ছামতো দাম না রাখেন সেজন্য সচেতনতামূলক প্রচারণা কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে।

পাশাপাশি ঈদের বাজারে সুষ্ঠু, সুশৃঙ্খল পরিবেশে বজায় রাখার লক্ষ্যে ঝালকাঠিতে প্রস্তুতি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে রোববার (২৬ মে) সকালে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে, ঝালকাঠি শহরের কুমারপট্টি, মনোহরিপট্টি, কাপুড়িয়াপট্টি, কাঠপট্টির গলি, দুর্গাপ্রসাদ রোড, তামাকপট্টি, জয়নাল মার্কেট, খান সুপার মার্কেট ও বিপণি বিতানগুলোতে বেড়েছে ক্রেতাদের ভিড়।

পোশাক, কসমেটিকস এবং জুতার দোকানগুলোতেও বেচা-বিক্রি বাড়ছে সমান তালে। বিক্রেতারা বলছেন, ঈদ যতই ঘনিয়ে আসছে, বেচা-কেনা ততই বাড়ছে।

শহরের কাপুড়িয়াপট্টির লোকনাথ বস্ত্র বিতানের মালিক পবিত্র হালদার বলেন, এবারও নারীদের পছন্দের চাহিদায় ভারতীয় সিরিয়ালের নাম অনুসারে বেশ কিছু পোশাক বাজারে এসেছে। তবে তীব্র গরমের কারণে টিস্যু কাপড় এবং পাতলা পোশাকের চাহিদা বেশি। এছাড়া গাউন, কোটি, ওয়ান পিসের চাহিদা রয়েছে।

এবার ঈদে যুবকরা পাঞ্জাবির পাশাপাশি জিন্স প্যান্টের প্রতি ঝুঁকছেন বেশি। মনোহরীপট্টির মার্কেটে কেনাকাটা করতে আসা লিজা আক্তার বলেন, দাম বেশি হলেও পোশাকগুলো মানসম্পন্ন। ঈদ যতো এগিয়ে আসছে, বাজারে ভিড় ততো বাড়ছে। তাই আগে থেকেই কেনাকাটা সেরে রাখলাম।


সূত্র: বিডি২৪লাইভ
এনইউ / ২৭ মে

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে