Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৯ , ৮ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৫-২৬-২০১৯

ঈদে মেকআপের আগে অবশ্যই করণীয়

ঈদে মেকআপের আগে অবশ্যই করণীয়

ঈদ মানেই নতুন পোশাক, সাজ-সজ্জা। আর সাজ-সজ্জা মানেই মেকআপ। তবে মেকআপ সম্পর্কে কেউ বুঝে ব্যবহার করেন, কেউ না বুঝেই। যারা বুঝে বা জেনে করেন, তারা হয়তো অনেক কিছু মেনে চলেন। কিন্তু যারা মেকআপ সম্পর্কে তেমন ভালো জানেন না, তারা মেকআপের আগে পরে অনেক ভুল করে থাকেন। এজন্য তাদের মেকআপ কখনো তাদের মনের মতো হয় না। তাই বিশেষ করে মেকআপের আগে অবশ্যই করতে হয় কিছু কাজ। নয়তো মেকআপ আপনার মনের মতো কখনোই হবে না। সেই কাজগুলো কি কি তা নিয়ে আজকে আমাদের আয়োজন।

ভালো ব্র্যান্ডের পণ্য ব্যবহার করা :

মেকআপ করার আগে অবশ্যই ভালো ব্র্যান্ডের পণ্য ব্যবহার করবেন। দাম একটু বেশি হলেও ভালো প্রডাক্ট ব্যবহার করুন, ত্বকটা আপনার নিজের। তাই টাকার দিকে না তাকিয়ে ভালো লুক দিতে ভালো পণ্য ব্যবহার করুন।

ত্বক পরিষ্কার:

মেকআপ নেওয়ার আগে অবশ্যই ভালোভাবে ত্বক পরিষ্কার করে নিবেন। তা না হলে ত্বকে জমে থাকা ময়লা মেকআপ ঠিকমতো বসতে দেবে না। মেকআপের ভালো ফিনিশিং পাবেন না এবং ইনফেকশন হয়ে ত্বকে র‌্যাশ বা ব্রণ উঠতে পারে।

ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা :

মেকআপ করার আগে অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। কেননা ত্বক খসখসে বা শুকনা থাকলে মেকআপ বসার সম্ভবনা কম থাকে। ফলে মেকআপ অমসৃণ হয় তাড়াতাড়ি মেকআপ নষ্ট হয়ে যায়। তাই মেকআপ করার আগে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। তারপর মুল মেকআপ করুন।

ত্বকে হাত দেবেন না:

মেকআপ করার আগে কখনো মুখের ত্বকে হাত লাগাবেন না। ঘষবেন না বা মোছার চেষ্টা করবেন না। মোছার প্রয়োজন হলে ফেসিয়াল টিস্যু ব্যবহার করুন। কেননা হাত লাগালে হতের ময়লা গিয়ে ত্বকে লাগতে পারে। এতে করে মেকআপ করার পর ছোপ ছোপ দাগ দেখা যায়। মেকআপ ভালোভাবে মিশবে না।

মেকআপ প্রাইমার ব্যবহার করা:

যদি আপনার তৈলাক্ত ত্বক হয়ে থাকে, তাহলে মেকআপ করার আগে অবশ্যই মেকআপ প্রাইমার ব্যবহার করবেন। মেকআপ প্রাইমার বলতে মেকআপ করার আগে আমরা যে বেজটা নেই এটা হলো তার তার বেজ। বাজারে প্রাইমার কিনতে পাওয়া যায়। প্রাইমার ফাউন্ডেশনকে বেশিক্ষণ ধরে রাখে। মেকআপ মসৃণ হয়। ন্যাচারাল মেকআপের জন্য ভালোমানের প্রাইমার ব্যবহার করুন। শুষ্ক ত্বকের জন্যও প্রাইমার ব্যবহার করা উচিৎ।

পাউডার:

ত্বকে ফাউন্ডেশন ধরে রাখতে ভালো ও সহজ উপায় হলো পাউডার ব্যবহার করা। ট্রান্সলুসেন্ট, কমপ্যাক্ট, টু ওয়ে কেক যেকোনো লিকুইড মেকআপের স্থায়িত্ব বাড়ানোর জন্য পাউডার ব্যবহার করা প্রয়োজন। বিবি ক্রিম ফাউন্ডেশন বা কনসিলার লাগানোর পর পাউডার লাগাতে পারেন।

সেটিং স্প্রে:

সেটিং স্প্রে বর্তমানে পাশ্চাত্যে তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এটা ব্যবহারের ফলে মেকআপ ফাটে না, মলিন হয় না এবং গলে না। মেকআপ অনেকক্ষণ স্থায়ী থাকে। বেজ, লিপস্টিক, চোখের মেকআপ অনেকক্ষণ ধরে রাখার জন্য সেটিং স্প্রে ভালো ভূমিকা পালন করে।

লিপ লাইনার:

যাদের ঠোটে লিপস্টিক বেশি থাকে না, তারা লিপ লাইনার ব্যবহার করতে পারেন। আশা করি ভালো উপকার পাবেন। লিপস্টিক নেওয়ার আগে পুরো ঠোঁটে লিপলাইনার লাগিয়ে নিতে পারেন।

তবে খেয়াল রাখবেন যে কালারের লিপস্টিক লাগাবেন ওই কালারের লিপলাইনার ব্যবহার করবেন। তবে যদি ভিন্ন রঙের ইফেক্ট আপনার ঠোটে আনতে চান তাহলে তাহলে ভিন্ন কালারের লিপস্টিক ও লিপলাইনার ব্যবহার করতে পারেন।

মেকআপের আগে এমন ছোট ছোট কিছু নিয়ম মেনে চললেই আপনি পাবেন আপনার মনের মতো লুক। আর সকালে মেকআপ করলেও সারাদিন আপনি থাকতে পারবেন চিন্তা মুক্ত।

এমএ/ ০৫:১১/ ২৬ মে

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে