Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 5.0/5 (1 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৫-১৭-২০১৯

কানের লালগালিচায় বাংলাদেশের রুবাইয়াত ও মেহেদী

কানের লালগালিচায় বাংলাদেশের রুবাইয়াত ও মেহেদী

কান, ১৭ মে- বিশ্বসংগীতের কিংবদন্তি স্যার এলটন জনের বায়োপিক ‘রকেটম্যান’-এর গালা স্ক্রিনিং উপলক্ষে বসানো হয়েছে চকচকে লালগালিচা। পালে দে ফেস্তিভাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরের সামনে তারকারা তাতে পায়চারি করছেন। আলোকচিত্রীদের ক্যামেরায় শাটার পড়ছে একের পর এক।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) এমন জমকালো পরিবেশে লালগালিচায় পা রাখলেন বাংলাদেশের প্রযোজক-পরিচালক রুবাইয়াত হাসান ও পরিচালক মেহেদী হাসান। ‘লা ফেব্রিক সিনেমা’য় স্থান পেয়েছে তাদের ‘স্যান্ড সিটি’ ছবির পাণ্ডুলিপি। এর অংশ হিসেবে কানের সবচেয়ে বড় জৌলুস লালগালিচায় হাঁটার সুযোগ পেলেন তারা। সঙ্গে ছিলেন ভারতীয় নির্মাতা মীরা নায়ার। ১৯৮৮ সালে ‘সালাম বোম্বে’ ছবির সুবাদে ক্যামেরা দ’র পুরস্কার জেতেন তিনি।

গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে প্রেস বা ব্যাজ স্ক্রিনিং থাকলে লালগালিচায় হাঁটা ও ছবি তোলা যায়। কিন্তু রুবাইয়াত ও মেহেদী সেখানে পা মাড়িয়েছেন অফিসিয়াল আয়োজনে। মাইক্রোফোনে তাদের নাম উচ্চারিত হয়েছে গানের ফাঁকে। তখন রুবাইয়াত-মেহেদিসহ আমন্ত্রিত পরিচালকদের হাঁটার আগে গালিচা খালি করে উৎসবের প্রতিনিধিরা দু’পাশে গার্ড দিয়েছেন। বাংলাদেশের এই দুই নবীন চলচ্চিত্রকার ধীরে ধীরে দু’পাশের আলোকচিত্রীদের ক্যামেরায় তাকিয়েছেন। গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরের সামনে উৎসব পরিচালক থিয়েরি ফ্রেমো তাদের অভ্যর্থনা জানান।

এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় ভূমধ্যসাগরের তীরে ভিলেজ ইন্টারন্যাশনালের ১০৯ নম্বর প্যাভিলিয়নে ‘লা ফেব্রিক সিনেমা’র পার্টি অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে মীরা নায়ার বলেন, ‘স্যান্ড সিটির গল্প পড়েছি। আমার খুব ভালো লেগেছে। এতে আমি নিজেকে খুঁজে পেয়েছি। বাংলাদেশ আর ভারতের সংস্কৃতি ও জীবনযাপন প্রায় কাছাকাছি। হয়তো সেজন্যই।’

‘লা ফেব্রিক সিনেমা’ হলো ফরাসি ইনস্টিটিউট লে সিনেমাস দ্যু মন্দের একটি কর্মসূচি। এ বছর বাংলাদেশের পাশাপাশি আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, বুরকিনা ফাসো, মিসর, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, লাওস, রুয়ান্ডা ও তিউনিসিয়ার তরুণ নির্মাতাদের চলচ্চিত্র প্রকল্প এতে জায়গা করে নিয়েছে। তাদের প্রধান হিসেবে কাজ করছেন মীরা নায়ার। তিনি মেন্টর হিসেবে তরুণ পরিচালকদের সহায়তা করবেন।

গত বছর সুইজারল্যান্ডে ৭০তম লোকার্নো চলচ্চিত্র উৎসবে ‘স্যান্ড সিটি’র জন্য মেহেদী হাসান পেয়েছেন আট হাজার ইউরো মূল্যের সিএনসি অ্যাওয়ার্ড। পাশাপাশি নিজের ছবি নিয়ে কাজ করার জন্য সুইজারল্যান্ডে দুই মাস থাকার সুযোগ পান তিনি।

কামার আহমাদ সাইমনের ‘শঙ্খধ্বনি’র পর বাংলাদেশের দ্বিতীয় কোনও চলচ্চিত্রের পান্ডুলিপি ‌‌লা ফেব্রিক সিনেমায় মনোনীত হলো। খনা টকিজ থেকে ছবিটি প্রযোজনা করছেন ‘আন্ডার কনস্ট্রাকশন’-এর পরিচালক রুবাইয়াত।

লা ফেব্রিকে স্থান পাওয়া, ‘স্যান্ড সিটি’র পান্ডুলিপির আপডেট ও কানসৈকতে ব্যস্ততা প্রসঙ্গে এ প্রতিবেদকের সঙ্গে কথা বলেছেন প্রযোজক রুবাইয়াত ও পরিচালক মেহেদী। পাশাপাশি মীরা নায়ারের বক্তব্য। দেখুন ভিডিওতে:

আর/০৮:১৪/১৭ মে

ঢালিউড

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে