Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৫-১৬-২০১৯

নির্বাচনের হলফনামায় দেয়া মিমির যতো সম্পত্তি

নির্বাচনের হলফনামায় দেয়া মিমির যতো সম্পত্তি

কলকাতা, ১৬ মে- ১৯ মে ভারতের লোকসভা নির্বাচনের সপ্তম ও শেষ ধাপের লড়াই। এ ধাপে উত্তরপ্রদেশের বারানসি আসনে ভাগ্য নির্ধারণ হবে মোদির।

ষষ্ঠ ধাপের পর এবার হিমাচলপ্রদেশ, পাঞ্জাব, চণ্ডিগড়ের পাশাপাশি বিহারের ৮টি, ঝাড়খণ্ডের ৩টি, মধ্যপ্রদেশের ৮টি, উত্তরপ্রদেশের ১৩টি এবং পশ্চিমবঙ্গের ৯টি আসনে ভোট বাকি।

সপ্তম ধাপে ভাগ্য নির্ধারণ হবে টালিউড অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর। তিনি এবারের লোকসভা নির্বাচনে কলকাতার যাদবপুর তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী। প্রার্থিতা পাওয়ার পর থেকেই তিনি ও কেন্দ্রটি নিয়ে বেশ আলোচনা চলছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোতে।

এ প্রার্থীকে ঘিরে তৈরি বিতর্ক যেন থামছেই না। এবার নতুন বির্তকে জড়ালেন অভিনেত্রী মিমি। নির্বাচন কমিশনে জমা দেয়া তার হলফনামার তথ্য নিয়ে বিতর্কে মেতেছে ভারতীয়রা।

মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় সঙ্গে দেয়া হলফনামায় নিজের সম্পত্তির হিসাব দিতে গিয়ে মিমি জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে তার কাছে নগদ অর্থ রয়েছে ভারতীয় মুদ্রায় ২৫ হাজার টাকা।

আর এটি প্রকাশ হলে এ নিয়ে রসিকতা ও সমালোচনায় মেতে ওঠে যাদবপুরবাসী।

তবে অনেক ঋণ রয়েছে এই টালি তারকার। হলফনামায় মিমি লিখেছেন, ১৯ লাখ ৭৮৮ রুপির ঋণে ডুবে আছেন তিনি।

তাই বলে তার গোচ্ছিত অর্থের পরিমাণ কিন্তু কম নয়। সেখানে মিমি চক্রবর্তীর নামে ৭৩ লাখ ৩৬ হাজার ৮২৫.৩৬ রুপি ব্যাংকে গচ্ছিত দেখানো হয়েছে।

নিজের ব্যবহৃত গাড়ির কথাও হলফনামায় উল্লেখ করেছেন এই অভিনেত্রী। মিমির মালিকানায় রয়েছে দুটি গাড়ি। এই দুটি গাড়ির মূল্য জানানো হয়েছে মোট ৪২ লাখ ২৩ হাজার ২৭৩ রুপি।

মিমির কাছে গয়না রয়েছে ২৩ ভরি যার ভারতীয় বাজার দর ৮ লাখ ৮৫ হাজার ১৩ রুপি। এসব গয়নার বেশিরভাগই উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত বলে হলফনামায় জানিয়েছেন তিনি।

সব মিলিয়ে মিমির স্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ গিয়ে দাঁড়ায় ১ কোটি ১৯ লাখ ২৮ হাজার ৬৭৫ রুপি। হলফনামায় আরও যে তথ্য দেয়া হয়েছে, কোনোরকম অপরাধমূলক মামলা নেই মিমির। তার নামে কোনো জমিও নেই।

মিমির শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক লেখা হয়েছে। ২০১১ সালে আশুতোষ কলেজ থেকে স্নাতক পাশ করেছেন তিনি। প্রসঙ্গত যাদবপুর থেকে সংসদীয় যাত্রা শুরু হয়েছিল তৃণমূল সভানেত্রী মমতা ব্যানার্জির।

১৯৮৪ সালের নির্বাচনে সিপিএম প্রার্থী সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়কে পরাজিত করেন তিনি। আর এবার টালি অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী সেই যাদবপুর থেকেই মমতার হাত ধরে ভারতের সংসদে যেতে চাইছেন।

এমএ/ ০৩:৪৪/ ১৬ মে

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে