Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২০ মে, ২০১৯ , ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৫-১৬-২০১৯

তামিমের সঙ্গী কে, সৌম্য না লিটন?

তামিমের সঙ্গী কে, সৌম্য না লিটন?

৩০ মে থেকে ইংল্যান্ডে শুরু হবে আইসিসি বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসর। আর এ আসরকে ঘিরে টাইগারদের উদ্বোধনী জুটি নিয়ে চলছে নানান আলোচনা-সমালোচনা। তামিম ইকবাল আস্থা, বিশ্বাস ও ভরসার একটি নাম। ত্রিদেশীয় সিরিজে এ পর্যন্ত সেঞ্চুরি হয়েছে ৬টি। এর মধ্যে শুধু দুই দলের ওপেনাররা মিলে করেছেন ৫ সেঞ্চুরি। দুই দল? ঠিক ধরেছেন। বাংলাদেশের কোনো ওপেনার সেঞ্চুরি পাননি। দুর্দান্ত শুরু হচ্ছে, উইকেটেও বেশ সময় কাটাচ্ছেন তাঁরা, কিন্তু ‘ফিনিশ’ মানে তিন অঙ্কের দেখা পাওয়া হচ্ছে না। ষাট থেকে আশি-এর আশপাশে গিয়ে গড়বড় হচ্ছে ওপেনারদের। তবে সেঞ্চুরি না পাওয়ার এ হতাশার মধ্যেও বেশ মধুর এক সমস্যা তৈরি হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বড় প্রশ্ন ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে কিংবা বিশ্বকাপে তামিম ইকবালের ওপেনিং সতীর্থ হবেন কে?

মাথায় শুধু দুটো নাম চক্কর মারাই স্বাভাবিক। সৌম্য সরকার ও লিটন দাস। ত্রিদেশীয় সিরিজে দুজনেই রয়েছে দুর্দান্ত ফর্মে। বাংলাদেশের ক্রিকেট মহলে গুঞ্জন আছে, ওপেনিংয়ে ডানহাতি-বাঁহাতি সমন্বয় বেশি পছন্দ কোচ স্টিভ রোডসের। এ হিসাবে তামিমের সঙ্গে লিটনকেই বেশি দেখার কথা। কিন্তু এ বছর নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ওয়ানডে সিরিজের তিন ম্যাচেই লিটন ব্যর্থ হওয়ার পর সৌম্যর দ্বারস্থ হতে হয় টিম ম্যানেজমেন্টকে। আবার সবশেষ বিশ্বকাপে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে সৌম্যর।

সেখানে তামিমের সঙ্গে সৌম্যকে ওপেন করতে দেখার সম্ভাবনা বেশি। লিটন ঠিক এ জায়গায় পিছিয়ে। তাহলে হয়তো তৃতীয় ওপেনার হিসেবে; কে জানে!

বাংলাদেশের উদ্বোধনী জুটিতে বাংলাদেশের সবচেয়ে ভালো সময় গেছে ২০১৫ সালে। তখন তামিমের সঙ্গী ছিলেন সৌম্য সরকার। এরপর হঠাৎ করে হারিয়ে যান তিনি। তবে ২০১৮ সালটা ভালো কেটেছে সৌম্যর। ৬ ম্যাচে প্রায় ৪৩ গড়ে করেছেন ২৫৫ রান। একজন পিঞ্চ হিটিং ওপেনার হিসেবে সৌম্যর সীমাবদ্ধতা ফুটওয়ার্ক। এটি উতরে গেলে তাঁর ব্যাটিং নিয়ে প্রশ্ন থাকবে না কারো। গত জিম্বাবুয়ে সিরিজ থেকেই সৌম্যর ফুটওয়ার্কের উন্নতি চোখে পড়ার মতো।

আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১৪৪ রানের দুর্দান্ত এক জুটি গড়েন তামিম ও সৌম্য। এছাড়া গত বছর দুজনের আরো একটি শতরানের জুটি রয়েছে।

অপরদিকে ঘুরে দাড়ানো সামর্থ্য রয়েছে লিটন দাসের। বিশ্বকাপের মতো বড় আসরে, পরীক্ষিত পারফর্মাররাই সুযোগের দাবিদার তিনি।

সূত্র: বিডি২৪লাইভ
আর এস/ ১৬ মে

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে