Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯ , ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৫-১৫-২০১৯

বিদ্যাসাগরের ভাঙা মূর্তি হাতে মমতার গর্জন

বিদ্যাসাগরের ভাঙা মূর্তি হাতে মমতার গর্জন

কলকাতা, ১৫ মে- ওরা বাংলার হেরিটেজ, বাংলার মনীষীর গায়ে হাত দিয়েছে। আমার থেকে ভয়ঙ্কর কেউ হবে না। তোমাদের ঔদ্ধত্য খর্ব করবই।’ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তির ভাঙা অংশ হাতে নিয়ে এভাবেই গর্জে উঠেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।   

গতকাল মঙ্গলবার কলকাতায় রোড শো করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। সেসময় তৃণমূল ছাত্র পরিষদ এবং বিজেপি কর্মী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে বিদ্যাসাগর কলেজে ঢুকে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙচুর করে বিজেপির সমর্থকরা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেসময় দক্ষিণ কলকাতার বেহালায় নির্বাচনী সভা করছিলেন। সভামঞ্চে বসেই তিনি মূর্তি ভাঙার খবর জানতে পারেন।  সেসময় বক্তৃতায় তিনি বলেন, ‘বিদ্যাসাগর কলেজে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে। এত বড় লজ্জা কলকাতায় কখনও হয়নি। বিজেপি জেনে রাখ, ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে জবাব নেব।’

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে হুশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, ‘তোমার ভাগ্য ভাল, আমি এখনও ঠান্ডা আছি। দিল্লিতে তোমার ঘর দখল করতে পারি। বিজেপি অফিস নিতে আমার এক সেকেন্ড লাগে। কিন্তু আমি ছুঁই না।’

এরপর মমতা দলীয় কর্মীদের শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘উত্তেজিত হবেন না। রেগে যাবেন না। গণতান্ত্রিক ভাবে বদলা চাই।’ বিদ্যাসাগরের ছবি নিয়ে মিছিল করার কথাও বলেন তিনি। গতকাল রাতে মমতা নিজেই বিদ্যাসাগর কলেজ পরিদর্শনে যান। কলেজে ভাঙচুরের সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করেন তিনি। এরপর রাতেই নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টের প্রোফাইল পিকচার বদলে সেখানে বিদ্যাসাগরের ছবি যোগ করেন তিনি।

অন্যদিকে বিজেপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তাদের কোনো কর্মী-সমর্থক বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙচুর করেনি। বরং তৃণমূলের লোকেরাই তার রোড শোয়ে বিঘ্ন ঘটিয়েছে।

সূত্র: বাংলা ইনসাইডার
আর এস/ ১৫ মে

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে