Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ , ৫ আশ্বিন ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৫-০১-২০১৯

চবি এলামনাই এসোসিয়েশনের অভিষেক ও পূনর্মিলনী ২০১৯

চবি এলামনাই এসোসিয়েশনের অভিষেক ও পূনর্মিলনী ২০১৯

টরন্টো, ০১ মে- ২০শে এপ্রিল ২০১৯, শনিবার। বৃষ্টিস্নাত শরতের স্নিগ্ধ বিকেল।  স্থান টরোন্টস্থ চাইনিজ কালচারাল সেন্টারের বিশাল হলরুম। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশন অব কানাডা ইনক এর নবনির্বাচিত কার্যকরী কমিটির অভিষেক ও পুনর্মিলনী- ২০১৯অনুষ্ঠান।  হলরুম কানায় কানায় পূর্ন।  সবাই চট্টগ্রাম বিশ্বববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রছাত্রী , শিক্ষক শিক্ষিকা ও তাদের পরিবার পরিজন।  অভিষিক্ত হল ২৯ জনের একদল প্রাণবন্ত ও কঠোর পরিশ্রমী নেতৃত্বের।  শুরু হল আগামী দুই বছরের জন্যে তাদের আনুষ্ঠানিক  পথ চলা।  শুরু হল সংগঠনকে এগিয়ে নিয়ে যাবার দৃঢ় প্রত্যয়ের সব ব্যঞ্জনা।  

শেষ বিকেলের পড়ন্ত সূর্য।  ডুব ডুব ভাব।  এরই মধ্যে হলরুমে উপচে পড়া ভীড়। অল্পক্ষণের মধ্যে অনুষ্ঠানস্থল রূপ নেয় চাকসু মিলানায়তনে।  গল্পে - আড্ডায় মেতে উঠে সবাই।  অনেকদিন পর সবাইকে একসাথে পেয়ে আনন্দে আন্তঃহারা।  এবারের পুনর্মিলনীর ব্যাপ্তি এবং স্বতঃস্পুর্ততা এতই প্রবল ছিল যে অনেকেই এসেছেন অন্য প্রভিন্স থেকে।  শ্রদ্বেয় আলমগীর ভাই এবং  চবির প্রাক্তন শিক্ষিকা  ডঃ রেবেকা সুলতানা এসেছেন  মন্ট্রিয়েল ,কুইবেক থেকে, শ্রদ্বেয় ডঃ আজিজ ও শামীমা ভাবী  ভাই  এসেছেন নায়াগ্রা থেকে, অং দা এবং নার্গিস আপা এসেছেন অটোয়া থেকে, চবির প্রাক্তন শিক্ষক শ্রদ্বেয় ডঃ কাঞ্চন কুমার পুরোহিত এসেছেন  কিচেনার থেকে, সরদার আব্দুল জব্বার এসেছেন মিল্টন থেকে। এ ছাড়াও হৃদয়য়ের টানে সুদূর নিউইয়র্ক থেকে ছুটে এসেছেন  ২০ তম ব্যাচের নিয়ন। সবাইকে চম্কে দিয়ে সুদূর বাংলাদেশ থেকে ছুটে এসেছেন আমাদের সবার প্রিয়ভাজন চবির প্রাক্তন শিক্ষক সংগঠনের উপদেষ্টা  শ্রদ্বেয় সাব্বির চৌধুরী।  এছাড়াও আরো অনেকে এসেছেন অনেক দূরদূরান্ত থেকে।  সংগঠনের প্রতি ভালবাসা, আনুগত্য  আর আন্তরিকতা থাকলে এমনটিই হয়।  


দুই পর্বের এই অনুষ্ঠানের প্রথম পর্ব ছিল সাংগঠনিক পর্ব।  চুয়েকের সহসভাপতি বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব নাট্য অভিনেতা  অনুপ সেনগুপ্তের উপস্থাপনায় এই পর্বের শুরু হয় বিকেল ৬;৪০ মিনিটে। সভাপত্বিত করেন নবনির্বাচিত সভাপতি সংগঠনের একনিষ্ঠ কর্মী বাহাউদ্দিন বাহার।  শুরুতেই দুই দেশের জাতীয় সঙ্গীত।  ল্যান্ড একনলেজমেন্ট পাঠ করেন সংগঠনের উপদেষ্টা সৈয়দ ফখরুদ্দীন। বিগত বছরে  চবি পরিবারের যারা মৃত্যুবরণ করেন , সাম্প্রতিক ঢাকার অগ্নিকান্ড , নিউজিলান্ডের মসজিদে প্রাণ হারানদের এবং নুসরাতের বিদেহি আঁততার স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।  নবনির্বাচিতদের স্বাগত জানিয়ে বক্তব্য প্রদান করেন যথাক্রমে চবির প্রাক্তন শিক্ষক প্রফেসর আহমেদ শফিকুল হক , প্রাক্তন শিক্ষক ডঃ কাঞ্চন কুমার পুরোহিত, প্রাক্তন শিক্ষক ডঃ সাইফুল্লা চোধুরী , প্রাক্তন শিক্ষক ডঃ সুজিত কুমার দত্ত , প্রাক্তন শিক্ষিকা ডঃ রেবেকা সুলতানা, প্রাক্তন শিক্ষক সাব্বির চৌধুরী, বিশিষ্ট সংগঠক আমিন মিয়া , বিশিষ্ট  মুক্তিযোদ্ধা ও সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ ইলিয়াস মিয়া।  এই পর্বের শেষ বক্তব্য দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অথিতি কানাডাস্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট ও ভাইস  - চেঞ্চেলর ডঃ অমিত চাকমা।  প্রাণবন্ত এবং অর্থবহ এই বক্তব্য সবার  গভীর মনোযোগ আকর্ষণ করে।  


এর পরেই  সেই মাহেন্দ্রক্ষণ - নবনির্বাচিতদের শপথ গ্রহণ।  প্রধান নির্বাচন কমিশনার সৈয়দ ফখরুদ্দীন সবাইকে শপথ বাক্য পাট করান । সাথে ছিলেন নির্বাচন কমিশনার আশীষ বড়ুয়া।  সংগঠনের আঞ্চলিক প্রতিনিধিদের পরিচয় পর্ব।  উপদেষ্টামন্ডলীদের এবং প্রধান অথিতিকে  উত্তরীয় পরিয়ে দেন যথাক্রমে সভাপতি বাহাউদ্দিন , সাধারণ সম্পাদক তাপস ভট্টাচার্য, অর্থসম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন এবং সাংগঠনিক সম্পাদক বিশ্বজিৎ পাল।  এর পর পরেই সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক দূরদর্শী সংগঠক তাপস ভট্টাচার্য আগামী ২০১৮ - ২০১৯ বছরের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে উপস্থাপন করেন। পরিশেষে, সভার সভাপতি এই পর্বের সমাপনী বক্তব্যে উপস্থিত সবাইকে অনুষ্ঠানে আসার জন্যে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।  বিশেষ করে যারা সংগঠনের নতুন আজীবন সদস্য হয়েছেন তাদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।  তাছাড়াও যারা বিজ্ঞাপন দিয়ে এবং আরো বিভিন্ন ভাবে আমাদেরকে আর্থিক এবং মানসিক ভাবে সাহায্য সহযোগিতা করেছেন তাহাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
 


অনুষ্টানের দ্বিতীয় পর্ব সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা।  সংগঠনের সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা কানিজ ফাতেমা উপিস্থিত সবাইকে শুভেচ্ছা জানান এবং সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা উপভোগ করার আমন্ত্রণ জানান এবং এই পর্ব সঞ্চালনা করার জন্যে সংগঠনের সহসভাপতি সব্যসাচী চক্রবর্তীকে অনুরোধ জানান।  প্রাজ্ঞ সঞ্চালক সব্যসাচী চক্রবর্তীর প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় এপর্বে সঙ্গীত পরিবেশন করেন বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী সুমনা গাঙ্গুলী এবং মুক্তা সরওয়ার।  সুরের মূর্ছনায় অনুষ্ঠানস্থল উচ্ছসিত হয়ে উঠে।   


বিজ্ঞাপন দিয়ে যারা সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন তারা হলেন  আলমগীর হাকিম , মনজুর চৌধুরী, সনৎ বড়ুয়া , চিম্ময় দাশ , মনির ইসলাম , রতন দে , সরওয়ার জামান, শক্তি দেব , মুক্তা রায় , নাজমুল মুন্সী , শাহ আলম মোড়াল , ব্যারিস্টার পল্টু সিকদার , কানন বড়ুয়া , আমিন মিয়া , ফরিদউদ্দিন খান সিদ্দিকী,  সাদাত সায়েম , মিঠু সোম , নুপুর কুমার রায় , সফিউদ্দিন আহমেদ , চিত্ত দাস , পারভেজ, নূর তৌহিদ , গৌতম পাল , বি. দত্ত ,মেসার্স  বাংলা বাজার , বিবেক সেন , রুহুল আমিন, গিয়াস উদ্দীন , মেসার্স মারহাবা সুপার মার্কেট , মিজানুর রহমান , ব্যারিস্টার তোফাজ্জাল হক , মেসার্স চকবাজার, সবুজ চৌধুরী , ব্যারিস্টার চয়নিকা দত্ত , রুবায়েত হাসান , জয়ন্ত কুমার সিন্হা , শ্যামাদাস মুখার্জী,  সোহেল মাসুদ , মুশতাক চৌধুরী , মোহাম্মদ  হুমায়ুন কবির, মেসার্স ভাসাভিস নাহিদ কালেকশন , মেসার্স আইস ট্রান্সপোর্ট এন্ড লজিস্টিকস ইনক ।  চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এসোসিয়েশন সবার কাছে কৃতজ্ঞ।
 
পরিশেষে, যাদের অক্লান্ত শ্রম, মেধা এবং মননের ফসল এই রকম একটা পরিছন্ন  সফল অনুষ্ঠানের তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন যথাক্রমে সমর পাল , আ ম ম তোহা , অনুপ সেনগুপ্ত,  নাজমুল মুন্সি , সুধান রায় , শরিফা কামাল মসী,  হুমায়ুন কবির , আনোয়ার সাদাত,  কামরুল আলম , নাসিমা বেগম , সারওয়ার জামান, স্বপন নাথ , , শেখ জসিম উদ্দিন,  বিশ্বজিৎ পাল , তেজিনা এমদাদ , কানিজ ফাতেমা , হাসান তারিক , খোরশেদ আলম খান ,তানভীর, রফিকুল ইসলাম, সাজ্জাদ হোসেন, তানভী হক, জহিরুল হক চৌধুরী , দেবরাজ বিশ্বাস  ও হাসান আল মামুন ।  অনুষ্ঠানের শেষে রসনা ভোজের ব্যবস্থা করা হয়।  

আর/০৮:১৪/০১ মে

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে