Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ , ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-৩০-২০১৯

ভেঙে গেল বগুড়া জেলা বিএনপি

প্রদীপ মোহন্ত


ভেঙে গেল বগুড়া জেলা বিএনপি

বগুড়া, ৩০ এপ্রিল- ভেঙে গেল বগুড়া জেলা বিএনপি। আহ্বায়ক কমিটি গঠনকে কেন্দ্র গতকাল সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে বিএনপির এই ভাঙন দৃশ্যমান হয়। দুপক্ষই পাল্টাপাল্টি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করেছে। এ নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে।

জানা গেছে, গতকাল দলের জেলা নির্বাহী কমিটির সাধারণসভায় বিলুপ্ত জেলা কমিটির সভাপতি সাইফুল ইসলামকে আহ্বায়ক এবং সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁনকে যুগ্ম আহ্বায়ক নির্বাচিত করা হয়। তারা গত আট বছর ধরে জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে ছিলেন।

জানা গেছে, দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ১০ দিনের মধ্যে বগুড়ায় জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি গঠনের নির্দেশ দেন। সেই নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে জেলা কমিটি পুনর্গঠনের জন্য গতকাল দলের সাধারণসভা আহ্বান করা হয়। সেই সভা বয়কট করেন দলের সিনিয়র দুই ডজন নেতা। পরে সাইফুল ইসলামকে আহ্বায়ক ও জয়নাল আবেদীন চাঁনকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে নতুন আহ্বায়ক কমিটির ঘোষণার পর বয়কট করা নেতারা পাল্টা কমিটি ঘোষণা করেন। দুপুরে শহরের নবাববাড়ি সড়কের বগুড়া জেলা বিএনপি কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশে আহ্বায়ক কমিটি গঠনের জন্য সাধারণসভা আহ্বান করা হয়। কিন্তু সেই সভা বয়কট করেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান, অপর উপদেষ্টা সাবেক সাংসদ হেলালুজ্জামান তালুকদার লালুসহ দুই ডজন নেতা।

দলীয় সূত্র জানায়, ওই সভায় ১৭২ সদস্যবিশিষ্ট জেলা বিএনপির ৯৫ জন উপস্থিত ছিলেন। এ ব্যাপারে নতুন আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম জানান, ১৭২ জনের মধ্যে অন্তত ৫০ জন আর দলের সঙ্গে নেই। তাদের কেউ মৃত্যুবরণ করেছেন, অনেকে বহিষ্কৃত হয়েছেন, আবার কেউ কেউ নিষ্ক্রিয়ও হয়ে পড়েছেন। এ ছাড়া কারাগারে আটক থাকার কারণেও অনেক সদস্য সভায় হাজির থাকতে পারেননি।

এদিকে বিকালে দলের সাবেক সাংসদ হেলালুজ্জামান তালুকদারের বাড়িতে পাল্টা সভা ডাকা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সাংসদ হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা, আহসানুল তৈয়ব জাকির, মতিউর রহমান মতি, মাহবুবুর রহমান বকুল, আলী আজগর তালুকদার হেনা, মঞ্জুরুল হক মঞ্জু, রাফি পান্না, এরফানুর রহমান রেন্টু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকদের মধ্যে এমআর ইসলাম স্বাধীন, হামিদুল হক চৌধুরী হিরু, শেখ তাহা উদ্দিন নাহিন, তৌহিদুল আলম মামুন, সাংগঠনিক সম্পাদকদের মধ্যে খায়রুল বাশার ও আরাফাতুর রহমান আপেলসহ সাবেক সংসদ সদস্যরা। সভায় পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমানকে আহ্বায়ক, রেজাউল করিম বাদশা, ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, আলী আসগর তালুকদার হেনা, মঞ্জুরুল হক মঞ্জুকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে পাল্টা কমিটি ঘোষণা করা হয়। তারা আগামীতে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করবেন। যোগাযোগ করা হলে আলী আজগর হেনা বলেন, আহ্বায়ক কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে দলের ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষ থেকে যে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল সেটি সাইফুল ইসলাম মানেননি।

তারেক রহমান বলেছেন, দলের সিনিয়র নেতারা মিলে সর্বসম্মতভাবে আহ্বায়ক কমিটির সদস্যদের নাম কেন্দ্রে প্রস্তাব করতে। কিন্তু সেটি না করে সাধারণসভা ডেকে আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। যার কোনো এখতিয়ার জেলা সদস্যদের নেই। তাই আমরা সিনিয়র নেতারা বসে তারেক রহমানের নির্দেশনা অনুযায়ী একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

এইচ/১০:২৫/৩০ এপ্রিল

বগুড়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে