Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৭ জুন, ২০১৯ , ২ আষাঢ় ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৪-২৯-২০১৯

সিদ্ধিরগঞ্জে জঙ্গি স্টাইলে ছবি, সেই পিস্তল উদ্ধার

সিদ্ধিরগঞ্জে জঙ্গি স্টাইলে ছবি, সেই পিস্তল উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জ, ২৯ এপ্রিল- নারায়ণগঞ্জের জৈনপুরী পীর এনায়েত উল্লাহ আব্বাসী ওরফে হেলিকপ্টার হুজুরের ছোট ভাই নেয়ামত উল্লাহ আব্বাসীকে নিয়ে শুরু হয়েছে নতুন বিতর্ক। সম্প্রতি ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিদের আদলে দুটি খেলনা পিস্তল নিয়ে ছবি তোলেন নেয়ামত উল্লাহ। সেটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

এ ঘটনায় রোববার রাতে পাঠানটুলীতে নেয়ামত উল্লাহ আব্বাসীর বাড়ি থেকে খেলনা পিস্তল ও বন্দুক উদ্ধার করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি শাহীন শাহ পারভেজ। তিনি জানান, তার নেতৃত্বে পাঠানটুলীতে ওই অভিযান চলে। তখন বাড়িতে নেয়ামত উল্লাহ উপস্থিত ছিলেন না।

বাড়িতে তল্লাশি করে দুটি খেলনা পিস্তল ও বন্দুক উদ্ধার করা হয়েছে। নেয়ামত উল্লাহর হাতে ও পেছনে এ দুটি খেলনা পিস্তল ছিল। বাড়ির লোকজন জানিয়েছে মূলত শখের বশে নেয়ামত উল্লাহ এসব ছবি তুলেছেন।

ওসি বলেন, ‘তারপরও আমরা বিষয়টি আরও গভীরভাবে খতিয়ে দেখছি।’
২৫ এপ্রিল রাত ১২টায় পাঠানটুলীতে একটি গার্মেন্টে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর ও লুটপাটের পরেই ওই ছবিটি আসে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে। এ ছবিসহ সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টি নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, প্রশাসন ও গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন এ ছবির উৎস নিয়েও তদন্তে নামেন।

খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, ওই ছবিটি নেয়ামত উল্লাহর বাসাতেই ছিল। বাসার দেয়ালে ছবিটি বাঁধাই করা ছিল।

স্থানীয়রা জানান, নেয়ামত উল্লাহ ছোট থেকেই বেশ আগ্রাসী মনোভাবের। তিনি এ ধরনের ছবি দেখিয়ে এলাকায় প্রভাব বিস্তার করতেন। বিভিন্ন উগ্রপন্থীদের সঙ্গে তার যোগাযোগ থাকতে পারে।

এদিকে গত বৃহস্পতিবার দিনগত গভীর রাতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় নেয়ামত উল্লাহ আব্বাসীসহ ১১ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ১৫০ জনের বিরুদ্ধে এইচএন অ্যাপারেলস লিমিটেড নামে গার্মেন্টের কর্মকর্তা মো. মহিউদ্দিন বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন।

মামলার বিবরণে উল্লেখ করা হয়, ২৫ এপ্রিল রাত ১২টার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জের পাঠানটুলী এলাকায় জৈনপুরী পীর এনায়েত উল্লাহ আব্বাসীর ছোট ভাই নেয়ামত উল্লাহ আব্বাসীর নেতৃত্বে আমির উদ্দিন, মঞ্জুর রহমান, হাসানুর রহমান, ইমরান হোসেন, ফয়সাল, কাউসার, চঞ্চল, রাব্বি, শিবলু, রোমানসহ অজ্ঞাত ১৫০ জন দলবদ্ধভাবে লাঠি, লোহার রড, বল্লম, শাবল, হ্যামার নিয়ে এইচএন অ্যাপারেলস লিমিটেডের টিনশেড বিল্ডিংয়ের প্রিন্ট ফ্যাক্টরির দেয়াল ভাঙে।
এ সময় ভেতরে প্রবেশ করে কারখানার ১০ লাখ টাকা ক্ষতিসাধন ছাড়াও কারখানার অভ্যন্তরে থাকা প্রিন্টিং কেমিক্যাল, প্রিন্টিং মেশিন, কিউরিং মেশিন, কার্টুন রোলসহ ১০ লাখ টাকা মূল্যের সামগ্রী লুটে নিয়ে যায়।

এ সময় হামলাকারীরা ফ্যাক্টরি ছেড়ে না গেলে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রাণনাশের হুমকি দেয়।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে এজাহারনামীয় আসামি আমির উদ্দিন, মঞ্জুর রহমান, হাসানুর রহমান, ইমরান হোসেনকে হাতেনাতে গ্রেফতার করে।

সূত্র: যুগান্তর
আর এস/ ২৯ এপ্রিল

নারায়নগঞ্জ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে