Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.5/5 (2 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৪-১৮-২০১৯

অতিথি দলগুলো পাঁচতারা হোটেলে বাংলাদেশের মেয়েরা বাফুফে ভবনে!

অতিথি দলগুলো পাঁচতারা হোটেলে বাংলাদেশের মেয়েরা বাফুফে ভবনে!

ঢাকা, ১৮ এপ্রিল- চারদিন পর ঢাকায় শুরু হচ্ছে প্রথম বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ নারী আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট। বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের নামের এ টুর্নামেন্টকে আকর্ষণীয় করতে নানা উদ্যোগ নেয়া হয়েছে; কিন্তু দলগুলোর আবাসন ব্যবস্থায় বাফুফে বৈষম্য রাখায় জন্ম দিয়েছে নানা প্রশ্ন।

শুক্রবার তাজিকিস্তান প্রথম দল হিসেবে ঢাকা আসছে। এরপর সংযুক্ত আরব আমিরাত, মঙ্গোলিয়া, লাওস ও সর্বশেষ ২১ এপ্রিল আসছে কিরগিজস্তান। ৬ জাতির এ টুর্নামেন্টে অতিথি ৫টি দেশকেই রাখা হচ্ছে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে; কিন্ত বাংলাদেশের মেয়েদের জায়গা হচ্ছে না পাঁচতারা এই হোটেলে। বাফুফে ভবনের ডরমেটরিতে থেকেই মারিয়া-আঁখিদের খেলতে হবে বঙ্গমাতা টুর্নামেন্ট।

যদিও প্রথম শোনা গিয়েছিল, অন্য পাঁচ দেশের মতো লাল-সবুজ জার্সিধারী মেয়েরাও একই হোটেল থাকবে টুর্নামেন্ট চলাকালীন। কিন্তু বৃহস্পতিবার দুপুরে বাফুফে থেকে হোটেল কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দেয়া হয়, বাংলাদেশ দল সেখানে উঠছে না।

স্থানীয় মেয়েদের পাঁচতারা হোটেলের পরিবর্তে বাফুফে ভবনের ডরমেটরিতে রাখার যে ব্যাখ্যা দিয়েছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ, তার যৌক্তিকতা নিয়েও প্রশ্ন আছে।

বাফুফে ভবনের ডরমেটরিতে থেকে খেললে নাকি বাংলাদেশের মেয়েরা ভালো রেজাল্ট করবে। কারণ, তারা সারাবছর এখানে থেকে-খেয়ে অভ্যস্ত হয়ে গেছেন। হোটেলের পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে পারেন না, খাবারেও নাকি মেয়েদের সমস্যা হয়। জায়গা পরিবর্তন করলে ফল খারাপ হওয়ার শঙ্কা আছে!

মেয়েদের পাঁচতারা হোটেলে না ওঠানোর দায়টা অবশ্য মহিলা ফুটবল দলের টেকনিক্যাল ডিপার্টমেন্টের উপর চাপিয়েছে বাফুফে। ‘আমরা অর্থ বাঁচানোর জন্য মেয়েদের হোটেলে উঠাচ্ছি না, বিষয়টি এমন নয়। আমরা ৬ দেশের জন্যই হোটেল বুকিং দিয়েছিলাম। কিন্তু দলের টেকনিক্যাল ডিপার্টমেন্ট কিছুতেই মেয়েদের হোটেলে রাখার পক্ষে নয়। তাই আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুরে হোটেল কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দিয়েছি মেয়েরা উঠবে না’- বলেছেন বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ।

এ বিষয়ে টুর্নামেন্টের স্বত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান কে-স্পোর্টসের সিইও ফাহাদ করীম বলেছেন, ‘আমরা তো সব দলের জন্যই হোটেল বুকিং দিয়েছি। এখন বাংলাদেশ দলকে হোটেল উঠতে দেবে কিনা সেটা বাফুফের বিষয়।’

প্রথম দল হিসেবে শুক্রবার রাত ১১.২০ মিনিটে ঢাকায় আসছে তাজিকিস্তান। পরের দিন সকাল ৮.৪০ মিনিটে আসছে সংযুক্ত আরব আমিরাত, দুপুর ১টায় মঙ্গোলিয়া এবং সন্ধ্যা ৬টায় লাওস। সর্বশেষ দল হিসেবে কিরগিজস্তান ঢাকায় আসছে ২১ এপ্রিল ভোর ৪.৫৫ মিনিটে।

২২ এপ্রিল সন্ধ্যা ৬ টায় উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। বাংলাদেশ গ্রুপের (‘বি’ গ্রুপ) অন্য দল কিরগিজস্তান। ‘এ’ গ্রুপে খেলবে মঙ্গোলিয়া, লাওস ও তাজিকিস্তান। সোমবার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে টুর্নামেন্ট উদ্বোধন করবেন অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম মুস্তাফা কামাল। টুর্নামেন্টের ফাইনাল ৩ মে।

সূত্র: জাগো নিউজ২৪
আর এস/ ১৮ এপ্রিল

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে