Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯ , ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৪-১৭-২০১৯

ধর্ম নিয়ে স্পর্শকাতর মন্তব্যে, আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও সাফা কবির

ধর্ম নিয়ে স্পর্শকাতর মন্তব্যে, আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও সাফা কবির

নিজের দেয়া বক্তব্যের ভুল বুঝতে পেড়ে ক্ষমা চেয়েছেন অভিনেত্রী সাফা কবির। তিনি বলেন, আল্লাহ পরম দয়ালু ও ক্ষমাশীল, তিনি নিশ্চয়েই আমাকে ক্ষমা করবেন।

সোমবার সামাজিক মাধ্যমে একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে, যেখানে দেখা যায় অভিনেত্রী সাফা কবির একজন ভক্তের প্রশ্নের উত্তরে বলছেন, ‘না আমি পরকালে বিশ্বাস করি না।’ এই ভিডিওর অংশটুকু সামাজিক মাধ্যম ছড়িয়ে পড়ে।

একই সাথে নেটিজেনদের তোপের মুখে পড়েন এই অভিনেত্রী ও মডেল। তিনি তার ‘ভুল’ বুঝতে পেরে সকলের নিকট ক্ষমা চেয়েছেন একইসাথে তিনি অনুরাগীদের মনে আঘাত দেওয়ার জন্য দুঃখপ্রকাশ করেছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে তিনি তার ভেরিফায়েড পেইজে বলেন, আমি ও আমার আল্লাহ জানেন, তিনি নিশ্চয়ই ক্ষমা করবেন।

সাফা কবির বলেছেন, আমি যদি কোনও ভুল করে থাকি সেই ভুলের জন্য আমি পরম করুণাময়ের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছি। তিনি পরম দয়ালু এবং ক্ষমাশীল। তিনি নিশ্চয়ই আমাকে ক্ষমা করবেন।

সাফা কবির ক্ষমা চাইলেও ধর্ম নিয়ে তার এমন স্পর্শকাতর মন্তব্যের পরে ব্যাপক বিতর্কের জন্ম দেয়। দেশীয় বিভিন্ন গণমাধ্যম এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করে। একই বিষয় নিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও খবর হয়েছেন তিনি।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইল এর অনলাইন ভার্সনে সাফাকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এতে বলা হয়েছে, নাস্তিকতা নিয়ে মন্তব্যের জন্য বাংলাদেশি অভিনেত্রী সাফা কবীরকে সেদেশে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করা হয়েছে। দেশটিতে নাস্তিক পরিচয় থাকার অভিযোগে বেশ কয়েকজনকে হত্যা করা হয়েছে।

ডেইলি মেইলের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি সপ্তাহে বাংলাদেশের একটি প্রাইভেট রেডিও স্টেশনে একটি ইন্টারভিউ দেন সাফা কবীর। এতে তিনি মন্তব্য করেন, ‘মৃত্যুর পরের জীবনে আমি বিশ্বাস করি না। প্রকৃতপক্ষে, আমি যা দেখি না, তাতে বিশ্বাস করি না।’ তিনি আরও বলেন, ‘স্বর্গে ও নরক প্রসঙ্গে কেউ কেউ তাঁদের মুসলিম বিশ্বাস প্রত্যাখ্যান করেছেন।’

বলা হয়, সাফার ওই মন্তব্যের খবর দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ভাইরাল হয় ইন্টারভিউয়ের ফুটেজটি। নানা মন্তব্য করে ব্যবহারকারীরা। এসব মন্তব্যের অধিকাংশই তাঁর বিরুদ্ধে।

ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে আরো লেখা হয়েছে, নাস্তিকতা বাংলাদেশে ব্যাপকভাবে নিষিদ্ধ। গত কয়েক বছরে সেখানে নাস্তিক পরিচয় থাকার অভিযোগে প্রায় ডজন মানুষকে নিষ্ঠুরভাবে আক্রমণ ও হত্যা করেছে সন্দেহভাজন ইসলামী চরমপন্থিরা।

অনেক নেতৃস্থানীয় নাস্তিক দেশ পালিয়ে গেছে এবং পশ্চিমা দেশগুলোতে নির্বাসনে বসবাস করছে।

মঙ্গলবার তিনি ফেসবুকে ক্ষমা চেয়েছেন। এতে নাস্তিক পরিচয়কে অস্বীকার করছেন এই অভিনেত্রী।

প্রতিবেদনে সাফার কয়েকটি ছবিও প্রকাশ করেছে ডেইলি মেইল।

সূত্র: বিডি২৪লাইভ
আর এস/ ১৭ এপ্রিল

নাটক

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে