Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০১৯ , ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-১৭-২০১৯

সবাই সংসদে দেখতে চায় কিন্তু বেইমানি করব না

সবাই সংসদে দেখতে চায় কিন্তু বেইমানি করব না

বগুড়া, ১৭ এপ্রিল- ভোটাররা সংসদে দেখতে চাইলেও দলের সিদ্ধান্তের বাইরে যেতে চান না বগুড়া থেকে নির্বাচিত বিএনপির সংসদ সদস্য মোশারফ হোসেন। তিনি জানান, তাকে নিয়ে জনগণের প্রত্যাশা রয়েছে। সবাই তাকে সংসদে দেখতে চায়। কিন্তু দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে বেইমানি করতে চান না তিনি।

এমপি হিসেবে শপথগ্রহণ নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনার মধ্যে গতকাল মঙ্গলবার আমাদের সময়ের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এভাবেই তার মত তুলে ধরেন। বগুড়া-৪ আসন থেকে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচিত হন জেলা বিএনপির সদস্য মোশারফ হোসেন।

তার মতে, বগুড়ায় ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হওয়া সম্ভব। যদিও এবারের প্রহসনের নির্বাচনে অনেকে জিততে পারেননি। এ ধরনের কারচুপির নির্বাচনের পরও শেষ পর্যন্ত তিনি বিজয়ী হয়েছেন।

সংসদ সদস্য হওয়া সৌভাগ্যের বিষয় উল্লেখ করে মোশারফ হোসেন বলেন, আমি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি। জনগণের প্রতিনিধি হয়ে সংসদ কথা বলাটা জনগণ পছন্দ করে। কিন্তু যেখানে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে, তার সিদ্ধান্তের বাইরে আমি কিছু করব না। তিনি বলেন, যেখানে ম্যাডাম এত কষ্ট করছেন; দেশের জন্য ত্যাগ স্বীকার করছেন।

সেখানে আমিও দেশ ও দলের প্রয়োজনে আমার সংসদ সদস্যপদ সেক্রিফাইস করব। দলের বাইরে গিয়ে সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেব না। বেঈমানি করব না। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির সঙ্গে দলটি থেকে নির্বাচিত ৬ জনের সংসদ সদস্য হিসেবে শপথগ্রহণের বিষয়টি জড়িত বলে গণমাধ্যমে নানা সংবাদ আসছে। এ অবস্থায় গত সোমবার রাতে গুলশান কার্যালয়ে বৈঠক করেন ওই ৬ এমপি। পরে নানা গুঞ্জন বিষয়ে আমাদের সময়ের কাছে অবস্থান স্পষ্ট করেন এই নেতা।

তিনি বলেন, বৈঠকে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানিয়েছেন, এখন পর্যন্ত শপথ না নেওয়ার সিদ্ধান্ত রয়েছে। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছেন তিনি।

মোশারফ বলেন, গণমাধ্যমে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্যারোলে মুক্তি এবং এর সঙ্গে সংসদ সদস্যদের শপথ গ্রহণের বিষয়টি জড়িয়ে নানা সংবাদ আসছে। তবে শপথগ্রহণের বিষয়ে তারা কিছুই জানেন না। শুধু গণমাধ্যমের সংবাদই দেখতে পাচ্ছেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দলের নেতাকর্মীদের মতো তিনিও নানাভাবে হয়রানি শিকার হচ্ছেন। মামলা-মোকদ্দমা তো আছেই।

তিনি বলেন, কোনো পক্ষ থেকে তাকে সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিতে চাপ দেওয়া হয়নি। এ বিষয়ে তার সঙ্গে দলের বাইরে কোনো পক্ষ কথা বলেনি, যোগাযোগও করেনি। দলের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের সঙ্গে কারও আলোচনা চলছে কিনা তিনি তা জানেন না।

আর/০৮:১৪/১৭ এপ্রিল

বগুড়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে