Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯ , ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৪-১৬-২০১৯

দেশে ফিরতে উদগ্রীব কাদের

শিমুল বারী


দেশে ফিরতে উদগ্রীব কাদের

সিঙ্গাপুর, ১৬ এপ্রিল- সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এখন অনেকটাই সুস্থ। দেশবাসী ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও শুভাকাঙ্খিদের উৎকণ্ঠা আগের চেয়ে কমেছে, দেশ থেকে কোন না কোন নেতাকর্মী, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ মন্ত্রীকে দেখতে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত। এতে করে তিনি মনের দিক থেকে দ্রুত সুস্থ হয়ে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছে তার চিকিৎসক।

বরেণ্য এই নেতার চোখ ও মন পড়ে আছে দেশের মানুষ ও দলীয় নেতাকর্মীদের কাছে। কবে আসবেন দেশে এই ব্যকুলতায় সময় কাটছে জনপ্রিয় এই মন্ত্রীর। সিঙ্গাপুরের ভাড়া বাসায় থেকেও মন পড়ে আছে দেশে। দেশের প্রতিমুহূর্তের রাজনৈতিক কর্মকান্ডের খোঁজ খবর নিচ্ছেন তিনি। সময় কাটাচ্ছেন পরিবার পরিজন ও শুভাকঙ্খিদের সাথে আলাপচারিতার মাধ্যমে। তবে আলাপ চারিতার মূল বিষয় দেশ ও নেতাকর্মীদের খোঁজই প্রাধান্য পাচ্ছে। পারিবারিক ও দায়িত্বশীল একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে তিনি তার প্রিয় মাতৃভূমিতে ফিরতে উদগ্রীব হয়ে বসে আছেন।

বঙ্গববন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) ও নিউরো মেডিসিনি বিভাগের অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী সার্বক্ষণিক আছেন ওবায়দুল কাদেরর সাথে। তিনি গণমাধ্যমের কাছে প্রতিনিয়ত জনপ্রিয় এই নেতার খবর প্রদান করে আসছেন সিঙ্গাপুর থেকে।

এদিকে, চিকিৎসকের কাছ থেকে জানা গেছে, বর্তমানে ওবায়দুল কাদেরের হৃদযন্ত্রের কার্যকারিতা ভালো। 
উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তিনি নিয়মিত হাঁটাচলা করছেন। আজ ১৬ এপ্রিল তার চিকিৎসার বিষয়ে একটি ফলোআপ রয়েছে। তারপরই সিদ্ধান্ত হবে কবে ফিরছেন এই নেতা।

বিএসএমএমইউ’র অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক জানান, বর্তমানে ওবায়দুল কাদের দেশে ফেরার মতো অবস্থায় রয়েছেন। তবে তার চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধের সঠিক ডোজ নিরূপণের জন্য আরও কিছুদিন সিঙ্গাপুরে থাকা প্রয়োজন এবং সে কারণেই মন্ত্রী সিঙ্গাপুরে অবস্থান করছেন।

উল্লেখ্য, গত ৩ মার্চ ভোরে ঢাকায় নিজ বাড়িতে শ্বাসকষ্ট শুরু হলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন ওবায়দুল কাদের। সেখানে দ্রুত এনজিওগ্রাম করা হলে তার হৃৎপিণ্ডের রক্তনালীতে তিনটি বড় ব্লক ধরা পড়ে। এরমধ্যে একটি ব্লক স্টেন্টিংয়ের (রিং পরানো) মাধ্যমে দ্রুত অপসারণ করেন চিকিৎসকরা। ৪ মার্চ বিকেলে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ওবায়দুল কাদেরকে সিঙ্গাপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি সিঙ্গাপুরেই রয়েছেন।

সূত্র: বিডি২৪লাইভ
এইচ/২১:১৪/১৬ এপ্রিল

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে