Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯ , ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-১৬-২০১৯

শুধু মালিয়া-নীরব মোদি নন, দেশ ছেড়েছেন অন্তত ৩৬ জন দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী

সুভাজিত মণ্ডল


শুধু মালিয়া-নীরব মোদি নন, দেশ ছেড়েছেন অন্তত ৩৬ জন দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী

নয়া দিল্লী, ১৬ এপ্রিল- শুধু বিজয় মালিয়া বা নীরব মোদি নন। দুর্নীতির শিকড় আরও গভীরে। গত কয়েক বছরে মালিয়া-নীরব মোদিদের মতো দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন অন্তত ৩৬ জন প্রভাবশালী। এরা প্রত্যেকেই কোনও না কোনও আর্থিক কেলেঙ্কারির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। চপার কেলেঙ্কারির এক মামলার শুনানিতে সুপ্রিম কোর্টকে এমনটাই জানাল ইডি।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের অন্যতম এজেন্ট সুসেনমোহন গুপ্তার জামিনের আরজির বিরোধিতা করতে গিয়ে একথা জানিয়েছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। অগস্টা ওয়েস্টল্যান্ড কপ্টার কেলেঙ্কারির ঘটনায় অন্যতম অভিযুক্ত সুসেনমোহন। সোমবার ইডি সুসেনমোহনের জামিনের বিরোধিতা করতে গিয়ে জানায়, জামিন দেওয়া হলে এই ব্যক্তিও দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাতে পারেন। এভাবেই আগে দেশ ছেড়ে ৩৬ জন পালিয়ে গিয়েছেন।

এদিন বিশেষ আদালতের বিচারক অরবিন্দ কুমারকে ইডির আইনজীবী জানান, অতি সম্প্রতি বিজয় মালিয়া, নীরব মোদি, মেহুল চোকসির মতো ৩৬ জন ব্যবসায়ী দেশ ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছেন। পালিয়ে যাওয়া এই সব ব্যক্তির সমাজে যথেষ্টই প্রভাব প্রতিপত্তি ছিল। তার পরেও তাঁরা দেশ ছেড়ে চলে গিয়েছেন। সর্বোপরি এই মামলা বর্তমানে এক গুরুপূর্ণ পর্যায়ে রয়েছে। সুসেনমোহনের ডায়েরিতে ‘আর জি’ নামে এক ব্যক্তির নাম পাওয়া গিয়েছে। এই ‘আর জি’ কে তা জানতে তদন্ত চলছে।

সুসেনমোহনকে জামিন দেওয়া হলে তিনি সাক্ষীদের প্রভাবিত করতে এবং তথ্যপ্রমাণ নষ্ট করে দিতে পারেন। অন্যদিকে সুসেনমোহনের আইনজীবী বলেন, ইডি ইতিমধ্যেই তদন্তের কাজ শেষ করেছে। এমনকী, সংস্থা চার্জশিটও পেশ করেছে। দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার যে আশঙ্কা ইডি করছে তার কোনও ভিত্তি নেই। এই মামলার তদন্তে ইডি যখনই ডেকে পাঠিয়েছে তখনই হাজির হয়েছেন সুসেনমোহন। এই মামলার তদন্তে তিনি আগাগোড়া ইডিকে সম্পূর্ণ সহযোগিতা করেছেন। উভয় পক্ষের বক্তব্য শোনার পর বিচারক অবশ্য এদিন সুসেনমোহনের জামিন নিয়ে কোনও নির্দেশ জারি করেননি। ২০ এপ্রিল পরবর্তী শুনানি হবে।

উল্লেখ্য, আর্থিক কেলেঙ্কারি প্রতিরোধ আইনে সুসেনমোহনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে ইডি। তদন্তকারী সংস্থার অনুমান, ৩৬০০ কোটি টাকার ভিভিআইপি কপ্টার কেলেঙ্কারির মামলায় কাদের টাকা দেওয়া হয়েছিল সে বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য রয়েছে সুসেনমোহনের কাছে।

আর/০৮:১৪/১৬ এপ্রিল

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে