Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯ , ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-১২-২০১৯

ইরফানের সুস্থ হয়ে ওঠার লড়াই নিয়ে স্ত্রীর খোলা চিঠি

ইরফানের সুস্থ হয়ে ওঠার লড়াই নিয়ে স্ত্রীর খোলা চিঠি

মুম্বাই, ১২ এপ্রিল- আমরা ঠিক যেভাবে জীবনকে চালনা করতে চাই, জীবন সবসময় সেই পথে চলে না। তখনই বহুকিছু যেন বদলে যায়। নিউরো এন্ড্রোক্রাইন টিউমারে আক্রান্ত হওয়ার পর খোলা চিঠিতে নিজের জীবনকেও ঠিক সেভাবেই ব্যক্ত করেছিলেন ইরফান খান।

২০১৮সালটা বি-টাউনের বহু সেলিব্রিটির জীবনের গতিকেই রুদ্ধ করেছিল ক্যান্সার। তাদের মধ্যে সোনালি বেন্দ্রে, তাহিরা কাশ্যপ অন্যতম। অন্যদিকে নিউরো এন্ড্রোক্রাইন টিউমারের মতো বিরল রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন ইরফান খান। তাঁর এই ব্য়ধিকে আক্রান্ত হওয়ার খবরে হতাশ হয়েছিলেন বহু ভক্ত। তাঁর ঠিক কী হয়েছে এবিষয়ে প্রথমদিকে ধোঁয়াশায় ছিলেন তিনি নিজেও।

টুইটে লিখেছিলেন, কখনও কখনও ঘুম থেকে জাগার পর হঠাৎ করে হোঁচট খেতে হয়। গত ১৫ দিন আমি আমার জীবন নিয়ে ধোঁয়াশায় রয়েছি। আমি অনুসন্ধান করে যতটুকু জেনেছি আমি বিরল রোগে আক্রান্ত। আমি কখনও আশা ছাড়িনি। সবসময়ই আমার পছন্দের জন্য লড়াই করেছি এবং জিতেছি। এবার আমার পরিবার বন্ধু সকলেই আমার সঙ্গে রয়েছে। দয়া করে আমার রোগ নিয়ে অনুমান করে কিছু বলবেন না। আমি এবিষয়ে বেশকিছু টেস্টের পরই জানতে পারব এবং ঠিক কী হয়েছে আপনাদের জানাব। আপনারা আমার জন্য প্রার্থনা করুন।

দীর্ঘদিন ধরে লন্ডনে চিকিৎসারত ছিলেন ইরফান খান। তবে অবশেষে বেশকিছুটা সুস্থ হয়ে মুম্বই ফিরেছেন ইরফান। শুরু করেছেন ‘হিন্দি মিডিয়াম’-এর সিক্যুয়াল ‘আংরেজি মিডিয়াম’-এর শ্যুটিং। সুস্থ হয়ে ফিরে আসার জন্য ভক্তদের ধন্যবাদ জ্ঞাপনও করেছেন ইরফান।

স্বামীর এই কঠিন লড়াইয়ে সবসময় তার পাশে ছিলেন ইরফান খানের বাঙালি স্ত্রী সুতপা শিকদার। ইরফান খানেই এই চিকিৎসা, লড়াই পুরো সময়টাকে জীবনের সবথেকে লম্বা বছর বলেন বর্ণনা করেছেন সুতপা শিকদার, নিজের বন্ধু তথা স্বামী ইরফানকে একজন যোদ্ধার সঙ্গে তুলনা করে লিখেছেন, এই বছরটা আমদের জীবনের সবথেকে বড় বছর। যন্ত্রণা, আশা এইসমস্ত কিছু দিয়ে সময়কে কখনওই পরিমাপ করা যায় না। আত্মীয়-বন্ধুদের প্রার্থনা আবারও নতুন করে জীবন শুরু করার সুযোগ পেয়েছি। এটা যেন অবিশ্বাস্য। আমি অনিশ্চিত শব্দটা অর্থ খুব ভালো করে বুঝতে পেরেছি। আমি এটা অনুভব করেছি মানুষ ওর জন্য হৃদয় দিয়ে প্রার্থনা করেছেন। আমি হয়ত তাঁদের নাম বলতে পারব না, কারণ, এক্ষেত্রে এমন বহু মানুষ আছে তাঁদের নামও আমি জানি না। প্রত্যেকের নাম ধরে ধরে ধন্যবাদ না জানাতে পারার জন্য ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। আজ আবারও আগেই মতোই সবকিছু ঠিকঠাক। আমরা আবারও কাজে ফিরতে পেরেছি। প্রার্থনায় বিশ্বাস রাখার জন্যও ধন্যবাদ সকলকে। ‘

এর আগে ইরফান খানের অসুস্থতার খবর প্রকাশ্যে আসার পরও টুইট করেছিলেন সুতপা। সেই টুইটে ইরফানকে তাঁর বন্ধু ও জীবনসঙ্গী এবং একজন যোদ্ধা হিসাবে বর্ণানা করেছিলেন। এমনকি ইরফান খানের শরীরের কথা জানতে চেয়ে যাঁরা তাঁদের মেসেজ করেছিলেন, তার উত্তর না দিতে পারার জন্য ক্ষমাও চেয়েনিয়েছিলেন তিনি।

ইরফান খানের ভক্তদের উদ্দেশ্যে সুতপা শিকদার লিখেছিলেন, আমার প্রিয় বন্ধু এবং জীবন সঙ্গী একজন যোদ্ধা। যিনি জীবনের সমস্ত প্রতিবন্ধকতাকে সুন্দরভাবে সাহসের সঙ্গে পার করে এসেছেন। আমি এতদিন আপনাদের কোনও ফোন কল ও মেসেজের উত্তর না দিতে পারার জন্য ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। তবে আপনাদের সকলের কাছে আমার বিনম্র অনুরোধ, সকলে ওঁর মঙ্গলকামনা করুন। ইশ্বরের কাছে আমি কৃতজ্ঞ এবং আমার স্বামীর কাছেও যে তাঁরা আমাকেও যোদ্ধা বানিয়ে তুলেছেন। আমি আপাতত এই যুদ্ধ জয়ের জন্য মনোযোগ দিয়েছি। যদিও এটা সহজ নয়, তবে বন্ধুরা ও ইরফানের ভক্তরা আমায় আশাবাদী করে তুলেছে এই যুদ্ধ জয়ের বিষয়ে।

প্রসঙ্গত, ইরফান খানের স্ত্রী সুতপা শিকদার নিজেও সিনেমার প্রযোজনার সঙ্গে যুক্ত। এমনকি বহু ছবির ডায়ালগও লিখেছেন তিনি। ১৯৯৬ সালে নানা পাটেকর-মণীষা কৈরালা অভিনীত ছবি খামোশি ছবির ডায়ালগ লিখেছিবেন সুতপা শিকদার। ২০০৩ সালে মুক্তি প্রাপ্ত ছবি ‘সুপারি’, ২০০৫ এর ‘শব্দ’, ২০১২তে সুজয় ঘোষের ‘কাহানি’ ছবির ডায়ালগও তাঁর লেখা। ২০১৬ সালে ‘মাদারি’ ছবির প্রযোজকও ছিলেন তিনি।

বলিউড

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে