Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২০ মে, ২০১৯ , ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-০৬-২০১৯

'বিজেপির টার্গেট বাঙালি তাড়ানো, মুসলিম তাড়ানো'

দীপক দেবনাথ


'বিজেপির টার্গেট বাঙালি তাড়ানো, মুসলিম তাড়ানো'

কলকাতা, ০৬ এপ্রিল- বিজেপির টার্গেট বাঙালি তাড়ানো, আদিবাসী তাড়ানো, মুসলিম তাড়ানো। ওরা মানুষকে দাঙ্গা করে, খুন করে নতুন ভাবে আমদানি করা এক পোকা। মানুষে মানুষে মারপিট করে দেওয়াই ওদের লক্ষ্য। এই অভিযোগ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। 

শনিবার দুপুরে রাজ্যটির আলিপুরদুয়ার জেলার বারোবিশাতে একটি নির্বাচনী প্রচারণা থেকে কেন্দ্রের মোদি সরকারকে নিশানা করে তিনি বলেন ‘জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) নামে আসামে ২২ লাখ হিন্দু এবং প্রায় ২৩ লাখ মুসলিমের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে। তালিকায় মায়ের নাম আছে তো ছেলের নাম নেই, বাবার নাম আছে তো স্ত্রীর এর নাম নেই। দুঃখে আত্মহত্যা করছে আসামের মানুষেরা। কংগ্রেস বা সিপিআইএম পাশে কেউ দাঁড়ায়নি, একমাত্র তৃণমূল কংগ্রেসই তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে, তাদের রক্ষা করেছি। কাজেই এরাজ্যে এনআরসি করতে দেব না।’ 

এসময় মমতার হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘বিজেপি তুমি জেনে রেখে দাও, এই বাংলায় ৪২-এ তুমি জিরো পাবে। বাংলা তাড়ানো তোমার বেরিয়ে যাবে। বাঙালিদের তাড়ানো এত সহজ নয়।’ 

তিনি আরও বলেন ‘আর নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল'র ফলে যারা ছয় বছর দেশের নাগরিক ছিল তাদের বিদেশি বানিয়ে দেবে। এই ছয় বছর আপনার ছেলেমেয়েরা স্কুলে যাবে না, চাকরি করবে না, রেশন কার্ড পাবে না, নিজের অধিকার থাকবে না। আর ছয় বছর বাদে ইচ্ছে হলে নাগরিক পেতে পারেন না হলে তাও পাবেন না। এর ফলে দেশি নাগরিক বিদেশি হয়ে যাবেন। এনআরসি ও সিটিজেনশিপ অ্যামেন্ডমেন্ট অ্যাক্ট-দুটোই বিজেপির নোংরা খেলা। এটা ওদের চক্রান্ত। ওরা চায় আরএসএস ও বিজেপি ছাড়া ভারতে কেউ থাকবে না।’
 
নরেন্দ্র মোদিকে হিটলারের দাদা ফ্যাসিস্ট বলে উল্লেখ করে মমতা জানান ‘বিজেপি জিতলে দেশের স্বাধীনতা থাকবে না। সংবিধান বদলে দেবে, সংখ্যালঘুদের অধিকার থাকবে না।’ 

তৃণমূলকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে মমতা বলেন ‘একটা ভোটও বিজেপিকে দেবেন না। জোড়াফুলে ভোট দিন কারণ আগামী দিনে দেশের সরকার এই তৃণমূলই গড়বে। বিজেপি নয়, কারণ মোদি বাবুর এক্সপায়ারি ডেট হয়ে গেছে ওদের এখন যাওয়ার সময় এসেছে।’
 
মোদিকে কটাক্ষ করে মমতার বলেন, ‘আপনি কি কখনও সমুদ্রের ঢেউ দেখেছেন? আপনি তো আপনার নিজের স্ত্রীকেই দেখেন নি, তো সমুদ্রের উত্তাল ঢেউ কিভাবে দেখবেন? উল্লেখ্য, আগামী ১১ এপ্রিল থেকে গোটা দেশের সাথে এরাজ্যেও শুরু হচ্ছে লোকসভার প্রথম পর্বের ভোট। এ পর্বে রাজ্যটির আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহার কেন্দ্রে ভোট নেওয়া হবে।’

এমএ/ ১১:৪৪/ ০৬ এপ্রিল

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে