Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ১৯ মে, ২০১৯ , ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.0/5 (1 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৪-০৬-২০১৯

প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ, তবুও অব্যাহত আলজেরিয়ার বিক্ষোভ 

প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ, তবুও অব্যাহত আলজেরিয়ার বিক্ষোভ 

আলজেরিস, ০৬ এপ্রিল- রাজনৈতিক ব্যবস্থায় অচলাবস্থা কাটাতে আবারও রাস্তায় নেমে এসেছে আলজেরিয়ার হাজার হাজার নাগরিক। ব্যাপক বিক্ষোভ ঠেকাতে  শুক্রবার রাজধানী আলজেরিসে প্রবেশ পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়। তা সত্ত্বেও পূর্বাঞ্চলীয় কাবুস থেকে প্রায় ২০ কিলোমিটার হেঁটে এসে শহরের পোস্ট অফিসের সামনের বিক্ষোভে যোগ দেয় একদল বিক্ষোভকারী।

২০ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা প্রেসিডেন্ট আব্দেল আজিজ বুতেফলিকা পঞ্চম মেয়াদে নির্বাচনের লড়ার ঘোষণা দেওয়ার পর গত ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে আলজেরিয়ায় বিক্ষোভ শুরু হয়। ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে গত ৩ এপ্রিল পদত্যাগের ঘোষণা দেন তিনি। তা সত্ত্বেও শুক্রবার বিক্ষোভ অব্যাহত রাখা হয়।

এখন বিক্ষোভকারীদের দাবি বুতেফলিকার মূল সহযোগীরা দায়িত্ব থেকে সরে যাক। বিশেষ করে আলজেরিয়ার ক্ষমতা কাঠামোর তিন শাখার শীর্ষ ব্যক্তিরা। তারা হলেন প্রধানমন্ত্রী, পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষের প্রধান এবং সাংবিধানিক পরিষদের প্রেসিডেন্ট।  ’মানুষ চায় তারা সবাই সরে যাক’ স্লোগান দেয় বিক্ষোভকারীরা। প্রধানমন্ত্রী নুরেদ্দিন বেদুই, সাংবিধানিক পরিষদের প্রেসিডেন্ট তায়েব বেলআজিজ এবং পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষের প্রেসিডেন্ট আবদেলকাদের বেনসালাহ।

বুধবার সাংবাবিধানিক পরিষদ প্রেসিডেন্ট পদ শুন্য ঘোষণা করে। তিন মাসের অন্তবর্তীকালীন সময় শুরুর ঘোষণা দেয়। আলজেরিয়ার সংবিধান অনুযায়ী ৯০ দিনের অন্তবর্তী সময়ের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। প্রক্রিয়া অনুযায়ী পার্লামেন্টের দুই কক্ষের সম্মতিতে বেনসালাহকে অন্তবর্তী নেতা হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। তবে বিক্ষোভে নেতৃত্ব দেওয়া আলজেরিয়ার বিরোধী দলগুলো বেনসালাহকে অন্তবর্তী নেতা হিসেবে মানতে রাজি নয়।

বিক্ষোভকারীদের অন্যতম নেতা আইনজীবী মুস্তফা বুসাসি তাদের সবাই পদত্যাগ না করা পর্যন্ত বিক্ষোভ অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন। অনলাইনে পোস্ট করা এক ভিডিওতে তিনি বলেছেন, আমাদের আংশিক বিজয় হয়েছে। আলজেরিয়ার বাসিন্দারা ওই শাসকদের কোনও প্রতীক অন্তবর্তী নেতা হয়ে নির্বাচন পরিচালনা করবে তা মেনে নেবে না।

রাজধানী আলজেরিস ছাড়াও শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ হয়েছে উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ আন্নাবা এবং উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ বেজাজিয়াতেও।

তথ্যসূত্র: বাংলা ট্রিবিউন
এআর/০৬ এপ্রিল

আফ্রিকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে