Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ২২ মে, ২০১৯ , ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-০৪-২০১৯

পড়া না পারলে থুথু খাওয়ান শিক্ষক, অভিযোগ শিক্ষার্থীদের

পড়া না পারলে থুথু খাওয়ান শিক্ষক, অভিযোগ শিক্ষার্থীদের

রংপুর, ০৪ এপ্রিল- শিক্ষার্থীরা পড়া না পারলে মারধরসহ একজনের থুথু অন্যজনকে খাওয়ানোর অভিযোগে উঠেছে রংপুরের কাউনিয়ায় হারাগাছ চতুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। এছাড়া জামাল উদ্দিন নামের ওই শিক্ষকের শাস্তির ভয়ে বিদ্যালয়ে যেতে ভয় পায় শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) এই ঘটনার শিক্ষকের বিচার দাবি করে বিদ্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

ওই বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের ওপর এমন শাস্তির বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী। তারা হারাগাছ চতুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক জামাল উদ্দীনের শাস্তি দাবি করেছেন।’

এছাড়া ওই বিদ্যালয়ে ১৬৮জন শিক্ষার্থী রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘স্কুল শিক্ষক জামাল উদ্দীনের শাস্তি দেওয়ার কায়দা এতই অমানবিক যে, স্কুলে আসতেই ভয় পায় ছোট শিশুরা।’

ওই বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী শারমিন, চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী সাথী আক্তারসহ একাধিক শিক্ষার্থীর অভিযোগ, ‘কোনো কিছু হলেই জামাল স্যার মারধর করেন এবং একজনের থুথু অন্যজনকে খেতে বাধ্য করেন।’


আব্দুল জলিল, হাবিব ও আমির হোসেনসহ কয়েকজন অভিভাবক জানান, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে এর আগেও শিক্ষার্থীদের প্রতি এমন অমানবিক আচরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শিক্ষার্থীদের থুথু খাওয়ানোর কারণে তারা স্কুলে যেতে চায় না। আমরা এ ধরনের ঘটনার বিচার দাবি করছি।

ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক খালেদা আক্তার (মুনমুন) বলেন, ‘ঘটনার বিষয়ে শনিবার ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের নিয়ে সভা আহবান করা হয়েছে। সভার পর অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

তবে অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছেন শিক্ষক জামাল উদ্দিন। তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘এটা মিথ্যা কথা। এমন কিছু করি নাই। তবে আমার অপরাধ হয়ে থাকলে ক্ষমা করে দেবেন।’

এ বিষয়ে রংপুর আঞ্চলিক শিক্ষা অফিসার নজরুল ইসলাম এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘বিষয়টি খতিয়ে দেখে শনিবার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম নাজিয়া সুলতানা বলেন, ‘শিশু শিক্ষার্থীদের মানসিক এবং শারীরিক নির্যাতন করার অভিযোগ পেয়েছি এবং সঙ্গে সঙ্গে শিক্ষা অফিসারকে ঘটনাটি তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

সূত্র: সারাবাংলা

আর/০৮:১৪/০৪ এপ্রিল

রংপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে