Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ , ২৯ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-২৭-২০১৯

আনন্দময় করুন আপনার সন্তানের শৈশব  

আনন্দময় করুন আপনার সন্তানের শৈশব

 

বড়রা সবসময় চান ছোটদের বিভিন্ন নিয়মে বেঁধে রাখতে। খাওয়ার সময় গল্প শোনার বায়না-একেবারেই নয়। ঘুমের সময় এটা ওটা জিজ্ঞাসা- আগামীকাল সকালে উঠতে দেরি হয়ে যাবে, তাই কোনও প্রশ্ন নয়। বড়দের সময় মিলিয়ে শিশুদের গোসল, খাওয়া, খেলা, পড়াশোনা, বেড়ানো সবকিছুই করতে হবে। আমাদের সুবিধা অনুযায়ী নিয়মের নিগড়ে আষ্টেপৃষ্ঠে বেঁধে রাখা শিশুর শৈশব তাই পায় না হাঁফ ছাড়ার সময়।

মনে মনে হয়তো ভাবছেন নিয়ম মেনে তো সবাইকেই চলতে হয়। আমরা সবাই ব্যস্ত জীবনের নিয়মের জালে আটকা। কিন্তু তারপরও সন্তানকে এই নিয়মের বেড়াজাল ভেদ করে খানিকটা নিশ্বাস ফেলার জায়গা তৈরি করে দিতে হবে আপনাকেই। শিশুকে টেনে হিঁচড়ে বড় না করে তুলে, কল্পনার পাখায় ভর দিয়ে নিজের মতো করে বেড়ে উঠতে দিন। আনন্দময় করুন আপনার সন্তানের শৈশব।

বাবা-মায়ের জন্য কিছু পরামর্শ
* শিশুর বয়স দুই পেরিয়ে গেলেই সে কল্পনার জগতে প্রবেশ করতে শুরু করে। এই সময় ওরা বানিয়ে বানিয়ে গল্প বলে। অনেকসময় না দেখা জিনিসকেও বর্ণনা দেওয়ার চেষ্টা করে। ছোট ঘটনাকেও অনেকটা বাড়িয়ে বলে। এই চেষ্টাতে বাঁধা দেবেন না। এগুলো কিন্তু মিথ্যাকথা নয়। বরং ও যখন এই কথাগুলো বলবে, মন দিয়ে শুনুন। নানারকম প্রশ্ন করুন। আপনি ওর কথার গুরুত্ব দিলে, বেড়ে যাবে ওর আত্মবিশ্বাস। আর আপনার সঙ্গেও গড়ে উঠবে সুন্দর একটা বন্ডিং।

* সারাদিনে যদি দশ মিনিট সময়ও হাতে পান, সেই সময়ে সন্তানকে একটা গল্প পড়ে শোনান। গল্পটা যখন ও ভালো করে বুঝে নেবে, তখন দুজন মিলে গল্পের চরিত্রগুলোর অভিনয় করুন। আপনার গলা বদলে বদলে, নানারকম অঙ্গভঙ্গি করে গল্পের অভিনয় করুন। এতে যেমন সময়টা চমৎকারভাবে কাটবে, শিশুও সুযোগ পাবে কল্পনা করার।

* সন্তান যখন থেকে কথা বলা শিখবে, যতই আবোলতাবোল কথা বলুক না কেন, ওর সব কথা মনোযোগ দিয়ে শুনুন। আপনার পুরো মনোযোগটাই ওর দিকে দিন। মাঝে মাঝে শিশুকে এটা সেটা প্রশ্ন করুন।

* সন্তানকে অ্যাক্টিভ থাকতে উৎসাহ দিন। শুধু শারীরিকভাবেই নয়, ওর মনও যাতে সতেজ থাকার যথেষ্ট খোরাক পায়, নজর দিন সেদিকেও। গল্পের বই পড়তে, ছবি আঁকতে, পাজেল মেলাতে উৎসাহ দিন। ওকে উৎসাহিত করার জন্য বসার ঘরের দেওয়ালে ওর আঁকা ছবি বাঁধিয়ে রাখতে পারেন। বিভিন্ন জিনিস বানিয়ে বাসায় ওর বন্ধুদের নিয়ে আয়োজন করতে পারেন একটা প্রদর্শনীর।

* শিশুরা অভিনয় করতে পছন্দ করে। সেই অভিনয় উপভোগ করুন। ভালো করলে তার প্রশংসা করতে ভুলবেন না।

এআর/০২:১৮/২৭ মার্চ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে