Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯ , ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-২৬-২০১৯

বিশ্বে যেসব ভূখণ্ডে স্বাধীনতার জন্য ‌‘হাহাকার’

বিশ্বে যেসব ভূখণ্ডে স্বাধীনতার জন্য ‌‘হাহাকার’

স্বাধীনতা এক অমূল্য সম্পদ। সবার ভাগ্যে এমন দুর্লভ সম্পদ জোটে না। বিশ্বে এখনো অনেক ভূখণ্ড আছে যারা স্বাধীনতার জন্য ‘হাহাকার’ করছে। ঔপনিবেশিক শাসন থেকে বেরিয়ে যাবার জন্য লড়াই করছে দিনের পর দিন।

কাতালোনিয়া: ১৭১৪ সালে স্পেনের রাজা পঞ্চম ফিলিপের বাহিনীর কাছে বার্সেলোনার পরাজয় ও স্বাধীনতা হারায় কাতালোনিয়া। ২০১২ সাল থেকে দিনটিকে স্বাধীনতাকামীরা স্বাধীনতার আন্দোলন হিসেবে বেছে নিয়েছে। ২০১৭ সালের ১ অক্টোবর গণভোটের আয়োজন করে কাতালোনিয়া। এরপর ২৭ অক্টোবরে স্পেন থেকে কাতালোনিয়ার স্বাধীনতা ঘোষণা করে পুজদেমনের নেতৃত্বাধীন স্বাধীনতাকামীরা। কিন্তু স্পেনের জাতীয় সরকার কাতালোনিয়া সরকার ভেঙে দিয়ে পুজদেমনকে বরখাস্ত করে। বলা যায়, স্পেন থেকে আলাদা হওয়ার সব চেষ্টাই ব্যর্থ হয়েছে।

বিয়াফ্রা: ইজেরিয়ার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের একটি অঞ্চল বিয়াফ্রা। স্বাধীন রাষ্ট্র বিয়াফ্রা প্রতিষ্ঠার জন্য আন্দোলন করে আসছে ইগবো জনগোষ্ঠী। এই রাজ্যের বাসিন্দারা স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন। রাজ্যে ইগবোরা ছাড়াও এফিক, ইবিবিও, আনাঙ, জ্যাগহাম, ইকেট, বেনো এবং যাও নামে সম্প্রদায় রয়েছে। গত ৫০ বছর ধরে তারা স্বাধীনতার আন্দোলন করে যাচ্ছে ফ্রান্সের উপনিবেশ থেকে বের হবার জন্য।

আমবাজোনিয়া: ১৯৮৪ সাল থেকে ক্যামেরুন থেকে বিচ্ছিন্ন হতে চাইছে আমবাজোনিয়া রাজ্য। তৎকালীন প্রেসিডেন্ট পল বিয়া ওই অঞ্চলের নাম রিপাবলিক অব ক্যামেরুন থেকে পাল্টে ইউনাইটেড রিপাবলিক অব ক্যামেরুন করলে সমস্যার শুরু হয়। ১৯৬০ সালে ফ্রান্সের কাছ থেকে ক্যামেরুন স্বাধীনতা লাভ করে কিন্তু আমবাজোনিয়ার মানুষ নিজেদের স্বাধীনতার দাবি অব্যাহত রাখে।

দাফুর: স্বাধীনতার জন্য লড়ে যাওয়া আরেকটি ভূখণ্ড দাফুর। তাদের এই সংগ্রামটা খুব বেশি দিনের নয়। ২০০৩ সালে সুদান লিবারেশন মুভমেন্ট (এসএলএম) এবং জাস্টিস অ্যান্ড ইকুয়িটি মুভমেন্ট (জেইএম) স্বাধীনতার দাবিতে লড়াই শুরু করলে দাফুরের জনগণও রাস্তায় নামে। দক্ষিণ সুদানের জন্ম নেওয়ার পর তাদের স্বাধীনতার দাবি আরো বেগবান হয়।

সোমালিল্যান্ড: ২০১৬ সালে সোমালিল্যান্ডের মানুষ স্বঘোষিত স্বাধীনতার ২৫ বছর পূর্তি পালন করে। সোমালিয়ার স্বঘোষিত রাজ্য। সোমালিয়ার সরকার এই অঞ্চলের কথিত বিদ্রোহ দমনে অনেক চেষ্টা করছে। কিন্তু সম্প্রতি সোমালিল্যান্ডের শান্তিপ্রিয় মানুষেরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের নজর কাড়তে সমর্থ হয়েছে।

এমএ/ ০৮:১১/ ২৬ মার্চ

জানা-অজানা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে