Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯ , ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-১৬-২০১৯

নিউইয়র্কে মসজিদের নামে সড়কের নামকরণ

নিউইয়র্কে মসজিদের নামে সড়কের নামকরণ

নিউইয়র্ক, ১৬ মার্চ- নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার ঘটনায় ক্ষুব্ধ আর শোকাহত দিনে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে মসজিদের নামে সড়কের নামকরণ করা হয়েছে। নিউইয়র্কে বাংলাদেশিদের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের (জেএমসি) নামে সড়কের নামকরণ করা হয়েছে ‘জেএমসি ওয়ে’।

গতকাল শুক্রবার স্থানীয় সময় জুমার নামাজের পর জেএমসি ওয়ের নামফলক উন্মোচন করা হয়। প্রবাসীদের হাতে গড়ে ওঠা জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের সামনের ১৬৮ স্ট্রিটের একাংশের নাম এখন জেএমসি ওয়ে।

সিটি কাউন্সিলম্যান ররি ল্যান্সম্যানের নেতৃত্বে জ্যামাইকার ১৬৮ স্ট্রিটের হাইল্যান্ড অ্যাভিনিউ থেকে গথিক ড্রাইভ পর্যন্ত জেএমসি ওয়ের ফলক উন্মোচন করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেসের প্রভাবশালী একাধিক সদস্য, নগরীর পুলিশপ্রধান ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। অনুষ্ঠানে নিউইয়র্কের পুলিশ কমিশনার জেমস ও’নিলসহ নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা আশ্বস্ত করেন, নিউজিল্যান্ডের সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় নিউইয়র্কে মুসলমানদের আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

নিউইয়র্কে বাংলাদেশিদের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত জেএমসি সিটির অন্যতম বৃহৎ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান। জেএমসি একাধারে মসজিদ ছাড়াও ইসলামি শিক্ষা-সংস্কৃতির চর্চা ও জনকল্যাণমূলক প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্বীকৃত। এই জেএমসি ঘিরেই সিটির কুইন্স বরোর জ্যামাইকায় গড়ে উঠেছে বৃহৎ বাংলাদেশি জনসমাজ। জেএমসি মুসলিম কমিউনিটিসহ বাংলাদেশি কমিউনিটির কল্যাণে বিশেষ ভূমিকা রাখার কারণে সিটি প্রশাসন জেএমসির নামে সামনের রাস্তাটির নামকরণের সিদ্ধান্ত নেয়।

ব্যতিক্রমী এই অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তিলাওয়াত করেন ইমাম শামসী আলী। এরপর স্বাগত বক্তব্য দেন স্থানীয় সিটি কমিশনার ররি ল্যান্সম্যান। এ ছাড়া অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন নিউইয়র্কের কংগ্রেসম্যান গ্রেগরি মিক্স, কংগ্রেস ওমেন গ্রেস মেং, নিউইয়র্ক স্টেট অ্যাসেম্বলিম্যান ডেভিট ওয়েপ্রিন ও ড্যানিয়েল রোজেনথাল, নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্ট-এনওয়াইপিডির কমিশনার জেমস ও’নিল, সিটি কাউন্সিলম্যান কষ্টা কন্সটানটিনিডিস ও ড্যানিক মিলার।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার পরিচালনা কমিটির সভাপতি ডা. সিদ্দিকুর রহমান, ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান সৈয়দ মোজাফফর হোসেন ও সাবেক সভাপতি খাজা মিজান হাসান। অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন জেএমসির সেক্রেটারি মনজুর আহমেদ চৌধুরী। অনুষ্ঠানে জেএমসি পরিচালনা কমিটির সাবেক ও বর্তমান কর্মকর্তাসহ বিপুলসংখ্যক মুসল্লি উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে পুলিশ কমিশনার জেমস ও’নিল নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানান। পাশাপাশি মুসলিমসহ সব ধর্মের লোকদের জন্য নিউইয়র্ক সিটিকে নিরাপদ রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

বক্তারা নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ এলাকার মসজিদে বর্ণবাদী সন্ত্রাসীদের নির্বিচার গুলিতে ৪৯ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। তাঁরা নিউইয়র্কে ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মধ্যে বিদ্যমান সম্প্রীতি ধরে রাখা ও সন্ত্রাস-বিদ্বেষের বিরুদ্ধে তাঁদের অবস্থানের কথা জানান। বক্তারা নিউইয়র্ক সিটিকে গড়ে তোলা ও এই মেগাসিটিকে আজকের পর্যায়ে নিয়ে আসার পেছনে মুসলিম সম্প্রদায়ের অবদানের কথাও উল্লেখ করেন।

এ সপ্তাহেই নিউজার্সির প্যাটারসন নগরে বাংলাদেশি অধ্যুষিত ‘ইউনিয়ন অ্যাভিনিউকে’ ‘বাংলাদেশ বুলেবার্ড’ নামে নামকরণ করেছে নগর কর্তৃপক্ষ। এর আগে দুর্বৃত্তদের হামলায় নিহত ফটোসাংবাদিক মিজানুর রহমানের নামে সিটির ওজন পার্কে ‘মিজানুর রহমান ওয়ে’ এবং ব্রনক্সে ‘বাংলা বাজার’ নামে সড়কের নামকরণ করা হয়েছে। বিষয়গুলোকে প্রবাসে বাংলাদেশি জনসমাজের স্বীকৃতি বলেই মনে করছেন প্রবাসীরা।

এমএ/ ০৭:৪৪/ ১৬ মার্চ

যূক্তরাষ্ট্র

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে