Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৯ , ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (87 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১১-২৪-২০১১

শেষ হলো বাঙালি স্থপতি সমাবেশ কনসটেলেশন ২০১১

শেষ হলো বাঙালি স্থপতি সমাবেশ কনসটেলেশন ২০১১
গত শনিবার ১৯ শে নভেম্বর শেষ হলো বাঙালি-কানাডিয়ান স্থপতিদের সমাবেশ- আর্কিটেকটস কন্সটেলেশন ২০১১। (ছবি : ফটো গ্যালারিতে) টরন্টো নগরীর ১০ গারনেট জেন্স রোডের ১৩ তলার স্বল্প পরিসরে সমবেত হয়েছিলেন ৩০টির মতো স্থপতি পরিবার। নবীন আর প্রবীণ স্থপতিদের পদসঞ্চারনে মুখরিত ছিল শীতের সন্ধ্যা। সবাবেশ আরো প্রাণবন্ত ছিলো স্থপতি পরিবারের সবার আন্তরিক অংশগ্রহণে। অভিবাসী জীবনে প্রতিদিনের মানসিক চাপ কখনো কখনো জীবনকে করে তুলে ক্লান্ত। এই সমাবেশ ছিলো সেই ক্লান্তি থেকে বের হয়ে আসা ক্ষণিকের প্রশান্তি। অনুষ্ঠানটির উদ্যোগ নেন টরন্টোতে বসবাস করেন এমন কয়েকজন নবীন স্থপতি। উদ্দেশ্য ছিল নবীন-প্রবীণ স্থপতিদের সাথে একে অন্যের পরিচয়, একে অপরের সাহায্য-সহযোগিতায় এগিয়ে আসার আর নবীনদের স্থাপত্য পেশা শুরুর প্রেরণা, পরামর্শ, দিক নির্দেশনা দেয়া।
অনুষ্ঠানটি আনন্দঘন হয়ে উঠেছিলো কিছু ভিন্নমাত্রার আয়োজনে। স্থপতি ফারিয়া লতিফ উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটি শুরু হয় প্রামাণ্যচিত্র `বিউটিফুল বাংলাদেশ' দিয়ে। উদ্দেশ্য ছিল শ্যামল সুন্দর বাংলাদেশকে স্থপতি পরিবারের শিশুদের কাছে তুলে ধরা। এরপরই স্থপতি আহসেনুল হাবিব উপস্থাপন করেন তাঁর প্রফেশনাল স্থাপত্য প্রকল্পসমূহ। তিনি বর্তমানে থান্ডার বে-তে খুব সফলভাবে স্থাপত্যচর্চা করছেন। নবীন স্থপতিদের জন্য ছিল এটা এক বিরাট প্রেরণা। এর পরপরই শুরু হয় ম্যাজিক শো। শিশুদের জন্য এ আয়োজন ছিল একটি সফল সংযোজন। শিশুদের উচ্ছলতায় পরিপূর্ণ হয়ে ওঠে পরিবেশ। ম্যাজিক শোর স্পন্সর ছিলেন স্থপতি মাহমুদা রহমান। অনুষ্ঠানের শেষ সংযোজন ছিল স্থপতি হোসেন খন্দকারের প্রয়াত স্থপতি স্ত্রীকে নিয়ে স্মৃতিচারণ। মোমেন খন্দকার তাঁর দুই কন্য এবং পুত্রকে নিয়ে উপস্থাপন করেন তাঁর নিজস্ব স্থাপত্যকর্ম এবং তাঁর স্ত্রীর শিল্পকল্প। সবশেষে রাতের খাবার পরিবেশনের সময় বাংলাদেশের `সমসাময়িক বিজিত স্থাপত্যপ্রকল্প' দেখানো হয় প্রজেক্টরের মাধ্যমে।
অনুষ্ঠানের বাড়তি একটি আকর্ষন ছিল স্থপতিদের নেটওয়ার্ক বৃদ্ধির উদ্যোগ। উদ্যোক্তারা একটি ড্রাফট আকারে একটি ডিরেক্টরি প্রিন্ট করে তুলে দেন প্রত্যেক স্থপতির হাতে। আর সফট কপি ইমেইল করে পাঠানো হয় যারা অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারেননি তাদের কাছে। নবীন উদ্যোক্তরা ভবিষ্যতে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে পুরো উত্তর আমেরিকাকে একটি নেটওয়ার্কের আওতায় আনার পরিকল্পনা করেছেন। আগামী গ্রীষ্মে আরো একটি কনসটেলেশন আয়োজনের ইচ্ছে প্রকাশ করেন উদ্যোক্তারা। যাদের উদ্যোগে এই আয়োজনটি সফল হলো তারা হলেন- ফারিয়া লতিফ, ফারহান তামিম, ইমরান খান, নুরুল বশির, সাবিল সরাফউদ্দিন আহসান তাফমিন হক, মাহমুদা, অংকুর খান এবং মাহফিল আলী। বর্তমান বাংলাদেশ স্থপতি ইন্সটিটিউটের প্রেসিডেন্ট মোবাশ্বের হোসেন, স্থপতি মমিনুল মোর্শেদ `বিউটিফুল বাংলাদেশ' এবং `সমসাময়িক বিজিত স্থাপত্য প্রকল্প' এ দুটি প্রেজেন্টেশন পাঠানোর জন্য অবশ্যই ধন্যবাদের দাবীদার। অনুষ্ঠানটিকে সাফল্য মন্ডিত করতে প্রকৌশলী সাঈদ সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছেন। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি

কানাডা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে