Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০১৯ , ৪ আষাঢ় ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০২-১০-২০১৯

দিনাজপুরে ভালোবাসা দিবসে ফুল বিক্রি হবে ১০ লাখ টাকার!

দিনাজপুরে ভালোবাসা দিবসে ফুল বিক্রি হবে ১০ লাখ টাকার!

দিনাজপুর, ১০ ফেব্রুয়ারি- আসছে ১৪ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার) বিশ্ব ভালোবাসা দিবস বা ভ্যালেন্টাইনস ডে। দিবসটিতে প্রিয়জনের হাতে ফুল দিয়ে ভালোবাসা না জানালে কি হয়? কেননা, দিনটি যে হৃদয়ের সঙ্গে হৃদয়ের মেলবন্ধনের দিন। 

বসটিতে ১০ লাখ টাকার ফুল বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছেন দিনাজপুর শহরের ফুল ব্যবসায়ীরা। এরই মধ্যে ফুল বিক্রির রেকর্ড সৃষ্টি করতে অগ্রিম ফুল আনতে শুরুও করেছেন তারা। 

দিনাজপুর শহরের মর্ডান মোড়, গণেশতলা, জেল রোড, লিলিমোড়ে ঘুরে দেখা গেছে, শহরের স্থায়ী দোকানগুলোতে বিভিন্ন স্থান থেকে ফুল এনে সাজিয়ে রাখছেন ভালোবাসা দিবসে বিক্রির জন্য। দিবসটি উপলক্ষে স্থায়ী দোকান ছাড়াও মৌসুমী ফুল বিক্রেতারা বসেছেন রাস্তার ধারে ফুল নিয়ে। দিনাজপুর শহরে ছোট-বড় মিলে প্রায় ২৫টি দোকানে ১০ লাখ টাকার ফুল বিক্রির টার্গেট করেছেন ফুল ব্যবসায়ীরা। দিনাজপুরের স্থায়ী ব্যবসায়ীরা সাধারণত যশোর থেকে ফুল আনলেও মৌসুমী ব্যবসায়ীরা স্থানীয় সদর উপজেলার সুখসাগর, বাগেরহাট ব্র্যাকের নার্সারি ও বিরল উপজেলার কাজীপাড়া থেকে ফুল এনে বিক্রি করেন। 

দিনাজপুর শহরের সবচেয়ে বড় ফুলের দোকান গণেশতলার মাধবী গ্রিটিংস কর্নারের মালিক বেলাল হোসেন জানান, তিনি প্রায় ১৫ বছর ধরে ফুল ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তার দোকানে বর্তমান স্টাফের সংখ্যা ১৩ জন। তিনি যশোর থেকে পাইকারি ফুল এনে দিনাজপুরে বিক্রি করেন। বর্তমানে গোলাপফুল, গাঁদা, রজনীগন্ধাসহ বিভিন্ন ধরনের ফুল রয়েছে তার দোকানে। ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে চার লাখ টাকার ফুল বিক্রির টার্গেট নির্ধারণও করেছেন বলেও জানান তিনি।

জেল রোডের শুভ ফুল বিতানের সত্ত্বাধিকারী সুভাষ চন্দ্র রায় জানান, তিনি এবছর প্রায় এক লাখ টাকার ফুল বিক্রির টার্গেট নির্ধারণ করেছেন। যশোরের পাইকারি ফুল আনতে অনেক বেশি দাম দিতে হচ্ছে। সেখানে ফুলের দাম বেশি হওয়ায় এ বছর ফুলের দাম বেশি।

মৌসুমী ফুল ব্যবসায়ীরা জানান, তারা দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন জায়গা থেকে ফুল নিয়ে এসে বিক্রি করেন। মৌসুম অনুযায়ী ফুল বিক্রি করে তাদের লাভ হয়। বিভিন্ন দিবসের দুই/তিনদিন আগে থেকে তারা শহরের বিভিন্ন রাস্তার ধারে টেবিল-চেয়ার বসিয়ে ফুল বিক্রি করেন। 

ফুল কিনতে আসা ক্রেতা রফিকুল ইসলাম বলেন, এবছর ফুলের দাম অনেক বেশি। প্রতি পিস গোলাপ ২০ টাকার নিচে বিক্রি করছে না। দাম বেশি হলেও কি করব, নিতে তো হবেই।

এমএ/ ০৪:২২/ ১০ ফেব্রুয়ারি

দিনাজপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে