Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ২৪ মে, ২০১৯ , ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.7/5 (6 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০২-০৫-২০১৯

বিএনপিপন্থী ১৬ আইনজীবীর বিরুদ্ধে কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

বিএনপিপন্থী ১৬ আইনজীবীর বিরুদ্ধে কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

রাজশাহী, ০৫ ফেব্রুয়ারি- বিএনপিপন্থী ১৬ আইনজীবীর বিরুদ্ধে রাজশাহী অ্যাডভোকেট বার সমিতির কল্যাণ তহবিল থেকে এক কোটি ২৮ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত ওই ১৬ আইনজীবীকে সমিতি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

সোমবার বার সমিতির বিশেষ সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সমিতির কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন সমিতির বর্তমান সভাপতি অ্যাডভোকেট লোকমান আলী।

সভায় সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট একরামুল হকসহ অন্য আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন। সভা শেষে অ্যাডভোকেট একরামুল হক এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

অভিযুক্তরা হলেন- বারের সাবেক সভাপতি ও কল্যাণ তহবিল স্ট্যান্ডিং কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, তহবিলের সাবেক চেয়ারম্যান এরশাদ আলী ঈশা, বারের সাবেক সভাপতি মোজাম্মেল হক, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জমসেদ আলী-১, মাইনুল আহসান পান্না ও আফতাবুর রহমান, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক (কল্যাণ তহবিল) পারভেজ তৌফিক জাহেদী, হাবিবুর রহমান-৩, সানোয়ার কবির খান ঈশা ও জানে আলম, সাবেক হিসাব সম্পাদক শামসুল হক, মুন্সি আবুল কালাম আজাদ ও আবদুর রাজ্জাক সরকার, সাবেক অডিট সম্পাদক আবদুল মতিন চৌধুরী রুমি, আদিব ইমাম ডালিম ও মাহবুবুর রহমান রুমন।

বিএনপিপন্থী এসব আইনজীবী ২০১০ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত বার সমিতির নেতৃত্বে ছিলেন। বর্তমানে এর নেতৃত্বে রয়েছেন আওয়ামীপন্থী আইনজীবীরা।

বার সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট একরামুল হক জানান, সাধারণ সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সাবেক এসব নির্বাহী কর্মকর্তার কল্যাণ তহবিলের সদস্যপদ বাতিল করা হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, তারা এখন শুধু সহযোগী সদস্য হিসেবে গণ্য হবেন।

এদের মধ্যে জমসেদ আলী-১, মাইনুল আহসান পান্না ও আফতাবুর রহমানকে তিন বছরের জন্য এবং শামসুল হক, আবদুল মতিন চৌধুরী রুমি, আবদুর রাজ্জাক সরকার, মাহবুবুর রহমান রুমন, মুন্সি আবুল কালাম আজাদ ও আদিব ইমাম ডালিমকে ছয় মাসের জন্য বরখাস্ত করা হয়েছে। অর্থাৎ তারা সহযোগী সদস্য হিসেবেও গণ্য হবেন না।

সভায় সিদ্ধান্ত হয়, বরখাস্তকালীন সময়ে এসব আইনজীবীরা সমিতির কোনো প্রকার সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে পারবেন না। আদালতে আইন পেশা পরিচালনা করতেও পারবেন না তারা। আর টাকা ফেরত দিতে এই ১৬ জনকে এক মাসের সময় বেঁধে দেয়া হয়। এই সময়সীমার মধ্যে সমিতিতে টাকা ফেরত না দিলে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে। তবে টাকা ফেরত দিলে তারা তাদের বরখাস্তের আদেশ প্রত্যাহারের জন্য সমিতিতে আবেদন
করতে পারবেন।

এমএ/ ০৫:০০/ ০৫ ফেব্রুয়ারি

রাজশাহী

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে