Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০১-২৯-২০১৯

ভ্রমণের ঋদ্ধ সম্ভার

সঞ্জয় ঘোষ


ভ্রমণের ঋদ্ধ সম্ভার

একই জায়গায় ঘুরে এসে ব্যক্তিভেদে বর্ণনা যেমন ভিন্ন হয়, তেমনি একই ব্যক্তির বর্ণনায় একেক রকমভাবে ধরা পড়ে একেক জায়গার রূপ- এটাই স্বাভাবিক। ভ্রমণে স্বয়ং ভ্রমণকারী যে উপভোগ-উপলব্ধিতে জাড়িত হন, সেই ভ্রমণের বর্ণনা পাঠের উপলব্ধিও অনেক সময় তার চেয়ে কম হয় না। ফারুক মঈনউদ্দীনের ভ্রমণ রচনাগুলো তেমনই। পাঠ করতে করতে আর পাঠের বিষয়টা মনে থাকে না, পাঠক নিজেই যেন এক সময় সেই ভ্রমণের সঙ্গী হয়ে ওঠেন।

'বিশ্বজোড়া অনন্ত অঙ্গনে' সাহিত্যিক ফারুক মঈনউদ্দীনের তেমনই একটি ভ্রমণসাহিত্যের বই। কথাসাহিত্য, কবিতা, অনুবাদের সাথে সাথে ভ্রমণ রচনায় তার নৈপুণ্য পাঠকমাত্রেই প্রশংসিত। যিনি প্রথম পড়বেন তিনিও এ উপলব্ধি নিয়েই মুগ্ধ হবেন ফারুক মঈনউদ্দীনের বর্ণনায়। দেশ-দেশান্তরে কি জনাকীর্ণ শহর-বন্দর, কি বিস্তীর্ণ চারণভূমি- একান্ত এক প্রকাশভঙ্গির মধ্য দিয়ে ইতিহাস ও বর্তমানের এমন এক জোড়া ঘোড়া ছুটিয়ে দেন লেখক, যাতে গাড়ি জুড়ে দিয়ে পাঠক নির্বিঘ্ন এক ভ্রমণের আনন্দের সাথে ঐতিহাসিক-বাস্তবতারও একটা পাঠ গ্রহণ করতে পারেন। সেই সঙ্গে লেখকের রসবোধের বাড়তি চালান তো আছেই। 

উক্ত ভ্রমণগ্রন্থটিতে লেখকের মোট ১৫টি ভ্রমণ বর্ণনা স্থান পেয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র, তুরস্ক, মঙ্গোলিয়া, ভারত, নেদারল্যান্ডসের বিভিন্ন প্রান্তে লেখক নানা সময়ে যেসব জায়গায় ঘুরে বেড়িয়েছেন- সেইসব জায়গার ভূগোল-ইতিহাস, জনমানুষের জীবনচিত্র এবং দেখা-অদেখা বিচিত্র কথকতা উঠে এসেছে এই বর্ণনাগুলোতে। তবে লেখক মনে করেন, অনুন্নত বিশ্বের পর্যটকদের ভ্রমণ কাকস্নানের মতো। আর এক জীবনে বিশ্বজোড়া অনন্ত অঙ্গনের কতটুকু আর দেখা হয়? কিন্তু দেখার চোখ থাকলে কাকস্নানসম ভ্রমণেও যে বহু কিছু দেখে নেওয়া যায় সে উদাহরণ রয়েছে এ বইটির পাতায় পাতায়। সেই সঙ্গে বইটিতে সংযুক্ত হয়েছে ভ্রমণকালীন নানা মুহূর্ত ও ঘটনা সংশ্নিষ্ট ছবি। যার ফলে অনেক জায়গায়ই পাঠককে ভ্রমণ গল্পের ভেতর দিয়ে চলতে গিয়ে কেবলমাত্র কল্পনার সাহায্যের ওপরই নির্ভর করতে হয় না।

বইটির প্রথম রচনাটির শিরোনাম 'প্রযুক্তির মারপ্যাঁচে বিড়ম্বিত ভ্রমণ'। নিউইয়র্ক থেকে গাড়ি চালিয়ে ওয়াশিংটন যাওয়ার পথে গাড়িতে জিপিএস বিড়ম্বনায় লেখকদের এক ঘণ্টার রাস্তা অতিক্রম করতে লেগে গিয়েছিল চার ঘণ্টা। ম্যানহাটন, চায়না টাউন, নিউজার্সি, হাডসন নদীর তল দিয়ে হল্যান্ড টানেল- এসব পেরিয়ে যাওয়ার বর্ণনা এবং ওয়াশিংটনে হোয়াইট হাউস, ন্যাশনাল মিউজিয়াম অব আমেরিকান হিস্ট্রি, লাইব্রেরি অব কংগ্রেস ঘুরে দেখার ঘটনাপ্রবাহ ফারুক মঈনুদ্দীন তার নিজস্ব সেই অন্তরঙ্গ ভঙ্গিমায় বর্ণনা করেছেন। বর্ণনার ভেতরে যেমন আছে যাতায়াত, পথ-ঘাটের কথা তেমনি এর ভেতর দিয়ে লেখক আমেরিকান জীবনের বিচিত্র বাস্তবতাও তুলে ধরেছেন, যা পাঠককে নানাভাবে ঋদ্ধ ও রোমাঞ্চিত করে। 

এ কথা তার সবগুলো ভ্রমণ বর্ণনার ক্ষেত্রেই খাটে। একে একে 'হেনরি ফোর্ড জাদুঘরে রোজা পার্কস', 'জুয়ার শহর থেকে পাওয়েল হ্রদ', 'আমেরিকার মাতৃসড়ক', 'হুডুদের গ্রাম থেকে মরমনপল্লিতে', 'ইস্তাম্বুলের নীল মসজিদে', 'বসফোরাসে ভাসমান সন্ধ্যায়', 'তুর্কি সুলতানের ঠাঁটের প্রাসাদে', 'স্তেপের তেপান্তরের মাঠে', 'স্তেপ প্রান্তরে নিঃসঙ্গ চেঙ্গিস', 'মুম্বাইয়ে এক টুকরো ইলোরা', 'আমস্টারডামের আকর্ষণ', 'আনা ফ্রাঙ্কের গোপন আস্তানায়', 'ভ্যান গঘের ঘোরে', 'রেমব্রান্টের বাড়িতে এক চক্কর'- শিরোনামের এমনই সব চিত্তাকর্ষক ও রোমাঞ্চকর ভ্রমণের কথা লেখক বলেছেন এ বইটিতে।

আমেরিকার জুয়ার শহর লাস ভেগাসের দিনরাত্রির কথা যেমন আছে, আছে ইউটাহ রাজ্যের ব্রাইস ক্যানিয়নের পাথুরে পাহাড়ে প্রকৃতির গড়া অবিশ্বাস্য হুডু মূর্তির কথা। এর মধ্যে উঠে এসেছে ইউটাহ রাজ্যের মরমনদের কথা। আর মরমনপল্লির জায়ন পার্কের কথা বর্ণনা করতে গিয়ে লেখক যে অসাধারণ বর্ণনাশৈলীর প্রকাশ ঘটিয়েছেন সমগ্র বইতেই তার দেখা পাওয়া যায়। বলেছেন, 'এক সময়ের মরমনপল্লি জায়ন পার্ক এলাকার বিশাল যে খোলা চাতালে আমাদের নামিয়ে দেয় বাস, তার চারপাশে উঁচু খাড়া পাথরের পাহাড়, মরচে ধরা লোহার মতো সেই পাথুরে দেয়ালে যেন বিশাল ছেনি দিয়ে কেউ খোদাই করে রেখেছে নানান ভাস্কর্য।' তারপর মঙ্গোলিয়ার 'দিগন্তবিস্তৃত ঘাসে ঢাকা বৃক্ষবিরল ঢেউখেলানো প্রান্তর'-এর বর্ণনা পাঠককে মঙ্গোলিয়ার জীবনপ্রকৃতির ভেতর দিয়ে ভ্রমণের এক ধরনের অভিজ্ঞতা দেবে।

মঙ্গোলিয়ার স্তেপ তেপান্তরে আদিগন্ত বিশাল চেঙ্গিস খানের ভাস্কর্য দেখার কথাও পাঠককে শিহরিত করবে। ফারুক মঈনউদ্দীনের 'বিশ্বজোড়া অনন্ত অঙ্গনে' ভ্রমণগ্রন্থটিতে এমন শিহরণ আছে অহরহ। সেটা কি তুরস্কের বসফোরাস নদীতে ভাসমান বোটে, কি আমস্টারডামের খালে খালে ভাসমান বাড়িঘরে।

এমএ/ ০৪:০০/ ২৯ জানুয়ারি

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে