Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৯ , ৮ ভাদ্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০১-১২-২০১৯

আমি কোনো বিশেষ জেলা বা জনগোষ্ঠীর মন্ত্রী নই : বীর বাহাদুর

আমি কোনো বিশেষ জেলা বা জনগোষ্ঠীর মন্ত্রী নই : বীর বাহাদুর

বান্দরবান, ১২ জানুয়ারি- পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নবনিযুক্ত মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেছেন, শপথ গ্রহণের পর আমি আর এককভাবে কোনো জেলার মন্ত্রী নই। একটি ধর্ম বা জনগোষ্ঠীতে আমার জন্ম হলেও মন্ত্রী হিসেবে আমি আর কোনো ধর্ম বা জনগোষ্ঠীর মানুষ নই। আমি সব রাজনৈতিক দল, ধর্ম, বর্ণ, সম্প্রদায় এবং সকল শ্রেণী ও পেশার প্রতিনিধি। আমার কাছে সবাই সমান।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে পূর্ণমন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত হওয়ায় শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) বিকেলে বান্দরবান শহরের রাজার মাঠে আয়োজিত সংবর্ধনার জবাবে বীর বাহাদুর এসব কথা বলেন। বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ক্যশৈহ্লা এতে সভাপতিত্ব করেন।

পার্বত্যমন্ত্রী বলেন, বিশেষ কোনো এলাকা নয়, পার্বত্য চট্টগ্রামের যেসব এলাকা উন্নয়নের দিক থেকে পিছিয়ে আছে সেসব এলাকাই হবে তার প্রধান কর্মক্ষেত্র। এসব বক্তব্য শুনে উপস্থিত জনতা মুহূর্মুহু করতালি দিয়ে তাকে অভিনন্দন জানায়।

ব্যাপক জনসমর্থন থাকায় ১৯৯১ সালের নির্বাচনে জাতীয় সংসদের ৩০০ নম্বর বান্দরবান আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হবার পর থেকে ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারির বহুল আলোচিত নির্বাচন ছাড়া সবকটি নির্বাচনে টানা বিজয় ধরে রাখেন তিনি। ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিজয় লাভের পর আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার তাকে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী নিযুক্ত করে। এবার বাঘা বাঘা রাজনৈতিক নেতারা বাদ পড়লেও  পূর্ণমন্ত্রীর মর্যাদায় শেখ হাসিনার মন্ত্রীসভায় তিনি আবারো একই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পান।

এর আগে ১৯৯৮ সালে তাকে উপমন্ত্রীর পদমর্যাদায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান এবং ২০০৯ সালে প্রতিমন্ত্রীর পদমর্যাদায় তাকে আবারো একই দায়িত্ব দেয়া হয়। 

স্থানীয় রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করেন, এসব দায়িত্ব সফলভাবে সম্পাদন করায় এবার তিনি পূর্ণ মন্ত্রীর প্রমোশন পেয়েছেন। 

তবে এবারের সংবর্ধনা আয়োজনে তোরণ নির্মাণকে নিরুৎসাহিত করার জন্যে তিনি সংখ্যা নির্ধারণ করে দেন। সম্বর্ধনা চলাকালে বিভিন্ন এলাকা ও সংগঠনের পক্ষ থেকে শত শত পুষ্পস্তবক নিয়ে আসা হলেও কয়েকটি গ্রহণের পর তিনি অন্যদের বিরত থাকার অনুরোধ জানান এবং সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দিয়ে সভার সমাপ্তি ঘটান। এর আগে বান্দরবান আসার পথে বিভিন্ন পয়েন্টে দাঁড়িয়ে হাজার হাজার জনতা তাকে ফুল ছিটিয়ে অভিনন্দন জানায়। 

এমএ/ ০৯:০০/ ১২ জানুয়ারি

বান্দরবান

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে