Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯ , ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-০১-২০১৯

বাবা হারা সেই শিশুকে দেখতে গেলেন মাশরাফি

বাবা হারা সেই শিশুকে দেখতে গেলেন মাশরাফি

নড়াইল, ০১ জানুয়ারি- কৃতজ্ঞতা ও দায়িত্ববোধের জায়গা থেকে সেই শিশুকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে গেলেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক ও জাতীয় সংসদের সদ্য নির্বাচিত সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা।

নড়াইল-২ আসনে ১৪০টি কেন্দ্রের ঘোষিত ফলাফলে নৌকা প্রতীকে ২ লাখ ৭১ হাজার ২১০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে জয়ী হয়েছেন মাশরাফি।

হাসপাতালে দেখতে যাওয়া শিশুর বাবা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মনিরুজ্জামান মিন্টু নির্বাচনের সময় মাশরাফির ব্যক্তিগত নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন।

নির্বাচনের মাত্র তিন দিন আগে ২৭ ডিসেম্বর হঠাৎ করেই হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান মনিরুজ্জামান। মৃত্যুর সময় তার স্ত্রী সন্তান জন্ম দেয়ার অপেক্ষায় ছিলেন। সন্তানের মুখ না দেখেই দুনিয়া ছেড়ে চলে যান মিন্টু।

নির্বাচনের আগের দিন ২৯ ডিসেম্বর কন্যা সন্তানের জন্ম দেন মনিরুজ্জামানের স্ত্রী। মাশরাফি সেদিন যেতে না পারলেও পাঠিয়েছিলেন তার স্ত্রী সুমনা হক সুমিকে। তার হাত দিয়ে পাঠিয়েছিলেন আর্থিক সহায়তা।

সোমবার রাতে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয়ার আগে হাসপাতালে গিয়ে মনিরুজ্জামানের কন্যা শিশুকে দেখতে যান মাশরাফি। এ সময় নবজাতককে কোলে তুলে আদর করেন মাশরাফি।

গত ২৭ ডিসেম্বর নির্বাচনী প্রচারণাকালে লোহাগড়া উপজেলার দেবী গ্রামে ডিবি পুলিশের এএসআই মনিরুজ্জামান মিন্টু হৃদরোগে আক্রান্ত হন। তাৎক্ষণিকভাবে মাশরাফির গাড়িতে করে লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্ষে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওই সময় মাশরাফি তার প্রচার স্থগিত করে হাসপাতালে ছুটে যান এবং কান্নায় ভেঙে পড়েন।

মনিরুজ্জামান মিন্টুর স্ত্রী রাবেয়া বেগমের সিজারের তারিখ ছিল ২৯ ডিসেম্বর। সিজারের দিন মাশরাফি ব্যস্ততার কারণে উপস্থিত হতে না পারলেও স্ত্রী সুমনা হক সুমি হাসপাতালে ছুটে যান। সেই সঙ্গে মিন্টুর পরিবারকে ১ লাখ টাকা সহযোগিতা করেন। পাশাপাশি জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন আরও ৮০ হাজার টাকার সহযোগিতা করে।

সোমবার রাতে হাসপাতালে ছুটে যান মাশরাফি। সেখানে প্রয়াত মনিরুজ্জামান মিন্টুর কন্যা শিশুর জন্য দোয়া করেন এবং মনিরুজ্জামানের স্ত্রীকে সান্ত্বনা দেন। এ সময় নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিনসহ পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেন, আমি নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে যতটা আনন্দিত হয়েছি, তার চেয়ে বেশি ব্যথিত হয়েছি মনির ভাইয়ের অকাল মৃত্যুতে। দোয়া করি, আল্লাহ যেন মনির ভাইকে জান্নাত নসিব করেন। তার স্ত্রী ও শিশুর জন্য শুভকামনা।

সূত্র : জাগোনিউজ

আর/১১:১৪/০১ জানুয়ারি

নড়াইল

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে