Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২০ , ৫ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.1/5 (107 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১১-১৮-২০১১

টরন্টোর বায়তুল আমান মসজিদ তহবিলের লক্ষাধিক ডলার তসরুফ!

টরন্টোর বায়তুল আমান মসজিদ তহবিলের লক্ষাধিক ডলার তসরুফ!
।। দেশে বিদেশে রিপোর্ট।।
টরন্টোর বায়তুল আমান মসজিদ তহবিলের লক্ষাধিক ডলারের গরমিল পাওয়া গেছে। দেশে বিদেশের কাছে চাঞ্চল্যকর এ তথ্য দিয়েছেন নতুন কমিটির কোষাধক্ষ্য জহিরুদ্দিন এএকএম। তিনি বলেন, ২০০৮ সালে টিডি ব্যাংকে মসজিদের নামে একটি হিসাব খোলা হয়। পরবর্তীতে দুই পক্ষের টানাপোড়নে ঐ হিসাব  ৩০শে সেপ্টেম্বর ২০১০ সালে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ফ্রিজ করে রাখে। পরে নভেম্বরের ৩ তারিখে রয়েল ব্যাংকে আরেকটি হিসাব খোলা হয়। প্রাথমিক অবস্থায় সব ঠিকঠাক থাকলেও গত ডিসেম্বর থেকে ২০১১ সালের মার্চ পর্যন্ত এই একাউন্টে বিরাট ঘাপলা দেখা যাচ্ছে। পূর্বতন কমিটি এই একাউন্টে উল্লিখিত চারমাস কোন অর্থই জমা দেননি। অথচ গড়ে প্রতিমাসে মসজিদের নগদ আয় কমপক্ষে দশ হাজার ডলার। অন্যান্য দেশ থেকে এবং বিভিন্ন সংগঠন থেকেও প্রতিমাসে বেশ কিছু অর্থ আসে। এছাড়া বিভিন্ন খাতে তারা যে খরচ দেখিয়েছেন তা অবিশ্বাস্য।
গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ব্যাংকের হিসাব পরিচালনা করার কথা সভাপতি, সহসভাপতি, কোষাধক্ষ্য ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্য থেকে যে কোন দুইজন। কিন্তু দেখা গেছে প্রায় চেকই সই করেছেন জয়নাল আবদীন (সভাপতি) ও ফজল মাহমুদ (ডাইরেক্টর প্রশাসন)। অনেক চেক তারা ইস্যু করেছেন ক্যাশ হিসেবে। আবার অনেক চেক  নিয়েছেন তারা তাদের নিজ নামে। জহিরুদ্দিন বলেন, বিএমডব্লিউ ফাইন্যান্স নামে একটি প্রতিষ্ঠানকে ঋণ পরিশোধ করা হয়েছে চেকের মাধ্যম অথচ এ প্রতিষ্ঠান থেকে কোন ঋণ আদৌ গ্রহণ করা হয়েছে কিনা পরিচালনা কমিটির কেউ জানেন না। এভাবে বহু অনিয়ম ধরা পড়েছে তাঁর কাছে। তদন্ত করলে লক্ষাধিক ডলারের অনিয়ম বেরিয়ে আসবে বলে তিনি জানান।
এদিকে বায়তুল আমান মসজিদ নিয়ে গত দুই সপ্তাহে পরপর দুটি সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর পূর্বতন কমিটির সভাপতি জয়নাল আবদীন এর প্রতিবাদ জানিয়ে দেশে বিদেশের প্রধান সম্পাদককে একটি ই-মেইল পাঠিয়েছেন। ইমেইলে তিনি লিখেছেন, দেশে বিদেশে বায়তুল আমান মসজিদ সম্পর্কিত সংবাদে ভূল তথ্য পরিবেশন করেছে। তিনি লিখেছেন, সংবাদটি পরিবেশন করার আগে এর সত্যতা সম্পর্কে যথাযথভাবে যাচাই করা হয়নি। এটা একটা মনগড়া তথ্য দিয়ে সাজানো সংবাদ। তিনি আরও লিখেছেন, মামলা বাবদ ৩৭ হাজার ডলার খরচের বিষয়টিও সঠিক নয়। তাঁর ভাষ্য মতে আদালত নতুন কমিটিকে বলেছে তাকে এই অর্থ ফেরত দেয়ার জন্য।
নতুন কমিটিকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করলে সভাপতি আবু তাহের নুরী বলেন, জয়নাল যে হিসেব দিয়েছেন সেখানে তিনি মসজিদের তহবিল থেকে ৩৭ হাজার ডলার মামলা বাবদ খরচ করেছেন বলে দেখিয়েছেন। তিনি বলেছেন এটা ফেরত দেয়া হবে (reimbursement)। যেহেতু তিনি মসজিদ তহবিল থেকে এ পরিমাণ অর্থ নিয়ে খরচ করেছেন সেহেতু তিনি এই অর্থ মসজিদের ফান্ডে ফেরত দেবেন এটাই স্বাভাবিক। আদালত এই অর্থ তাকে ফেরত দেয়ার কোন নির্দেশ আমাদের দেয়নি। তিনি বলেন, আমরাও এ মামলায় প্রায় পঞ্চাশ হাজার ডলার খরচ করেছি এবং সব অর্থ আমরা আমাদের পকেট থেকে দিয়েছি। জয়নাল যদি মসজিদের মতো পবিত্র প্রতিষ্ঠানের অর্থ নিয়ে এ ধরনের খেলা খেলেন আমরা ছাড় দেবো না। এটা জনগনের অর্থ। যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে আমরা এর ব্যবস্থা নেবো।
কোষাধক্ষ্য জহিরুদ্দিন বলেন, আমরা মসজিদের হিসাবে স্বচ্ছতা আনতে চাই। এজন্যে আমরা একটি অডিট কোম্পানীর মাধ্যমে মসজিদের প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকে এ পর্যন্ত যত লেনদেন হয়েছে তারা যথাযথ একটি রিপোর্ট তৈরি করবো। কোন অনিয়ম পাওয়া গেলে, এবং যাদেরকে সংশ্লিষ্ট পাওয়া যাবে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। মামলা বাবদ আমরা মসজিদের কোন অর্থ খরচ করিনি এবং ভবিষ্যতেও আইনানুগ কোন ব্যবস্থা নিতে আমরা মসজিদ তহবিলের কোন অর্থ খরচ করবো না। মসজিদকে যারা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হিসেবে চালাতে চাইছিলেন, মসজিদে দানকৃত অর্থ নিয়ে যারা নয়ছয় করেছেন তাদের কাউকে ছেড়ে দেয়া হবে না। আমরা দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে চাই। এবং ভবিষ্যতে কোথাও কেউ মসজিদের ফান্ড নিয়ে যাতে ঘাপলা না করতে পারে সেজন্য ঘাপলাকারীদের মুখোশ উন্মোচন করতে চাই।
মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য বাদল জানালেন, গত শুক্রবার থেকে মসজিদে মুসল্লীদের সংখ্যা বেড়ে গেছে। এতদিন অনেকেই সুস্থ পরিবেশ ছিল না বিধায় আসতেন না। এখন তারা আসা শুরু করেছেন। তিনি বলেন, আমরা শীঘ্রই মসজিদকে ঋণমুক্ত করতে পারবো।

পাঠক এবং মসজিদ সংশ্লিষ্ট সকলের অবগতির জন্য জয়নাল আবদীন প্রেরিত ইমেইলটি তুলে ধরা হলো-

Wrong messages at Deshe Bideshe for Baitul Aman Masjid

Joinal Abdin
Nov 13         
 
to editor
 
Dear Nazrul Bhai,
Assalamu alayikum.
I am protesting against your two recent news published at Deshe Bideshe for Baitul Aman Masjid....
The news is full of lies and fabricated messages which are not near to the true picture of Baitul Aman Masjid. Either you do not know the real story or you were bomb busted with manipulated statements....
The recent one for $37,000.00 of Masjid money used for legal expenses.
Just for your clarifications I would like to bring to your attention that one of the items I had mentioned in my hand over note on November 8, 2011 as `Legal costs $37,000.00 for reimbursement'. It means $37,000.00 of the legal costs has to be reimbursed (paid back to me) by the new board as per court order.
.... I need your full cooperation in this matter. In the future, if you approached by someone for Baitul Aman Masjid, I urge you to contact me through my email or my home number (with voice message) so that I can Insha Allah give you right information for the better interest of our Masjid. ...


জয়নাল আবদীন প্রেরিত উল্লিখিত ইমেইলটি হস্তগত হওয়ার পর দেশে বিদেশের প্রধান সম্পাদক ঐদিনই তাঁকে ধন্যবাদ জানিয়ে সহযোগিতা করার জন্য একটি ইমেইল প্রেরণ করেন।

Dear Mr. Abdin,

Thank you for your response. In early November, we conducted interviews to collect information about Baitul Aman Masjid. We attempted to contact you and Mr. Fazal. Neither of you responded. We spoke to many other founding members, regular attenders, and the local community. Based on their information (we recorded), we published the said news. The following week, we published another news based on the new board members. It is unfortunate that you do not agree with what we have published on our website, however, we did try to contact you. We do not know you or most of the founding members personally. We had no intentions to harm your or anyone's reputations whatsoever. Deshe Bideshe does not want to publish any article that is false or biased. If you think that this news was misleading, please, we invite you to sit down with us and help us publish the truth.

Furthermore, we have some more information related to you and your organization. Before we publish this, we would very much like to verify this information with you. We hope you will cooperate with us. Please let us know when you are available.

Thank you,

উল্লেখ্য, এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত জয়নাল আবদীন দেশে বিদেশের সাথে যোগাযোগ করেননি।

(শীঘ্রই বায়তুল আমান মসজিদের সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনে ভূয়া ভোটারদের তালিকা প্রকাশিত হবে। চোখ রাখুন দেশে বিদেশের পাতায়।)

কানাডা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে