Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯ , ২৮ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-০২-২০১৩

দেশে ঋণ খেলাপি এক লাখ: মুহিত


	দেশে ঋণ খেলাপি এক লাখ: মুহিত

ঢাকা, ২ জুলাই- ২০১৩ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত দেশের সরকারি-বেসরকারি ব্যাংকগুলোর প্রায় এক লাখ ঋণগ্রহীতা খেলাপি হয়েছেন বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে আওয়ামী লীগের সাংসদ আহমেদ নাজমীন সুলতানা ও অপু উকিলের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান তিনি।
 
মুহিত বলেন, ‘রাষ্ট্রায়ত্ত চার ব্যাংকে ঋণ খেলাপির সংখ্যা ২৩ হাজার ৩৪৭ জন। সোনালী, রূপালী, অগ্রণী ও জনতা ব্যাংকে মার্চ পর্যন্ত খেলাপি ঋণের পরিমাণ ছিল পরিমাণ ২৪ হাজার ৪০৩ কোটি ১১ লাখ টাকা। আর ওই সময় পর্যন্ত আদায় হয়েছে এক হাজার ৩২১ কোটি ৭৩ লাখ টাকা। আর বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মোট ৭৬ হাজার ৩৩১ জন ঋণগ্রহীতা খেলাপি হয়েছেন।’
 
অপু উকিলের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘সরকারি ব্যাংকগুলোয় ঋণ খেলাপির সংখ্যা ২৩ হাজার ৩৪৭। সোনালী ব্যাংকের ঋণ খেলাপির সংখ্যা ছয় হাজার ৪৬৮টি। জনতা ব্যাংকের চার হাজার ৪৫৬, অগ্রণী ব্যাংকের আট হাজার ৫৫৭ ও রূপালী ব্যাংকের তিন হাজার ৮৬৬।’
 
তিনি বলেন, ‘বেসরকারি ব্যাংকগুলোতে পূবালী ব্যাংকে চার হাজার ৭৪৯ জন, উত্তরা ব্যাংকে এক হাজার ৬৫৬ জন, এবি ব্যাংকে এক হাজার নয় জন, আইএফআইসি ব্যাংকে এক হাজার ১৪০ জন, ইসলামী ব্যাংকে এক হাজার ৭৬৩ জন, এনবিএলে ৯০৭ জন, সিটি ব্যাংকে ছয় হাজার ৬৫৪ জন, ইউসিবিএলে চার হাজার ৮৫২ জন ও আইসিবি ইসলামিক ব্যাংকে ৭৪১ জন ঋণগ্রহীতা খেলাপি হয়েছেন।’
‘এছাড়া ইবিএলের চার হাজার ১৪৪ জন গ্রহীতা, এনসিসিবিএলের ৬২২ জন, প্রাইম ব্যাংকের দুই হাজার ৩৫ জন, সাউথ-ইস্ট ব্যাংকের ৫৫৯ জন, ঢাকা ব্যাংকের দুই হাজার ৫৫৬ জন, আল আরাফা ইসলামী ব্যাংকের ২১০ জন, সোশাল ইসলামী ব্যাংকের ৩৫৯ জন, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের ৬১৪ জন, মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ১১ শ’ গ্রাহক, ওয়ান ব্যাংকের ৯২৬ জন, এক্সিম ব্যাংকের ৩৪১ জন, প্রিমিয়ার ব্যাংকের এক হাজার ৩৬৫ জন,  ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের ১০৪ জন, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের ৬০ জন, মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ১১৬ জন, ট্রাস্ট ব্যাংকের ৪৭৮ জন, ব্যাংক এশিয়ার এক হাজার ৮৪১ জন, বিসিবিএলের ৬৫৭ জন, যমুনা ব্যাংকের ১৪৫ জন, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের ১৮৮ জন ও ব্র্যাক ব্যাংকের ৩৪ হাজার ৪৪৫ জন ঋণগ্রহীতা খেলাপি হয়েছেন।’
 
মুহিত জানান, বাংলাদেশে কার্যক্রম চালানো বিদেশি ব্যাংকগুলোর ঋণ খেলাপির সংখ্যা ১০ হাজার ২৫২ জন। এছাড়া বিশেষায়িত চারটি ব্যাংকের ১৮ হাজার ৮২৮ জন গ্রাক ঋণ নিয়ে খেলাপি হয়েছেন।
 
অর্থাৎ গত মার্চ পর্যন্ত দেশে ঋণ খেলাপির সংখ্যা ছিল সব মিলিয়ে ৯৯ হাজার ৬৭৮ জন। আর ঋণ খেলাপের অভিযোগে মোট ২৬ হাজার ৫৭৯টি মামলা বর্তমানে বিচারাধীন।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে