Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯ , ২৮ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.7/5 (48 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-০২-২০১৩

মারা গেলেন বুয়েট শিক্ষার্থী দীপ


	মারা গেলেন বুয়েট শিক্ষার্থী দীপ

ঢাকা, ২ জুলাই- হেফাজতে ইসলাম কর্মীদের হামলার শিকার বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র আরিফ রায়হান দীপ (২৪) মারা গেছেন। 

দীর্ঘ তিন মাস মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে সোমবার রাত সাড়ে ৩টার সময় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসারত অবস্থায় তিনি মারা যান।
 
বুয়েট ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি তন্ময় আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
 
মঙ্গলবার সকালে বুয়েটের প্রশাসনিক ভবনের সামনে দীপের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় বুয়েটের উপাচার্য, দ্বীপের বাবা, বুয়েটের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।
 
জানাজা শেষে মরদেহ দীপের গ্রামের বাড়ি পিরোজপুরের নাজিরপুরের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার দাফন করা হবে বলে জানা গেছে।
 
বুয়েটের কবি নজরুল ইসলাম হলের ২২৪ নং কক্ষের আবাসিক ছাত্র ছিলেন দীপ। গত ৯ এপ্রিল সকাল সাড়ে এগারোটার দিকে আবাসিক হলের নিজ কক্ষে দুর্বৃত্তের চাপাতির কোপে মারাত্মকভাবে আহত হন এই ছাত্র। চাপাতির কোপ তার মাথা, বাম চোখসহ গালে আঘাত হানে। তার পিঠেও চাপাতির কোপ পড়ে। 
 
সহপাঠীরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য দীপকে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাম্বুলেন্সে করে স্কয়ার হাসপাতালে আনা হয়। সেখানে গত তিন মাস অচেতন অবস্থায় চিকিৎসাধীন ছিলেন এই শিক্ষার্থী।
 
দীপের সহপাঠীরা জানান, হামলাকারী পাঞ্জাবি পরিহিত ছিলেন। হলে দীপের পাশের রুমের বাসিন্দা বুয়েট ছাত্র তন্ময় জানান, ইতিপূর্বেও ফেসবুক মারফত দীপকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছিলো। 
 
এ ঘটনায় বুয়েটের শিক্ষার্থীরা আন্দোলন শুরু করে বুয়েটের প্রবেশ পথগুলোতে তালা দিয়ে দেন এবং ৯ দিন ক্লাস ও পরীক্ষা বন্ধ থাকে। 
 
ঘটনার দিনই বুয়েটের নজরুল ইসলাম হলে ঘটনাস্থল থেকে একটি ব্যাগ উদ্ধার করা হয়ে। ব্যাগের ভেতরে পাঞ্জাবি, পায়জামা ও একটি চাপাতি এবং তার ক্রয় রশিদ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গত ১৭ এপ্রিল মেজবাহউদ্দীন নামে বুয়েটেরই আরেক ছাত্রকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। মেজবাহ বুয়েটের স্থাপত্য প্রকৌশল বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র।
 
জিজ্ঞাসাবাদের সময় মেজবাহউদ্দীন দীপকে কুপিয়েছেন বলে স্বীকার করেছেন বলে জানায় গোয়েন্দা পুলিশ।
 
মেজবাহ নিজেকে হেফাজতে ইসলামের কর্মী বলে দাবি করেন।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে