Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ , ২ আশ্বিন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.2/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১১-১৬-২০১১

তত্ত্বাবধায়ক নিয়ে সংলাপ জরুরি: বান কি মুন

তত্ত্বাবধায়ক নিয়ে সংলাপ জরুরি: বান কি মুন
ঢাকা, ১৫ নভেম্বর: তত্ত্বাবধায়ক সরকার ইস্যু নিয়ে রাজনীতিবিদদের সংলাপে বসা জরুরি বলে মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীর সোনারগাঁওয়ে এক প্রেস কনফারেন্সে তিনি এ মন্তব্য করেন। তিনদিনব্যাপী বাংলাদেশ সফরের শেষদিন মঙ্গলবার এ প্রেস কনফারেন্সের আয়োজন করা হয়।
তিনি মনে করেন, যেকোনো ধরনের রাজনৈতিক সমস্যা নিরসনে সংলাপই হতে পারে সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য ও কার্যকর পথ। রাজনীতিবিদদের সংলাপের মাধ্যমে তত্ত্বাবধায়ক সমস্যা সমাধানের আহ্বান জানান জাতিসংঘ মহাসচিব।
বাংলাদেশ চাইলে ২০১৪ সালে একটি সুষ্ঠু সুন্দর ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে সহায়তা দেবে জাতিসংঘ।
তিনি বলেন, ?চলতি শতাব্দীতে বাংলাদেশ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নতি লাভ করলেও গণতন্ত্রের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বিস্ময়কর উন্নতি ঘটেছে।?
বাংলাদেশে ২০০৮ সালের নির্বাচন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে হয়েছে এবং বর্তমান ক্ষমতাসীন সরকার সে পদ্ধতি বাতিল করায় প্রধান বিরোধীদল নির্বাচন বয়কটের যে আগাম ঘোষণা দিয়েছে- এক্ষেত্রে গণতন্ত্রের উন্নয়নের ব্যাখা কী জানতে চাইলে তিনি জানান, ?যেহেতু এটি বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়, তাই সে বিষয়ে কোনো মন্তব্য আমি করতে চাই না। তবে এদেশের রাজনীতিবীদদের কাছেই এর সমাধান রয়েছে বলে আমি মনে করি।?
তিনি বলেন, ?বাংলাদেশ চাইলে জাতিসংঘ ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিতব্য সাধারণ নির্বাচনে সব ধরনের টেকনিক্যাল সহায়তা দেবে।?
জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী মিশনে বাংলাদেশের বিরাট ভূমিকা থাকলেও কেন জাতিসংঘের নীতি নির্ধারণী ফোরামে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব নেই- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ?বাংলাদেশ জাতিসংঘ শান্তি মিশনের এক নম্বর সদস্য দেশ যারা অত্যন্ত দক্ষতা আর সাহসিকতার সঙ্গে বিভিন্ন দেশে শান্তি প্রতিষ্ঠায় কাজ করছে।?
তিনি বলেন, ?জেনারেল হাফিজসহ বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা জাতিসংঘের শন্তি মিশনের উচ্চ পর্যায়ে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করছে।?
জাতিসংঘ মহাসচিব বলেন, ?আমি এই সফরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়াসহ বিভিন্ন নীতিনির্ধারণী ব্যক্তিদের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে ফলপ্রসূ আলোচনা করেছি। এদেশের শিশুদের সঙ্গেও সময় কাটিয়েছি।?
তিনি বলেন, ?বাংলাদেশের শিক্ষাখাতে উন্নয়ন কাজ অনেক গতিশীল হলেও স্বাস্থ্যখাতে এখনো আকাঙ্ক্ষিত উন্নয়ন আসেনি।?
জলবায়ু ক্ষতির দিক থেকে বাংলাদেশ সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে উল্লেখ করে বান কি মুন বলেন, ?জাতিসংঘ বাংলাদেশের সহায়তায় সবসময় পাশে আছে এবং থাকবে।?
সিরিয়াতে বেসামরিক লোক হত্যা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ?আরব লিগ ইতিমধ্যে দেশটির এ অনৈতিক কাজের ব্যাপারে পদক্ষেপ নিয়েছে। ভবিষ্যতে জাতিসংঘ ভেবে দেখবে তার কী করা উচিত।?
এছাড়া লিবিয়ার বর্তমান পরিস্থিতি নিয়েও কথা বলেন তৃতীয়বারে বাংলাদেশ সফরে আসা জাতিসংঘের মহাসচিব।
বাংলাদেশের আতিথেয়তার প্রশংসা করে তিনি বলেন, ?আমি চাই সর্বক্ষেত্রে এ দেশটির আরো উন্নয়ন হোক।? এ সময় তিনি বাংলায় ?খোদা হাফেজ?, ?ধন্যবাদ? এবং ?আবার দেখা হবে? বলে তার বক্তব্য শেষ করেন।
তিন দিনের সফর শেষে তিনি বুধবার সকালে বাংলাদেশ ত্যাগ করবেন জাতিসংঘের মহাসচিব।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে