Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ২০ জুলাই, ২০১৯ , ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (30 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৬-১৯-২০১৩

প্রকাশ্যে আসার সিদ্ধান্ত নিলেন ধর্ষিতা নারী


	প্রকাশ্যে আসার সিদ্ধান্ত নিলেন ধর্ষিতা নারী

কলকাতা, ১৯ জুন- ভারতে পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় গত বছর গণধর্ষণের শিকার এক নারী ব্যতিক্রমী পদক্ষেপ নিয়ে প্রকাশ্যে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বিবিসি বাংলা বুধবার অনলাইনে এই খবর প্রকাশ করেছে।

গণধর্ষণের শিকার সুজেট জর্ডন বিবিসিকে বলেছেন, আমি তো কোনও দোষ করিনি, তাহলে আমি কেন লজ্জা পাব? বরং যারা আমার সঙ্গে এত বড় অপরাধ করেছে তাদের তো লজ্জা পাওয়া উচিত!
 
সুজেট জর্ডন ২০১২ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি সুজেট জর্ডন কলকাতার প্রাণকেন্দ্রে একটি চলন্ত গাড়িতে গণধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন।
 
সুজেট জর্ডনকে ধর্ষণের সাঙ্ঘাতিক মানসিক চাপ কাটিয়ে উঠে নিজের পরিচয় প্রকাশ করার মতো গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করেছেন, নির্যাতিতা নারীদের একটি সাহায্য কেন্দ্রের প্রধান শান্তশ্রী চৌধুরী।
 
শান্তশ্রী চৌধুরী বিবিসিকে বলেন 'বিচারব্যবস্থায় দেরির কারণে ধর্ষিতা বা নির্যাতিত নারীদের ওপরে আরও মানসিক চাপ বাড়ায়, কিন্তু ধর্ষণকারীরা জামিন পেয়ে যান, দ্রুত বিচারের জন্য ফার্স্ট ট্র্যাক কোর্টের প্রয়োজন।
 
নিচুতলার পুলিশ কর্মীদের আরও সচেতন, আরও সংবেদনশীল করে তোলার দরকার জানিয়ে তিনি বলেন অনেক সময়েই নিচুতলার পুলিশকর্মীদের সচেতনতার অভাবে, তাঁদের গাফিলতিতে চার্জশিটে ভুল থাকে, অর্ধসমাপ্ত চার্জশিট দেওয়া হয়ে থাকে। অভিযুক্তদের আইনজীবীরা তো সেইসব আইনি ফাঁকই খুঁজতে থাকেন।'
 
একবছর পার হলেও এই ধর্ষণের বিচার শেষ হয় নি। মামলাটিতে চার্জশিট দেওয়া হয়েছে ঘটনার এক বছর পরে আর অতি সম্প্রতি  জর্ডনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে।
 
মামলার বিলম্ব হওয়া প্রসঙ্গে মিস জর্ডনের প্রাক্তন আইনজীবী অনির্বাণ গুহঠাকুরতা বিবিসিকে বলেন, “ওই মামলার দুই প্রধান অভিযুক্ত পলাতক ছিল। তাই চার্জ গঠনের প্রক্রিয়াতেই অনেক দেরি হয়। এছাড়াও যে তিনজন ধরা পড়েছিল, তারা বারবার জামিনের আবেদন জানাতে থাকে – হাইকোর্ট, সুপ্রিম কোর্ট অবধিও গিয়েছিলেন ওঁরা। আর জামিনের আবেদন করলে সব নথি উচ্চ আদালতে পাঠাতে হত। মামলাটায় দেরি হওয়ার এটা একটা কারণ।"
 
তিনি আরও বলেন, 'এছাড়া ভারতের বিচারব্যবস্থায় সব মামলাই তো বিলম্বিত হয়। সেই সব কারণগুলোও তো মিস জর্ডনের মামলার ক্ষেত্রেও দেরি ঘটিয়েছে।'
 
গত বছরের শেষে ভারতের রাজধানী দিল্লীতে এক কলেজ ছাত্রীকে চলন্ত বাসে গণধর্ষণ ও হত্যার ঘটনার পরে দেশ জুড়ে যে তীব্র প্রতিবাদ উঠেছিল ও ব্যাপক বিক্ষোভ চলেছিল, তারপরে কীভাবে মহিলা নির্যাতনের বিচার দ্রুত শেষ করা যায়, তা নিয়ে চর্চা করেছিলেন রাজনীতিবিদরা।

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে