Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৮-২৭-২০১৮

ত্বক সুন্দর করতে চন্দন গুড়ার প্যাক বানাবেন যেভাবে

ত্বক সুন্দর করতে চন্দন গুড়ার প্যাক বানাবেন যেভাবে

চারদিকে পরিবেশ দূষণ আর অতি মাত্রায় ভেজাল খাদ্য দ্রব্যের কারণে ত্বকসহ শরীরে নানান সমস্যা দেখা দেয়। মুখে ব্রণ, গাঢ় দাগ, এবং ব্ল্যাকহেডের সমস্যা তো লেগেই আছে। তাই মুখের সজীবতা ধরে রাখতে স্যান্ডালউড বা চন্দনকাঠ আয়ুর্বেদিক প্রাকৃতিক উপাদান যা আপনার ত্বকের যত্ন নেয়। সাধারণত পাউডার হিসাবেই পাওয়া যায় এই সুগন্ধী উপাদানটি। চন্দন কাঠে তেল বিভিন্ন রোগের চিকিৎসার জন্য দারুণ কাজে দেয়।

আসুন জেনে নেয়া যাক চন্দনের নানান উপকার:

১.ট্যান কমাতে সাহায্য করে

সূর্যের ক্ষতিকর অতি বেগুনি রশ্মি থেকে নিজেকে বাঁচাতে চন্দনের তেল খুবই উপকারী ভূমিকা পালন করে থাকে।

২. ব্রণ বা প্রদাহ জনিত বৈশিষ্ট্য বা সূর্যের তাপে সৃষ্ট কোন ধরণের জ্বালাপোড়া কমাতে সাহায্য করে। চন্দন কাঠের তেল পোকামাকড়ের কামড় বা অন্য কোনো ত্বকের ক্ষতি থেকে বাঁচতে ব্যবহার করা যেতে পারে।

৩.ত্বকের অ্যালার্জি কমায়

চন্দন কাঠ স্কিন প্রোটিনের মাত্রা বাড়ায় যার ফলে ত্বকের যেকোন ব্রেকআউট, অ্যালার্জি বা জ্বালাপোড়া থেকে রক্ষা করে। এটি আপনার ত্বকের নরম টিস্যুকে সংকোচনের সৃষ্টি করে এবং আপনার ত্বকের ছিদ্রকে শক্ত করে তোলে। এ কারণেই অনেকেই ফেসপ্যাকগুলোতে বা টোনারগুলোতে চন্দন কাঠ ব্যবহার করেন।

চন্দন কাঠ স্কিন প্রোটিনের মাত্রা বাড়ায়, ত্বকের সমস্যা থেকে আরাম দেয়

৪. অ্যান্টি-সেপটিক হিসাবে ব্যবহৃত হয়

স্যান্ডালউডে আছে অ্যান্টি-সেপটিক উপাদান যা ব্রণ দাগ ইত্যাদি কমায়। ধুলো এবং ময়লা থেকে আপনার ত্বকে যে ব্যাকটেরিয়া বৃদ্ধি পায়, মুখে দুধের সাথে চন্দনগুঁড়ো মিশিয়ে প্রয়োগ সত্যিই উপকার পেতে পারেন।

স্যান্ডালউড ফেস প্যাক বাড়িতেই বানানঃ

১. ব্রণ এবং ব্ল্যাকহেড অপসারণের জন্য

এক টেবিল চামচ চন্দন তেলে এক চিমটি হলুদ এবং কর্পূর মেশান। এই প্যাক সারা মুখে লাগান। ব্রণ, দাগ এবং ব্ল্যাকহেডস থেকে মুক্তি পেতে সারারাত রেখে দিন মুখে। এছাড়া, ১ টেবিল চামচ চন্দনগুঁড়ো, ১ চা চামচ নারকেল তেল এবং সামান্য লেবুর রস মিশিয়ে মুখে প্রয়োগ করতে পারেন, আধ ঘন্টা পর হালকা গরম জলে ধুয়ে নেবেন।

২. ত্বক নরম করার জন্য

আপনার মুখে চন্দন কাঠের তেল দিয়ে আলতো করে ম্যাসাজ করুন।সারারাত রেখে দিয়ে সকালে হালকা গরম জলে ধুয়ে নিন।

৩.রোদে পোড়া চামড়ার জন্য

এক টেবিল চামচ শশার রস, এক টেবিল চামচ দই, এক চা চামচ মধু, আর সামান্য লেবুর রসে এক টেবিল চামচ চন্দনগুঁড়ো মিশিয়ে ফেস মাস্ক হিসেবে লাগান। প্রায় ১৫ মিনিট রেখে দিন। সূর্যের ট্যান কমাতে সাহায্য করতে এটি কাজ করে।

৪. কালো ছোপ দূর করে

১ টেবিল চামচ চন্দনগুঁড়োর সাথে নারকেল তেল মেশান এবং আপনার সারামুখে এটি ম্যাসাজ করুন।সারারাত রেখে দিন।নিয়মিত ব্যবহারের সাথে সাথেই গাঢ় দাগগুলো কমে যাবে।

টেবিল চামচ চন্দনগুড়ো এবং নারকেল তেল মিশিয়ে মুখে ম্যাসাজ করুন

৫. তৈলাক্ত ত্বকের জন্য

কয়েক ফোঁটা গোলাপ জলে চন্দনগুঁড়ো মিশিয়ে সারামুখে লাগান। এরপরে আধঘণ্টা রেখে ঠাণ্ডা পানিতে ধুয়ে নিন।

চন্দনগুড়ো আপনার সৌন্দর্য এবং সুন্দর, পরিষ্কার ত্বকের জন্য সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য উপাদান।আপনিও এই ঘরোয়া ফেস প্যাক দিতে পারেন।

সূত্র:  একুশে টেলিভিশন
এইচ/২৩:২৮/২৭ আগস্ট 

রূপচর্চা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে