Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ , ২৯ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.1/5 (66 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৫-১৫-২০১৩

মহাসেনের খবর অজানা, শতাধিক ট্রলার সমুদ্রে!


	মহাসেনের খবর অজানা, শতাধিক ট্রলার সমুদ্রে!

বাগেরহাট, ১৫ মে- বাগেরহাট ও পিরোজপুরের শতাধিক ট্রলার গভীর সমুদ্রে অবস্থান করছে। এসব ট্রলারের জেলেরা এখনও জানেন না মহাসেন ঘূর্ণিঝড় ধেয়ে আসছে!

মোবাইল ফোনের নেটওয়ার্কের সমস্যার কারণে এসব জেলেদের কাছে ঝড়ের খবর পৌঁছানো সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন বাগেরহাট উপকূলীয় মৎস্যজীবী সমিতি সভাপতি শেখ ইদ্রিস আলী।

এদিকে, মঙ্গলবার সকাল থেকেই আকাশ মেঘে ঢাকা। নামছে বৃষ্টি। যেকারণে চরম আতঙ্কে রয়েছে এখনও সমুদ্রে থাকা জেলে পরিবারগুলোর সদস্যরা।

সিডর ও আইলা বিধ্বস্ত উপকূল জেলা বাগেরহাটে এবার ঘূর্ণিঝড় মহাসেন আতঙ্কে দিশেহারা হয়ে পড়েছে উপকূলবাসী। মহাসেন ধেয়ে আসছে জেনে অসহায় ও দরিদ্র মানুষ সোমবার রাতে বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন।

আবার অনেকে ঘূর্ণিঝড়ের কোনো আগাম বার্তা পায়নি বলে অভিযোগ করেছেন। মঙ্গলবার সকালে বাগেরহাট উপকূলের বিভিন্ন মৎস্য বন্দরে মাছ ধরা ট্রলার নিরাপদ আশ্রয় নিয়েছে।

বাগেরহাট সদর উপজেলার রাধাবল্লভ গ্রামের পিয়ারা বেগম (৫৫) বলেন, “টিভিতে সংবাদ শুনে আমার মেয়ে ও নাতিদের নিয়ে একটি পাকা ভবনে আশ্রয় নিয়েছি।”

এদিকে, যেকোনো সময় ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানতে পারে এমন আশঙ্কায় বাগেরহাট জেলায় ২০১টি সাইক্লোন শেল্টার, ১১টি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে ও ৮৫টি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সব কর্মকর্তা ও কর্মচারীর ছুটি বাতিল বলবৎ থাকবে বলে জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন।

বাগেরহাট উপকূলীয় মৎস্যজীবী সমিতি সভাপতি শেখ ইদ্রিস আলী জানান, মঙ্গলবার সকালে বাগেরহাট উপকূলের বিভিন্ন মৎস্য বন্দরে মাছ ধরা কয়েক’শ ট্রলার নিরাপদ আশ্রয় নিতে শুরু করেছে। তবে, গভীর সমুদ্রে থাকা মাছ ধরা অনেক ট্রলারের জেলেরা ঝড়ের খবর পাননি। গভীর সমুদ্রে অবস্থানরত ট্রলারগুলি মোবাইল নেটওর্য়াকের কারণে সংবাদ দেওয়া সম্ভব হয়নি। যারা সংবাদ পেয়েছে তারা ইতোমধ্যে নিরাপদে আশ্রয় নিয়েছেন।

বাগেরহাট জেলা প্রশাসক মু. শুকুর আলী জানান, প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। দুর্যোগ মন্ত্রণালয় থেকে বাগেরহাট জেলার জন্য ইতোমধ্যে ১শ মেট্রিক টন চাল ও ৩ লাখ টাকা বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে।

বাগেরহাট সিভিল সার্জন ডা. বাকির জানান, স্বাস্থ্য বিভাগ ইতোমধ্যে তিনটি বিশেষজ্ঞ দলসহ ৮২টি মেডিকেল দল গঠন করা হয়েছে।

পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. আমির হোসেন চৌধুরী জানান, ঘূর্ণিঝড় মহাসেন আঘাত হানার আশঙ্কায় ইতোমধ্যে ছোট ছোট ক্যাম্পের বনরক্ষীদের রেঞ্জ অফিসগুলোতে চলে আসতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে