Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.1/5 (105 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১১-০৬-২০১১

১ লাখ ডলার ব্যয়। পুলিশ পাহারায় আদালতের মাধ্যমে নির্বাচন অবশেষে টরন্টোর বায়তুল আমান মসজিদ পরিচালনা কমিটি গঠিত

১ লাখ ডলার ব্যয়। পুলিশ পাহারায় আদালতের মাধ্যমে নির্বাচন
অবশেষে টরন্টোর বায়তুল আমান মসজিদ পরিচালনা কমিটি গঠিত
।। দেশে বিদেশে রিপোর্ট।।
প্রায় এক লাখ ডলার উজাড় করার পর অবশেষে পুলিশ প্রহারার মধ্য দিয়ে আদালত মধ্যস্থতাকারী একটি প্রতিষ্ঠানকে টরন্টোর বায়তুল আমান মসজিদ পরিচালনা কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠান পরিচালনার দায়িত্ব অর্পন করে। মাত্র ৫৪ জন ভোটারের জন্য এ ব্যাপক আয়োজন দেখে টরন্টো বাংলাদেশ কমিউনিটির সদস্যরা স্তম্ভিত। অনেকেরই প্রশ্ন মসজিদের মতো পবিত্র স্থানে কি হচ্ছে এসব!
গত ৩০শে অক্টোবর টরন্টোর ড্যানফোর্থ-ভিক্টোরিয়া পার্কের সন্নিকটস্থ বাংলাদেশীদের উদ্যোগে স্থাপিত বায়তুল আমান মসজিদ পরিচালনা কমিটির নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচনে বিজয়ী ৭ সদস্য বিশিষ্ট পরিচালনা কমিটির নাম আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হয়। ফলাফল ঘোষণার পর গত ২রা নভেম্বর নবনির্বাচিত কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সর্বসম্মতিক্রম আবু তাহের নুরী- সভাপতি, মোহাম্মদ শাজাহান উদ্দিন-সহ সভাপতি, খালেদ মামুন- সাধারন সম্পাদক, মোহাম্মদ জাহিদুর রহিম পরিচালক (প্রশাসন), জহিরুদ্দিন একেএম-কোষাধক্ষ্য, মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির সহ- সাধারন সম্পাদক এবং আকিল আহমদকে-সহকারি কোষাধক্ষ্য মনোনীত করা হয়।
উল্লেখ্য, এ নির্বাচন নিয়ে বহু টাল-বাহানা এবং ঘটনা-অ-ঘটনার এক পর্যায়ে বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। প্রায় দশমাস ধরে কয়েক দফা শুনানী শেষে সুপিরিয়র কোর্ট অব জাষ্টিস এর বিচারক কুইগলি- স্ট্রেন কোহেন এলএলপি নামক একটি প্রতিষ্ঠানকে এ নির্বাচন তত্ববধানের দায়িত্ব প্রদান করেন। অবশেষে উল্লিখিত প্রতিষ্ঠানের তত্বাবধানে শান্তিপূর্ণভাবে একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। গত ১লা নভেম্বর আদালত নির্বাচিত কমিটির কাছে দায়িত্ব অর্পণ করার জন্য পূর্বতন কমিটিকে নির্দেশ প্রদান করে। জানা যায়, পরিচালনা কমিটির এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কেবল আইনজীবীর পেছনে দুই পক্ষের লক্ষাধিক ডলার খরচ হয়েছে।
বিভিন্ন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, পূর্বেকার পরিচালনা কমিটির সভাপতি জয়নাল আবদীন এবং পরিচালক (প্রশাসন) ফজল মোহাম্মদের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার, স্বজনপ্রীতি, হিসাবসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ এলে মসজিদের প্রতিষ্ঠাকালীন পরিচালকদের বৃহদাংশ এর প্রতিবাদ করেন। এক পর্যায়ে মসজিদের প্রধান উদ্যোক্তা-ইমাম মোহাম্মদ কামরুজ্জামানকে ইমামতি থেকে সরিয়ে দেয়ার জন্য ষড়যন্ত্র শুরু হয় (যদিও তিনি পরিচালনা কমিটিতে ছিলেন না)। এসময় ইমামের বিরুদ্ধে নানা কুৎসা রটনা করে ড্যানফোর্থ এলাকায় ফ্লায়ারও বিলি করা হয় এবং পরবর্তিতে তাকে অসম্মান করে মসজিদ থেকে বিতাড়িত করা হয়। এ ঘটনাসহ অ-গঠণতান্ত্রিক কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করতে গেলে মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা-সদস্য আরিফুর রহমান সারওয়ার, শাহজাহান উদ্দিন, মোহাম্মদ আব্দুল ওয়হিদ, খালেদ মামুন ও নুরুল আলমকে চক্রান্ত করে নানা অজুহাতে কমিটি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয় (মসজিদ প্রতিষ্ঠাকালীন সাত সদস্যের মধ্যে এরা পাঁচজন)। সূত্র জানায়, চক্রান্ত ফলপ্রসু করতে জয়নাল এবং ফজল অনিময়তান্ত্রিকভাবে কতিপয় বিতর্কিত ব্যক্তিকে কমিটিতে নিয়ে আসেন। এসব ঘটনায় মুসল্লিদের মধ্যে ব্যাপক অসন্তোষ দেখা দেয়। কিন্তু সভাপতি এবং তার অনুসারীরা কারো কথায় কর্ণপাত না করে, ক্ষমতা আঁকড়ে রাখার জন্য নির্বাচন বানচালসহ একের পর এক নানা ফন্দি ফিকির করতে থাকেন। এরিমধ্যে মসজিদের একজন স্থায়ী সদস্য আবেদনকারী ফয়সল আহমেদ চৌধুরি (যিনি ৭ হাজার ডলার দান করেছেন) এর প্রতিবাদ করতে গেলে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয় তারা। এ ঘটনায় বাংলাদেশী কমিউনিটিতে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে যায় এবং এক পর্যায়ে অধিকাংশ প্রতিষ্ঠাতা সদস্য আদালতের দ্বারস্থ হন।
আদালত থেকে প্রাপ্ত একটি নথিতে দেখা যায়- পূর্বেকার কমিটি বিগত দুই রমজান মাসে প্রায় ৬০ হাজার ডলারের ইফতারি আপ্যায়ন বাবদ খরচ দেখিয়েছেন। মসজিদে নিয়মিত যাতায়তকারী বেশ কয়েকজন মুসল্লী এবং পরিচালনা কমিটির কয়েকজনের কাছ থেকে জানা যায়, এটা সম্পূর্ণ ভূয়া হিসাব। মসজিদে যাতায়তকারী মুসল্লিরা নিজেরাই প্রতিদিন ইফতারের আয়োজন করতেন এবং মসজিদের ভেতরে একটি বোর্ডে ইফতার প্রদানকারীদের নাম লেখা থাকতো।
মসজিদে নিয়মিত যাতায়তকারী অত্র এলাকার নেতৃস্থানীয় কয়েকজন ব্যবসায়ী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, মসজিদ আল্লাহর ঘর। এখানে মানুষ যায় এবাদত করতে অথচ কতিপয় ব্যক্তি এটাকে ব্যবসা হিসেবে বেছে নিয়েছে। মসজিদ পরিচালনা কমিটির অনেকেরই আয়-রোজগার সম্পর্কে কারো কোন ধারণা নেই। তারা কিভাবে চলে এ নিয়ে অনেকের মনে প্রশ্ন। অনেকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে অর্থ আত্মসাৎ সহ নানা ধরনের অপকর্মের অভিযোগ রয়েছে।
নবনির্বাচিত কমিটি মসজিদের সকল অনিয়ম এবং অবৈধ কর্মকান্ড জনসমক্ষে প্রকাশ করবেন বলে দেশে বিদেশেকে জানান। তারা সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

(ভুয়া ভোটার তালিকা, অযোগ্য ব্যক্তিকে মুয়াজ্জিন নিয়োগ, বিতর্কিত ব্যক্তিদের লাইফ মেম্বার করা সহ নানা অনিয়ম নিয়ে বায়তুল আমান মসজিদ সংক্রান্ত বিশেষ প্রতিবেদন শীঘ্রই আসছে। দেশে বিদেশের পাতায় চোখ রাখুন।)

কানাডা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে