Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২০ , ৫ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.7/5 (51 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৫-১৮-২০১৮

যা খেলে হবে না পেটে গ্যাস

যা খেলে হবে না পেটে গ্যাস

ছোট-বড় সবার জন্য একটা কমন রোগ হচ্ছে পেটের গ্যাস। সদ্য জন্মানো শিশু থেকে বৃদ্ধ কেউই এর হাত থেকে রক্ষা পায় না। আর পেটের গ্যাসের কষ্ট যার হয় সেই বুঝে কি মারাত্মক এর কষ্ট। অনেক কারণেই পেটে গ্যাস হতে পারে। খাবারের অনিয়ম, পানি কম খাওয়া, ভাজাপোড়া বেশি খাওয়া ইত্যাদি সব কিছুতেই গ্যাসের সৃষ্টি হয়। তবে এমন কিছু খাবার রয়েছে, যাতে আপনার গ্যাস তো হবেই না বরং গ্যাসের সমস্যা থাকলে তা ঠাণ্ডা করতে কার্যকরী ভূমিকা রাখবে। আসুন জেনে নেই কি সেই খাবারগুলো।

শসা: প্রচুর সিলিকা ও ভিটামিন সি আছে শসায়। এতে উচ্চমাত্রায় পানি ও নিম্নমাত্রার ক্যালরিযুক্ত উপাদান রয়েছে। ফলে যারা দেহের ওজন কমাতে চান, তাঁদের জন্য শসা আদর্শ টনিক হিসেবে কাজ করে। যারা ওজন কমাতে চান, তাঁরা সালাদে বেশি করে শসা খেতে পারেন। কাঁচা শসা চিবিয়ে খেলে তা হজমে বড় ধরনের ভূমিকা রাখে। নিয়মিত শসা খেলে দীর্ঘমেয়াদি কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়।

আনারস: আনারসে আছে ৮৫ শতাংশ পানি এবং ব্রোমেলাইন নামের কার্যকর পাচক রস। এটি পরিপাকতন্ত্র পরিষ্কার রাখে। আনারস ত্বকের জন্যও উপকারী।

দই: ল্যাকটোব্যাকিলাস, অ্যাসিডোফিলাস ও বিফিডাসের মতো নানা উপকারী ব্যাকটেরিয়া থাকে দইয়ে। দই খেলে হজম ভালো হয়, গ্যাস কমে। খাবারের পর টকদই খাওয়া বেশ কার্যকর।

তরমুজ: তরমুজে ৯২ শতাংশ পানি। গরমের সময় শরীর থেকে পানি ঝরে যায় বলে এ সময় তরমুজ খাওয়া ভালো। এতে যে পটাশিয়াম থাকে, তা গ্যাস নিয়ন্ত্রণে রাখে।

হলুদ: আয়ুর্বেদ শাস্ত্রমতে, হজমসংক্রান্ত সব ধরনের সমস্যা সমাধানে হলুদ দারুণ কার্যকর। এটি চর্বিজাতীয় খাবার হজমে ভূমিকা রাখে। হলুদে প্রদাহনাশক উপাদান থাকে, যা প্রদাহ কমায়।

পালং: পালংশাকে আছে অদ্রবণীয় আঁশ, যা পরিপাকতন্ত্র পরিষ্কার রাখে, গ্যাস দূর করে। পরিপূর্ণ সুবিধা পেতে পালংশাক ঠিকমতো রান্না করে নিতে হয়।

লেবু-পানি: পানি পানের সুফলের কথা সবাই জানেন। কিন্তু হালকা গরম পানির সঙ্গে লেবুর রস যুক্ত করলে তা প্রাকৃতিক মলবর্ধক হিসেবে কাজ করে। এটি পরিপাকতন্ত্র পরিষ্কার রাখতে কাজ করে।

মৌরি: মৌরির অনেক গুণ। পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, জিঙ্ক, ম্যাংগানিজ, ভিটামিন সি, আয়রন, সেলেনিয়াম, ম্যাগনেশিয়ামের মতো খনিজ উপাদান আছে মৌরিতে। মৌরির-চা হজমপ্রক্রিয়ার জন্য দারুণ উপকারী। পেটের সমস্যা ও কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধে মৌরির তেলের বিশেষ গুণ আছে। গ্যাস্ট্রিক এনজাইম তৈরিতে মৌরি কার্যকর ভূমিকা রাখে।

আরও পড়ুন: স্ট্রবেরির যতো গুণ!

কলা: যারা বেশি করে লবণ খান, তাদের গ্যাস ও হজমে সমস্যা হতে পারে। কলায় যে পটাশিয়াম থাকে, তাতে শরীরের সোডিয়াম ও পটাশিয়ামের ভারসাম্য বজায় থাকে। কলা হজমে সাহায্য করে। দেহ থেকে দূষিত পদার্থ দূর করে দেয়।


তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া
আরএস/০৯:০০/ ১৮ মে

গবেষণা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে