Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (75 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৫-১০-২০১৮

এক ঘি এর জাদুতেই ওজন কমল ৪০ কেজি!

এক ঘি এর জাদুতেই ওজন কমল ৪০ কেজি!

তার নাম হেমনাথ রাও। পেশায় ব্যবসায়ী। ২৯ বছর বয়সী এই তরুণের স্থূলতার সমস্যা রয়েছে। তার সর্বোচ্চ ওজন রেকর্ড করা হয় ১২০ কেজি। সুস্থ থাকতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হলেন তিনি। এক বছরের মধ্যে ওজন ঝরালেন ৪০ কেজি। এর পেছনে মাত্র একটা জিনিস মন্ত্রের মতো কাজ করেছে। জেনে নেওয়া যাক তার সেই গল্প। 

বললেন, আমি পাহাড়ে ওঠার কাজটা দারুণ উপভোগ করি। কিন্তু দেহের এই ওজন নিয়ে মাউন্টেইনিং খুব কঠিন বিষয়। নাগ তিবা ট্র্যাকে গিয়ে উপলব্ধি করলাম এই দেহের ওজন যেভাবেই হোক করা হবে। আপাতত ব্যয়ামকেই বেছে নিলাম। তবে এর সঙ্গে চলবে বিশেষ খাবার-দাবার। এতেই জাদুর মতো কাজ হলো। যা যা খেতাম এবং করতাম তা দেখে নেয়া যাক। 

১. সকালের নাস্তায় ছিল এক গ্লাস ঘোল এবং এক কাপ ব্ল্যাক কফি। 

২. ব্যায়ামের আগে দুই-তিনটি ডিমের সঙ্গে শাক পাতা দিয়ে ভাজা হতো। তেল হিসেবে ব্যবহৃত হতো ঘি। 

৩. লাঞ্চে থাকতো সবুজ সবজি। এগুলো রান্না হতো পনির আর ঘি দিয়ে। 

৪. হাড় ছাড়া মুরগি দিয়ে ভাত কিংবা বিরিয়ানি। এগুলো অবশ্যই ঘি দিয়ে পাকানো হতো। 

এভাবেই একটানা ১৫০ দিন খাবার খেলাম। একই খাবার যে প্রতিদিন খেতাম তা না। বৈচিত্র্য আনা হতো। কিন্তু সব খাবারে দেওয়া হতো ঘি। একমাত্র ঘি আমি নিয়মিত খেয়েছি। সপ্তাহে ছয় দিনই ব্যায়াম করেছি। বিশেষ করে দেহের দুটো অংশ টার্গেট করে ব্যায়াম করতাম। 

খাবারের প্রতি লোভ ত্যাগ করেছিলাম। অনেক মজার মজার খাবার খেতাম তা নয়। সাধারণ খাবার খেতাম ঘি দিয়ে। খুব বেশি খিদে লাগলে শসা খেতাম। ভিটামিন আর খনিজপূর্ণ খাবারই বেশি খেতাম। 

শরীরচর্চা কেন্দ্রে ব্যায়াম করতে গেলেই অনুপ্রাণিত হতাম অনেক বেশি। ব্যায়ামেও যে অনেক ঘাম ঝরিয়েছি তা নয়। সাধারণ ব্যায়ামগুলোই করতাম। সেখানে গিয়ে ব্যায়াম করতে অনেক ভালো লাগে। প্রতিদিন নির্দিষ্ট লক্ষ্য স্থির করতাম। একেক দিন একেক ব্যায়ামের লক্ষ্য পূরণ করাই ছিল অন্যতম লক্ষ্য। 

আরও পড়ুন: শুধু অভ্যাস পরিবর্তনেই ওজন কমলো ৮০ কেজি!

বাইরের খাবার পুরোপুরি বাদ দিয়েছিলাম। যা খেতাম বা বাড়িতেই রান্না করা হতো। ব্যায়ামের পরও যখনই সুযোগ পেতাম হাঁটতাম কিংবা দৌড়াতাম। 

শেষ পর্যায়ে আমার বডিফ্যাট ৫-৬ শতাংশে পৌঁছলো। তখন ক্ষুধার জ্বালা সহ্য করাটা খুব কঠিন হয়ে যেতো। কিন্তু কোনভাবেই হতাশ হইনি। আমার লক্ষ্য ছিল একেবারে ফিট দেহের অধিকারী হয়ে ফটোশুট করবো। অবশেষে আমি তাই করতে পেরেছি। আমি ওজন কমিয়েছি ৪০ কেজি। তবে খাবারের ক্ষেত্রে আমার মূল অস্ত্রটা ছিল ঘি। এই এক ঘিয়ের জাদুতেই এত ওজন কমিয়েছি। 

কোনো কিছুই অসম্ভব নয়, বললেন সফল মানুষটি। এখন পুরোপুরি ফিট তিনি পাহাড়ে চড়তে। ওজন কমানোর দৌড় যারা শুরু করবেন তাদের পিছপা হলে চলবে না। লক্ষ্য ঠিক রেখে কেবল নিয়মতো চলতে হবে। 


তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া 

আরএস/০৯:০০/ ১০ মে

শরীর চর্চা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে