Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ৩ এপ্রিল, ২০২০ , ১৯ চৈত্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৩-২২-২০১৩

রাষ্ট্রপতির কফিনে বিদেশি অতিথিদের শ্রদ্ধা


	রাষ্ট্রপতির কফিনে বিদেশি অতিথিদের শ্রদ্ধা

ঢাকা, ২২ মার্চ- বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমানের কফিনে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বিভিন্ন বন্ধু দেশের প্রতিনিধি,  কূটনীতিক ও বিদেশি অতিথিরা।

শুক্রবার সকালে কিশোরগঞ্জের ভৈরবে হাজী আসমত কলেজের মাঠে হাজারো মানুষের উপস্থিতিতে জানাজার পর দুপুরে রাষ্ট্রপতির মরদেহ নিয়ে আসা হয় বঙ্গভবনে। আগের দিনের মতোই বঙ্গভবনের দরবার হলে লাল গিলাফের নিচে জাতীয় পতাকা জড়িয়ে রাখা হয় রাষ্ট্রপতির সাদা কফিন।

মালয়শিয়ার সিনেটের প্রেসিডেন্ট তানশ্রি আবু জাহের, ভারতের নবায়নযোগ্য জ্বালানি বিষয়ক মন্ত্রী ফারুক আব্দুল্লাহ, শ্রীলঙ্কার নগর উন্নয়ন মন্ত্রী এএইচএম ফওজি, তুরস্কের শ্রম ও সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী ফারুক সেলিক, সিঙ্গাপুরের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ম্যাসাগোস জুলকিফলি এবং মালদ্বীপের ধর্ম মন্ত্রী শাহিম আলী সাঈদসহ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতদের পক্ষে একে একে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয় রাষ্ট্রপতির কফিনে।

বেলা ১২টা ৪০ এ শ্রদ্ধা নিবেদন শুরু হওয়ার আগেই অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সরকারের মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা বঙ্গভবনে পৌঁছান। বিদেশি অতিথিরা শ্রদ্ধা নিবেদনের পর শোকবইয়ে স্বাক্ষর করেন।

শ্রদ্ধা নিবেদন অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রী দীপু মনি সাংবাদিকদের বলেন, বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা রাষ্ট্রপতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ঢাকায় পৌঁছেছেন। তাছাড়া বিভিন্ন দেশের পক্ষ থেকে এখনো শোকবার্তা ও চিঠি আসছে।

বুধবার বিকালে সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমান। তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।

বৃহস্পতিবার সিঙ্গাপুর থেকে তার মরদেহ দেশে আনার পর বঙ্গভবনে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় রাষ্ট্রপতির প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়। এরপর শুক্রবার সকালে কিশোরগঞ্জের ভৈরবে তার প্রথম জানাজা হয়।

দুপুরে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দ্বিতীয় জানাজার পর বিকালে বনানী কবরস্থানে সমাহিত করা হবে রাষ্ট্রপতিকে। সেখানে স্ত্রী আইভি রহমানের কবরে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন তিনি।

জিল্লুর রহমানের জন্ম ১৯২৯ সালের ৯ মার্চ, ভৈরবে। ছাত্র জীবন থেকেই রাজনীতিতে সক্রিয় এই নেতা '৭১ এর মুক্তিযুদ্ধেও যোগ দেন।

কিশোরগঞ্জ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতির দায়িত্ব থেকে শুরু করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন তিনি।

২০০৮ সালের নবম সংসদ নির্বাচনসহ '৭৩, '৮৬, '৯৬ ও ২০০১ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুলিয়ারচর-ভৈরব আসন থেকে জিল্লুর রহমান সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

২০০৭ সালের ১১ জানুয়ারি জরুরি অবস্থা জারির পর গ্রেপ্তারের সময় শেখ হাসিনা দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব জিল্লুর রহমানকে দেন। আর নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর ২০০৯ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব নেন তিনি।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে