Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ , ৫ আশ্বিন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (162 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০২-২১-২০১৮

ফ্রান্সে মাতৃভাষা দিবসের অনুষ্ঠানে ২৫ ভাষাভাষী মানুষ

অনুপম বড়ুয়া


ফ্রান্সে মাতৃভাষা দিবসের অনুষ্ঠানে ২৫ ভাষাভাষী মানুষ

প্যারিস, ২১ ফেব্রুয়ারি- বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর ফ্রান্স সংসদ ও ওবারভিলিয়ে মেরির যৌথ আয়োজনে প্যারিসের ওবারভিলিয়ে শহরে উদ্‌যাপিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। তিন দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানমালার প্রথম দিন অনুষ্ঠানে অংশ নেয় ২৫টি ভাষার ৩৭টি সংগঠন। ওবারভিলিয়ের লা এম্বারকাদের হলে ১৭ ফেব্রুয়ারি শনিবার প্রথম দিনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


স্থানীয় সময় দুপুর ২টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ওবারভিলিয়ে শহরে বসবাসরত বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর সমন্বয়ে নিজ নিজ ভাষায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য নিয়ে মেলা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয় ভাষা আন্দোলনের বিশেষ দৃশ্যায়নের সঙ্গে সমবেত কণ্ঠে ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো’ গানের মাধ্যমে। এতে অংশ নেন উদীচীর নিয়মিত শিল্পী ও নাট্যকর্মীরা। এ সময় শোক ও সংগ্রামকে তুলে ধরে বিভিন্ন ভাষার বর্ণমালা বহনের মধ্য দিয়ে পৃথিবীর সকল মাতৃভাষার প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে উদীচী পরিচালিত বাংলা ভাষা ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের শিশু-কিশোরেরা।


উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন ওবারভিলিয়ে শহরের মেয়র মেরিয়াম দারকাউই, ফান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন, ফ্রান্স সরকারের সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয়ের বিভাগীয় পরিচালক ভেরনিক শতেনে, ফ্রান্সে সদ্য প্রতিষ্ঠিত প্রথম ভাষা ও সাংস্কৃতিক ভবনের সভাপতি সিলভি গ্লিসো ও উদীচী ফ্রান্স সংসদের সভাপতি কিরণময় মণ্ডল। পরিচালনা করেন ওবারভিলিয়ে মেরির ভি অ্যাসোসিয়েটিভের পরিচালক কার্লোস সামেদুর।


অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ফ্রান্সের বাংলাদেশ দূতাবাসের হেড অব চ্যান্সারি ও কাউন্সিলর হজরত আলী খান, দ্বিতীয় সচিব ও ইউনেসকোতে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি নির্ঝর অধিকারী, ওবারভিলিয়ে শহরের প্রথম সহকারী মেয়র এন্টনি দাগে প্রমুখ।

আরও পড়ুন: ফ্রান্সে প্রথম বাংলাদেশি কাউন্সিলর শারমিন হক

এইআয়োজনে বাংলা, সোনেনকি, তামুল, কুর্দি, মান্ডারিন, চাইনিজ, আরব, তামাযিত, বামবারা, পর্তুগিজ, ইংরেজি, লিংগালা, ক্রেওলা, হাছছানা, সোনাকি, ফিফে, হাইতিয়ান খ্রেয়ল, কাবিল, সের্ব, বেতে, বেরবের, ফসে, কেচ্চুয়া, ভ্রতো ও স্পেনিসসহ ২৫ ভাষাভাষীর সংগঠন অংশগ্রহণ করে। এসব জাতিগোষ্ঠীর সমারোহ ভাষা ও সাংস্কৃতিক মেলাকে উৎসবমুখর করে তোলে।


অমর একুশ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ফ্রান্স উদীচীর তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার দ্বিতীয় দিন আগামীকাল ২১ ফেব্রুয়ারি বুধবার স্থানীয় সময় বেলা ১২টায় ফ্রান্সের ওবারভিলিয়ে শরের স্কয়ার এমে সেজারে প্রস্তাবিত শহীদ মিনারের জন্য নির্ধারিত স্থানে উদীচী ফ্রান্স সংসদের উদ্যোগে অস্থায়ীভাবে নির্মিত শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের আয়োজন করা হয়েছে।


উল্লেখ্য, ১৯৯৯ সালে ইউনেসকো কর্তৃক একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণা দেওয়ার পর থেকে এই গৌরবের ভাগীদার শুধুমাত্র বাংলা ভাষাভাষী লোকেরাই নয়, সকল জাতির। একুশ তাই সকল জাতির মাতৃভাষা ও নিজস্ব সংস্কৃতি রক্ষার সংগ্রামের প্রতীকে পরিণত হয়েছে। এখন বিশ্বব্যাপী এই দিনটি উদ্‌যাপিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে।

সূত্র: প্রথম আলো

আর/০৭:১৪/২১ ফেব্রুয়ারি

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে