Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২০ , ৭ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.9/5 (31 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৩-১১-২০১৩

ত্বকী হত্যা: ভাঙলো পুলিশ বেষ্টনি, নামলেন ডিসি


	ত্বকী হত্যা: ভাঙলো পুলিশ বেষ্টনি, নামলেন ডিসি

নারায়ণগঞ্জ, ১১ মার্চ- মেধাবী ছাত্র তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের কর্মীরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ঘেরাও করেছেন সোমবার। গত ৮ মার্চ ত্বকী নিহত হওয়ার পর ৯ মার্চ ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ ঘেরাও কর্মসূচি পালিত হয়।

সোমবার সকাল থেকেই বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন ছিল নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে। মেধাবী ছাত্র তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী হত্যার বিচার দাবিতে নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের কর্মীরা চাষাঢ়া শহীদ মিনারে জমায়েত হয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের অভিমুখে ঘেরাওয়ের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। এ সময় নিরাপত্তা বাড়িয়ে রণপ্রস্তুতিতে থাকে পুলিশ। বন্ধ করে দেওয়া হয় ডিসি অফিসের মূল ফটক।

বেলা ১১টা ৪০ মিনিটের দিকে যখন চাষাঢ়া থেকে শত শত বিক্ষুব্ধ জনতার মিছিলটি ডিসি অফিসের সামনে আসে, তখনও বাধা দেওয়া হয়। তবে ক্ষুব্ধ জনতা পুলিশের বেষ্টনি ও মূল ফটকের তালা ভেঙে ডিসি অফিস প্রাঙ্গণে প্রবেশ করেন। ঘেরাও করে অবস্থান নেন ডিসি অফিসের নিচে। ওই সময় বিক্ষুদ্ধ জনতা জেলা প্রশাসক মনোজ কান্তি বড়াল নিচে নেমে না আসা পর্যন্ত সেখান থেকে সরে না যাওয়ার ঘোষণা দেন। জেলা প্রশাসক নিচে নামতে অনীহা প্রকাশ করলে উপস্থিত জনতা বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন।

তোপের মুখে বাধ্য হয়েই ডিসি দুপুর ১২টা ৫ মিনিটে নিচে নেমে এসে উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে বক্তব্য দেন। ওই সময় উপস্থিত জনতা ডিসির সামনেই প্রশাসনের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন।

জেলা প্রশাসক বলেন, ‘‘ত্বকী হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক ও বেদনাদায়ক। এটি সহজে মেনে নেওয়া যায় না। আমি এ ঘটনায় সমবেদনা প্রকাশ করছি।’’

তিনি বলেন, ‘‘ত্বকীর খুনিদের দ্রুত গ্রেফতার করতে প্রশাসন চেষ্টা চালিয়ে যাবে। ইতোমধ্যে পুলিশ ৩টি কমিটি গঠন করেছে। তারা কাজ করছেন।’’

জেলা প্রশাসক আরো বলেন, ‘‘স্মারকলিপির বিষয়টি সরকারের উচ্চ পর্যায়ে আমরা অবহিত করবো, যাতে দ্রুত খুনীদের গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রেখে আন্দোলনসহ কর্মসূচি গ্রহণের জন্যও উপস্থিত জনতাকে অনুরোধ করেন।

স্মারকলিপিতে বলা হয়, ৬ মার্চ ত্বকী নিখোঁজের পর বিষয়টি পুলিশ ও র‌্যাবকে জানানোর পরেও তারা কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। ৮ মার্চ ত্বকীর লাশ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় নারায়ণগঞ্জবাসী ৯ মার্চ স্বতঃস্ফূর্ত হরতাল পালন, মশাল মিছিল ও ১৫ মার্চ পর্যন্ত ধারাবাহিক কর্মসূচি ঘোষণা করে।

স্মারকলিপিতে কবে নাগাদ হত্যাকারীদের গ্রেফতার করা হবে, সে প্রশ্ন রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এছাড়া গ্রেফতারের নামে নাটক না করতেও প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলা হয়, যদি ত্বকী হত্যা নিয়ে কোনো ধরনের টালবাহনা করা হয়, তাহলে পরে হরতালের চেয়েও কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

স্মারকলিপি প্রদানের সময়ে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খেলাঘর নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি রথিন চক্রবর্তী, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি অ্যাড. প্রদীপ ঘোষ বাবু, ভবানী শংকর রায়, উদীচীর জেলা সভাপতি জাহিদুল হক দীপু, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি হাফিজুল ইসলাম, বাসদের নারায়ণগঞ্জ জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাস, গণসংহতি আন্দোলনের নেতা তরিকুল সুজন, ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সম্পাদক হিমাংশু সাহা, সমগীতের অমল আকাশ, খেলাঘরের জহিরুল ইসলাম, অধিকার এর ধীমান সাহা জুয়েল, ছাত্রফ্রন্টের আহ্বায়ক সজল বাড়ৈ, ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি অনিন্দ্য সাহা তুলতুল, ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি রফিকুল বাপ্পি প্রমুখ।

ডিসি অফিসের নিচে স্মারকলিপি দেওয়ার আগে বক্তারা বলেন, বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রফিউর রাব্বি বাস ভাড়া কমানোর আন্দোলনসহ নারায়ণগঞ্জের গনমানুষের সকল আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছেন। তিনি নারায়ণগঞ্জের গণজাগরণ মঞ্চেরও উদ্যোক্তা। সকল প্রগতিশীল আন্দোলন থেকে রফিউর রাব্বিকে নিবৃত্ত করার জন্যই পরিকল্পিতভাবে তার সন্তানকে হত্যা করা হয়েছে। বক্তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, নারায়ণগঞ্জে একটির পর একটি হত্যকাণ্ড ঘটছে। এক্ষেত্রে প্রশাসনের ভূমিকা সন্তোষজনক নয়।

নারায়নগঞ্জ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে